জলপাইগুড়ি জেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জলপাইগুড়ি জেলা
জলপাইগুড়ি জেলা
পশ্চিমবঙ্গের জেলা
পশ্চিমবঙ্গে জলপাইগুড়ির অবস্থান
পশ্চিমবঙ্গে জলপাইগুড়ির অবস্থান
দেশভারত
রাজ্যপশ্চিমবঙ্গ
প্রশাসনিক বিভাগজলপাইগুড়ি
সদরদপ্তরজলপাাইগুড়ি
তহশিল
সরকার
 • লোকসভা কেন্দ্রজলপাইগুড়ি
 • বিধানসভা আসননাগরাকাটা, ধুপগুড়ি, মেখলিগঞ্জ, ময়নাগুড়ি, মাল, ডাবগ্রাম-ফুলবাড়ি, জলপাইগুড়ি, রাজগঞ্জ
আয়তন
 • মোট৩৩৮৬ কিমি (১৩০৭ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট২৩,৮১,৫৯৬
 • ঘনত্ব৭০০/কিমি (১৮০০/বর্গমাইল)
জনতাত্ত্বিক
 • সাক্ষরতা৭৩.২৫ শতাংশ
 • লিঙ্গানুপাত৯৫৬
প্রধান মহাসড়ক৩১ নং , ৩১এ , ৩১সি , ৩১ডি নং জাতীয় সড়ক
ওয়েবসাইটদাপ্তরিক ওয়েবসাইট

জলপাইগুড়ি জেলা (উচ্চারণ: ˌʤælpaɪˈgʊəri) (বাংলা: জলপাইগুড়ি জেলা) ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের উত্তর ভাগে অবস্থিত। জেলাটির পূর্বে পশ্চিমবঙ্গের আলিপুরদুয়ার জেলা,পশ্চিমে পশ্চিমবঙ্গের দার্জিলিং জেলা, উত্তরে ভুটান রাষ্ট্র এবং দক্ষিণে পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহার জেলা এবং বাংলাদেশ-এর পঞ্চগড় জেলা অবস্থিত । জেলাটির সীমানা ২৬° ১৫' ৪৭" এবং ২৬° ৫৯' ৩৪" উত্তর অক্ষাংশ এবং ৮৮° ২৩' ০২" and ৮৯° ০৭' ৩০" পূর্ব দ্রাঘিমাংশ তে অবস্থিত। এই জেলার সদর হল জলপাইগুড়ি

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ইতিহাস অনুযায়ী এই জেলার নাম জল্পেশ্বর থেকে এসেছে যেটা শিব ঠাকুরের আরেক নামা,কিন্তু কেউ কেউ বলে এই স্থানে আগে নাকি জলপাই এর গাছ প্রচুর মাত্রায় ছিল,যাহার জন্য এই জায়গার নাম জলপাইগুড়ি। পূর্বে এই স্থানটি কোচ-রাজবংশীদের এক ভাগ ছিল যাহার নাম ছিল কামতাপুর।১৮৬৯ সালে এই জেলাটির স্থাপন করা হয়।

ভাষা[সম্পাদনা]

জলপাইগুড়ি জেলার ভাষা- ২০১১ [১].[২]

  নেপালী (৪.৮৭%)
  ওরাওঁ (১.৩৬%)
  সাঁওতালি (০.৬৩%)
  বাংলা (৭১.৭৫%)
  হিন্দী (৬.১৩%)
  সাদরি (১২.৮১%)
  অন্যান্য (২.৪৫%)

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

  1. http://www.censusindia.gov.in/2011census/C-16.html
  2. "DISTRIBUTION OF THE 22 SCHEDULED LANGUAGES-INDIA/STATES/UNION TERRITORIES - 2011 CENSUS" (PDF)। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মার্চ ২০১৬