উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ
UEFA Champions League logo 2.svg
সংস্থাপিত ১৯৯২ (১৯৫৫ পুরানো ফরম্যাটে)
অঞ্চল ইউরোপ (উয়েফা)
দলের সংখ্যা ৩২ (গ্রুপ পর্যায়)
৭৬ বা ৭৭ (সর্বমোট)
বর্তমান চ্যাম্পিয়ন স্পেন বার্সেলোনা (৫)
সর্বাধিক সফল দল(সমূহ) স্পেন রিয়াল মাদ্রিদ (১০)[১]
২০০৭-০৮

ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়ন ক্লাবস' কাপের উত্তরসূরী উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ ইউরোপের ক্লাব পর্যায়ের শীর্ষ দলগুলোকে অনুষ্ঠিত একটি ফুটবল প্রতিযোগিতা, ১৯৫৫ সাল থেকে যেটির আয়োজন করে আসছে ইউনিয়ন অব ইউরোপীয়ান ফুটবল এসোসিয়েশন (উয়েফা)।[২] এই প্রতিযোগিতার পুরস্কার ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়ন ক্লাব'স কাপ (ইউরোপীয়ান কাপ নামে সমধিক পরিচিত) ক্লাব ফুটবলে জগতে সবচেয়ে গৌরবজনক হিসেবে বিবেচিত হয়। উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ উয়েফা কাপউয়েফা কাপ উইনার্স কাপ থেকে আলাদা প্রতিযোগিতা।

প্রতিযোগিতাটি কয়েকটি স্তরে বিভক্ত। বর্তমান ফরম্যাট অনুযায়ী মধ্য-জুলাই মাসে তিনটি প্রাথমিক নকআউট বাছাইপর্ব রয়েছে। বাছাই পর্ব থেকে উন্নীত ১৬টি দল আগে থেকে বাছাই করা ১৬টি দলের সাথে গ্রুপ পর্যায়ে প্রবেশ করে। গ্রুপ পর্যায়ের আটটি গ্রুপের বিজয়ী ও রানার্স-আপ নিয়ে ১৬টি দল মূল নকআউট স্তরে প্রবেশ করে। এই রাউন্ড ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে শুরু হয় এবং মে মাসে ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়। আগে কেবল বিভিন্ন লীগের চ্যাম্পিয়নদেরকেই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে দেয়া হত। ১৯৯৭ সাল থেকে বড় লীগের চ্যাম্পিয়নদের পাশাপাশি রানার্স-আপদেরও অংশ নিতে দেয়া হয়।

বিভিন্ন দল এই শিরোপা জিতেছে এবং অনেক দল একাধিক বার এই শিরোপা লাভ করেছে। এপর্যন্ত অনুষ্ঠিত আসর গুলোর মধ্যে রিয়াল মাদ্রিদ রেকর্ড ৯ বার এই শিরোপা জিতেছে। এসি মিলান জিতেছে ৭ বার, লিভারপুল ৫ বার, আয়াক্স আমস্টারডাম ও বায়ার্ন মিউনিখ ৪ বার এবং ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড জিতেছে ৩ বার।

এই প্রতিযোগিতার বর্তমান শিরোপাধারী বার্সেলোনা

ইতিহাস[সম্পাদনা]

যোগ্যতা নির্ধারন[সম্পাদনা]

প্রতিযোগিতার বিভিন্ন পর্যায়[সম্পাদনা]

চ্যাম্পিয়নস লীগের ফাইনাল[সম্পাদনা]

রেকর্ড ও পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

আর্থিক অবস্থা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Umair, M. A. (৭ মে ২০১৩)। "Champions League Winners: The most successful countries and cities"Soccerlens.com। Soccerlens.com। সংগৃহীত ১০ অক্টোবর ২০১৩ 
  2. "Football's premier club competition"Union of European Football Associations। ৩১ জানুয়ারি ২০১০। সংগৃহীত ২৩ মে ২০১০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]