ফিরিঙ্গি কালীবাড়ি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ফিরিঙ্গি কালীবাড়ি
Firingi Kalibari in Bowbazar, Kolkata, West Bengal, India.jpg
ধর্ম
অন্তর্ভুক্তিহিন্দুধর্ম
অবস্থান
অবস্থান২৪৪, বিপিন বিহারী গাঙ্গুলি স্ট্রিট, বউবাজার, কলকাতা
স্থাপত্য
ধরনচাঁদনি, বঙ্গীয় স্থাপত্যশৈলী
সৃষ্টিকারীঅজ্ঞাত

শ্রীশ্রীসিদ্ধেশ্বরী কালীমন্দির বা ফিরিঙ্গি কালীবাড়ি হল কলকাতার বউবাজার অঞ্চলে অবস্থিত একটি প্রাচীন কালী মন্দির। এটি স্থানীয় বিপিন বিহারী গাঙ্গুলি স্ট্রিটে অবস্থিত। স্থানীয় জনশ্রুতি অনুযায়ী, মন্দিরটি ৫০০ বছরের পুরনো। অ্যান্টনি ফিরিঙ্গি এই মন্দিরে আসতেন বলে এই মন্দিরটি ফিরিঙ্গি কালীবাড়ি নামে পরিচিত হয়।[১][২]

নামকরণ[সম্পাদনা]

ফিরিঙ্গি কালীবাড়িতে প্রতিষ্ঠিত কালীমূর্তিটি "শ্রীশ্রীসিদ্ধেশ্বরী কালীমাতা ঠাকুরানি" নামে পূজিত হয়। মন্দিরের দেখাশোনা করতেন বিধবা প্রমীলাদেবী। পর্তুগিজ-বংশোদ্ভুত কবিয়াল অ্যান্টনি ফিরিঙ্গি হিন্দুধর্মের প্রতি অনুরক্ত হয়ে এই মন্দিরে যাতায়াত করতেন। তাঁর সঙ্গেই প্রণয়ে আবদ্ধ হন অ্যান্টনি সাহেব।[২] পরে লোকমুখে এই মন্দিরের কালীমূর্তিটির নাম হয় "ফিরিঙ্গি কালী" এবং মন্দিরটি "ফিরিঙ্গি কালীবাড়ি" নামে পরিচিত হয়।[৩]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ফিরিঙ্গি কালীবাড়ি, বিপিন বিহারী গাঙ্গুলী স্ট্রিট, বহুবাজার, কলকাতা।

কলকাতায় আগে ভাগীরথী নদী এবং ভাগীরথী নদী থেকে তৈরি কিছু খাল দিয়ে পরিবেষ্টিত অরণ্যসঙ্কুল অঞ্চল ছিলো। সেখানেই পাতার ছাউনিতে শিব ও শীতলার মন্দির প্রতিষ্ঠিত হয়। পরে ১৪৩৭ খ্রিস্টাব্দে ভাগীরথী নদীর অদূরে একটি শ্মশানের মধ্যে মাটির কালীমূর্তি প্রতিষ্ঠা করা হয়।[৪] মন্দিরের তখনও প্রতিষ্ঠা হয়নি। ফিরিঙ্গি কালীবাড়ির সঠিক প্রতিষ্ঠাকাল জানা যায় না। মন্দিরের সামনের দেওয়াল ফলকে লেখা আছে, "ওঁ শ্রীশ্রীসিদ্ধেশ্বরী কালীমাতা ঠাকুরাণী/ স্থাপিত ৯০৫ সাল, ফিরিঙ্গী কালী মন্দির"। এর থেকে অনুমান করা হয়, মন্দিরটি ৯০৫ বঙ্গাব্দে স্থাপিত হয়েছিল।[৩] মন্দিরটি প্রথমে ছিল শিব মন্দির। ১৮২০ খ্রিস্টাব্দ থেকে ১৮৮০ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত শ্রীমন্ত পণ্ডিত এই মন্দিরের প্রধান পুরোহিত ছিলেন।[৪] তিনি নিঃসন্তান হওয়ায় ১৮৮০ সালে পোলবার বন্দ্যোপাধ্যায় পরিবারের শশিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়কে ৬০ টাকায় দেবোত্তর সম্পত্তি হিসেবে মন্দিরটি বিক্রি করে দেন।[২] বন্দ্যোপাধ্যায় পরিবার এখনও মন্দিরের সেবায়েত।[৩]

পূজা[সম্পাদনা]

ফিরিঙ্গি কালীবাড়ি একটি চাঁদনি স্থাপত্যের মন্দির। এই মন্দিরের কালীমূর্তিটি মাটির তৈরি। এটি প্রায় সাড়ে পাঁচ ফুট লম্বা সবসনা ত্রিনয়না মূর্তি।[৩][৪] কালীমূর্তি ছাড়াও মন্দিরে আছে শীতলা, মনসা, দুর্গা, শিবনারায়ণের মূর্তি। মন্দিরে প্রতি অমাবস্যায় কালীপূজা ও প্রতি পূর্ণিমায় সত্যনারায়ণ পূজা হয়।[৩]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. মিত্র, স্বাতী (২০১১)। Kolkata:Guide Book (ইংরাজি ভাষায়)। গুডআর্থ পাবলিকশন। পৃষ্ঠা ৮৪। 
  2. সংবাদদাতা, নিজস্ব। "কালী-কথা: ফিরিঙ্গি কালীবাড়ি"anandabazar.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১১-১১ 
  3. পশ্চিমবঙ্গের কালী ও কালীক্ষেত্র, দীপ্তিময় রায়, মণ্ডল বুক হাউস, কলকাতা, ১৪১৪ বঙ্গাব্দ, পৃ. ৬০-৬১
  4. আইচ, দেবাশিস (১২ অক্টোবর ২০১৪)। "জয় কালী কলকাতা-ওয়ালি"আনন্দবাজার পত্রিকা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জানুয়ারি ২০১৫