২০২২–২৩ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
২০২২–২৩ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ
Istanbul Atatürk Olympic Stadium 1.jpg
তুরস্কের ইস্তাম্বুলের আতাতুর্ক অলিম্পিক স্টেডিয়ামে এই আসরের ফাইনাল ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে
বিবরণ
তারিখবাছাইপর্ব:
২৩ জুন – ২৪ আগস্ট ২০২২
চূড়ান্ত পর্ব:
৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ – ১০ জুন ২০২৩
দলচূড়ান্ত পর্ব: ৩২
মোট: ৭৯ (৫৪টি অ্যাসোসিয়েশন থেকে)
২০২৩–২৪

২০২২–২৩ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ হচ্ছে উয়েফা কর্তৃক আয়োজিত ইউরোপীয় দলগুলোর ফুটবল প্রতিযোগিতার ৬৮তম আসর এবং ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নস ক্লাব হতে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে নামে পরিবর্তন করার পর ৩১তম আসর।

ইস্তাম্বুলের আতাতুর্ক অলিম্পিক স্টেডিয়ামে এই আসরের ফাইনাল ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। ২০২২–২৩ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের বিজয়ী দল ২০২৩ উয়েফা সুপার কাপে ২০২২–২৩ উয়েফা ইউরোপা লিগের বিজয়ী দলের বিরুদ্ধে খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে। একই সাথে উভয় দল স্বয়ংক্রিয়ভাবে ২০২৩–২৪ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বে খেলার জন্য উত্তীর্ণ হবে। স্টেডিয়ামটি মূলত ২০২১ উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনাল আয়োজনের জন্য নিযুক্ত করা হয়েছিল, কিন্তু তুরস্কে কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে এটি সরানো হয়েছিল।[১][২]

এই আসরটি ১৯৯৯–২০০০ মৌসুমের পর দ্বিতীয় (উক্ত মৌসুমে ১৯৯৮–৯৯ উয়েফা কাপ উইনার্স কাপের শেষ আসর অনুষ্ঠিত হয়েছিল) মৌসুম, যেখানে উয়েফার তিনটি প্রধান ক্লাব প্রতিযোগিতা (উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ, উয়েফা ইউরোপা লিগ এবং উয়েফা ইউরোপা কনফারেন্স লিগ) অনুষ্ঠিত হবে।[৩]

২০২১ সালের ২৪শে জুন তারিখে উয়েফা সকল উয়েফা ক্লাব প্রতিযোগিতায় অ্যাওয়ে গোল নিয়ম বাতিল করার প্রস্তাব অনুমোদন করেছে, যা ১৯৬৫ সাল থেকে ব্যবহৃত হয়ে আসছিল। অতএব, যদি দুই লেগের পর্বের ম্যাচ সমতায় থাকে অর্থাৎ দুটি দল একই পরিমাণ গোল করে, তবে বিজয়ী প্রতিটি দলের অ্যাওয়ে গোলের সংখ্যা দ্বারা বিজয়ী নির্ধারণ করা হবে না, তবে সর্বদা অতিরিক্ত ৩০ মিনিটের খেলা অনুষ্ঠিত হবে। যদি অতিরিক্ত সময় শেষেও দুটি দল সমতায় থাকে, তবে পেনাল্টি শুট-আউটের মাধ্যমে ম্যাচের বিজয়ী নির্ধারণ করা হবে।[৪]

দল বণ্টন[সম্পাদনা]

উয়েফার ৫৫টি সদস্য রাষ্ট্রের মধ্যে ৫৪টি রাষ্ট্রের সর্বমোট ৭৯টি দল ২০২২–২৩ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে অংশগ্রহণ করবে (শুধুমাত্র লিশটেনস্টাইন এর ব্যতিক্রম, কারণ তারা কোনো ঘরোয়া লিগ আয়োজন করে না)। উয়েফা দেশ গুণাঙ্ক নিয়ম অনুযায়ী উয়েফার অ্যাসোসিয়েশন র‍্যাঙ্কিং করা হয়, যার মাধ্যমে এই প্রতিযোগিতায় প্রত্যেক অ্যাসোসিয়েশন হতে কতটি দল অংশগ্রহণ করবে তা নির্ধারণ করা হবে:[৫]

  • অ্যাসোসিয়েশন ১–৪ হতে ৪টি করে দল খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে।
  • অ্যাসোসিয়েশন ৫–৬ হতে ৩টি করে দল খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে।
  • অ্যাসোসিয়েশন ৭–১৫ হতে ২টি করে দল খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে।
  • অ্যাসোসিয়েশন ১৬–৫৫ (ব্যতিক্রম লিশটেনস্টাইন) হতে ১টি করে দল খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে।
  • ২০২১–২২ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ এবং ২০২১–২২ উয়েফা ইউরোপা লিগের বিজয়ীদের এই আসরে খেলার একটি অতিরিক্ত প্রবেশাধিকার রয়েছে, যার মাধ্যমে তারা যদি তাদের ঘরোয়া লিগের মাধ্যমে ২০২২–২৩ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলার যোগ্যতা অর্জন না করেও এই আসরে অংশগ্রহণ কতে পারবে।

অ্যাসোসিয়েশন র‍্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

২০২২–২৩ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের জন্য, ২০২১ সালের উয়েফা দেশ গুণাঙ্ক অনুযায়ী প্রত্যেক সদস্য রাষ্ট্র হতে কতটি দল খেলবে তা বরাদ্দ করা হয়েছে, যেটি ২০১৬–১৭ মৌসুম হতে ২০২০–২১ মৌসুম পর্যন্ত ইউরোপীয় প্রতিযোগিতায় তাদের ফলাফলের ওপর ভিত্তি করে নির্ধারিত।[৬]

এই দেশ গুণাঙ্কের দল বরাদ্দ ছাড়াও, নিম্নে উল্লেখিত ক্ষেত্রে অ্যাসোসিয়েশন হতে অতিরিক্ত দলও এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে পারে:

  • (ইউসিএল) – ২০২১–২২ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ বিজয়ী দলের জন্য অতিরিক্ত স্থান।
  • (ইউইএল) – ২০২১–২২ উয়েফা ইউরোপা লিগ বিজয়ী দলের জন্য অতিরিক্ত স্থান।
২০২২–২৩ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের জন্য অ্যাসোসিয়েশন র‍্যাঙ্কিং
অব. অ্যাসোসিয়েশন গুণাঙ্ক দল টীকা
 ইংল্যান্ড ১০০.৫৬৯
 স্পেন ৯৭.৮৫৫
 ইতালি ৭৫.৪৩৮
 জার্মানি ৭৩.৫৭০
 ফ্রান্স ৫৬.০৮১
 পর্তুগাল ৪৮.৫৪৯
 নেদারল্যান্ডস ৩৯.২০০
 রাশিয়া ৩৮.৩৮২
 বেলজিয়াম ৩৬.৫০০
১০  অস্ট্রিয়া ৩৫.৮২৫
১১  স্কটল্যান্ড ৩৩.৩৭৫
১২  ইউক্রেন ৩৩.১০০
১৩  তুরস্ক ৩০.১০০
১৪  ডেনমার্ক ২৭.৮৭৫
১৫  সাইপ্রাস ২৭.৭৫০
১৬  সার্বিয়া ২৬.৭৫০
১৭  চেক প্রজাতন্ত্র ২৬.৬০০
১৮  ক্রোয়েশিয়া ২৬.২৭৫
১৯   সুইজারল্যান্ড ২৬.২২৫
অব. অ্যাসোসিয়েশন গুণাঙ্ক দল টীকা
২০  গ্রিস ২৬.০০০
২১  ইসরায়েল ২৪.৩৭৫
২২  নরওয়ে ২১.০০০
২৩  সুইডেন ২০.৫০০
২৪  বুলগেরিয়া ২০.৩৭৫
২৫  রোমানিয়া ১৮.২০০
২৬  আজারবাইজান ১৬.৮৭৫
২৭  কাজাখস্তান ১৫.৬২৫
২৮  হাঙ্গেরি ১৫.৫০০
২৯  বেলারুশ ১৫.২৫০
৩০  পোল্যান্ড ১৫.১২৫
৩১  স্লোভেনিয়া ১৪.২৫০
৩২  স্লোভাকিয়া ১৩.৬২৫
৩৩  লিশটেনস্টাইন ৯.০০০
৩৪  লিথুয়ানিয়া ৮.৭৫০
৩৫  লুক্সেমবুর্গ ৮.২৫০
৩৬  বসনিয়া ও হার্জেগোভিনা ৮.০০০
৩৭  আয়ারল্যান্ড ৭.৮৭৫
অব. অ্যাসোসিয়েশন গুণাঙ্ক দল টীকা
৩৮  উত্তর মেসিডোনিয়া ৭.৬২৫
৩৯  আর্মেনিয়া ৭.৩৭৫
৪০  লাতভিয়া ৭.৩৭৫
৪১  আলবেনিয়া ৭.২৫০
৪২  উত্তর আয়ারল্যান্ড ৬.৯৫৮
৪৩  জর্জিয়া ৬.৮৭৫
৪৪  ফিনল্যান্ড ৬.৮৭৫
৪৫  মলদোভা ৬.৮৭৫
৪৬  মাল্টা ৬.৩৭৫
৪৭  ফ্যারো দ্বীপপুঞ্জ ৬.১২৫
৪৮  কসোভো ৫.৮৩৩
৪৯  জিব্রাল্টার ৫.৬৬৬
৫০  মন্টিনিগ্রো ৫.০০০
৫১  ওয়েলস ৫.০০০
৫২  আইসল্যান্ড ৪.৮৭৫
৫৩  এস্তোনিয়া ৪.৭৫০
৫৪  অ্যান্ডোরা ৩.৩১১
৫৫  সান মারিনো ১.১৬৬

বিন্যাস[সম্পাদনা]

নিম্নে এই মৌসুমের প্রবেশ তালিকা উল্লেখ করা হয়েছে।[৭]

২০২২–২৩ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের প্রবেশাধিকার তালিকা
পর্ব যেসকল দল এই পর্বে প্রবেশ করে যেসকল দল পূর্ববর্তী পর্ব হতে প্রবেশ করে
প্রাথমিক পর্ব
(৪টি দল)
  • অ্যাসোসিয়েশন ৫২–৫৫ থেকে ৪টি চ্যাম্পিয়ন
প্রথম বাছাইপর্ব
(৩৪টি দল)
  • অ্যাসোসিয়েশন ১৮–৫১ থেকে ৩৩টি চ্যাম্পিয়ন (ব্যতিক্রম লিশটেনস্টাইন)
  • প্রাথমিক পর্ব থেকে ১টি বিজয়ী
দ্বিতীয় বাছাইপর্ব
(২৬টি দল)
চ্যাম্পিয়ন পথ
(২০টি দল)
  • অ্যাসোসিয়েশন ১৫–১৭ থেকে ৩টি চ্যাম্পিয়ন
  • প্রথম বাছাইপর্ব থেকে ১৭টি বিজয়ী
লিগ পথ
(৬টি দল)
  • অ্যাসোসিয়েশন ১০–১৫ থেকে ৬টি রানার-আপ
তৃতীয় বাছাইপর্ব
(১৬টি দল)
চ্যাম্পিয়ন পথ
(১০টি দল)
  • দ্বিতীয় বাছাইপর্ব (চ্যাম্পিয়ন পথ) থেকে ১০টি বিজয়ী
লিগ পথ
(৬টি দল)
  • অ্যাসোসিয়েশন ৭–৯ থেকে ৩টি রানার-আপ
  • দ্বিতীয় বাছাইপর্ব (লিগ পথ) থেকে ৩টি বিজয়ী
প্লে-অফ পর্ব
(১২টি দল)
চ্যাম্পিয়ন পথ
(৮টি দল)
  • অ্যাসোসিয়েশন ১২–১৪ থেকে ৩টি বিজয়ী
  • তৃতীয় বাছাইপর্ব (চ্যাম্পিয়ন পথ) থেকে ৫টি বিজয়ী
লিগ পথ
(৪টি দল)
  • অ্যাসোসিয়েশন ৬-এর ৩য় স্থান অধিকারী
  • তৃতীয় বাছাইপর্ব (লিগ পথ) থেকে ৩টি বিজয়ী
গ্রুপ পর্ব
(৩২টি দল)
  • অ্যাসোসিয়েশন ১–১১ থেকে ১১টি বিজয়ী
  • অ্যাসোসিয়েশন ১–৬ থেকে ৬টি রানার-আপ
  • অ্যাসোসিয়েশন ১–৫ থেকে ৫টি তৃতীয় স্থান অধিকারী
  • অ্যাসোসিয়েশন ১–৪ থেকে ৪টি চতুর্থ স্থান অধিকারী
  • প্লে-অফ পর্ব থেকে ৪টি বিজয়ী (চ্যাম্পিয়ন পথ)
  • প্লে-অফ পর্ব থেকে ২টি বিজয়ী (লিগ পথ)
নকআউট পর্ব
(১৬টি দল)
  • গ্রুপ পর্ব থেকে ৮টি গ্রুপ বিজয়ী
  • গ্রুপ পর্ব থেকে ৮টি গ্রুপ রানার-আপ

সময়সূচী[সম্পাদনা]

এই আসরের সময়সূচী নিম্নরূপ।[৮] প্রাথমিক পর্বের ফাইনাল ছাড়া সব ম্যাচ মঙ্গলবার ও বুধবার খেলা হবে। প্লে-অফ পর্ব থেকে শুরু হওয়া নির্ধারিত ম্যাচ শুরুর সময় ১৮:৪৫ এবং ২১:০০ সিইএসটি/সিইটি।[৯]

সকল ড্র উয়েফার প্রধান সদরদপ্তর সুইজারল্যান্ডের নিওঁ-তে ১২:০০ সিইএসটি/সিইটি সময়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২০২২–২৩ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের সময়সূচি
ধাপ পর্ব ড্রয়ের তারিখ ম্যাচের তারিখ
বাছাইপর্ব প্রাথমিক পর্ব ৭ জুন ২০২২ ২৩-২৬ জুন ২০২২ (সেমি-ফাইনাল এবং ফাইনাল)
প্রথম বাছাইপর্ব ১৪ জুন ২০২২ ৫-৬ জুলাই ২০২২ এবং ১২-১৩ জুলাই ২০২২
দ্বিতীয় বাছাইপর্ব ১৫ জুন ২০২২ ১৯-২০ জুলাই ২০২২ এবং ২৬-২৭ জুলাই ২০২২
তৃতীয় বাছাইপর্ব ১৮ জুলাই ২০২২ ২-৩ আগস্ট ২০২২ এবং ৯ আগস্ট ২০২২
প্লে-অফ ১ আগস্ট ২০২২ ১৬-১৭ আগস্ট ২০২২ এবং ২৩-২৪ আগস্ট ২০২২
গ্রুপ পর্ব ম্যাচদিন ১ ২৫ আগস্ট ২০২২ ৬-৭ সেপ্টেম্বর ২০২২
ম্যাচদিন ২ ১৩-১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২
ম্যাচদিন ৩ ৪-৫ অক্টেবর ২০২২
ম্যাচদিন ৪ ১১-১২ অক্টেবর ২০২২
ম্যাচদিন ৫ ২৫-২৬ অক্টেবর ২০২২
ম্যাচদিন ৬ ১-২ নভেম্বর ২০২২
নকআউট পর্ব ১৬ দলের পর্ব ৭ নভেম্বর ২০২২ ১৪,১৫,২১,২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ এবং ৭,৮,১৪,১৫ মার্চ ২০২৩
কোয়ার্টার-ফাইনাল ১৭ মার্চ ২০২৩ ১১-১২ এপ্রিল ২০২৩ এবং ১৮-১৯ এপ্রিল ২০২৩
সেমি-ফাইনাল ৯-১০ মে ২০২৩ এবং ১৬-১৭ মে ২০২৩
ফাইনাল ১০ জুন ২০২৩ ইস্তাম্বুলের আতাতুর্ক অলিম্পিক স্টেডিয়ামে

গ্রুপ পর্ব[সম্পাদনা]

গ্রুপ পর্বের জন্য ড্র অনুষ্ঠিত হবে ২৫ আগস্ট ২০২২ এ। ৩২টি দলকে আটটি গ্রুপে চারটি করে ভাগ করা হবে। নিম্নলিখিত নীতিগুলির উপর ভিত্তি করে ড্রয়ের জন্য দলগুলিকে চারটি পটে বাছাই করা হয়েছে যার মধ্যে প্রতিটি পটে আটটি দল থাকবে:

  • পট ১-এ উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ এবং ইউরোপা লিগের শিরোপাধারীরা রয়েছে, এবং তাদের ২০২১ উয়েফা কান্ট্রি কো-ইফিশিয়েন্টের উপর ভিত্তি করে শীর্ষ ছয়টি অ্যাসোসিয়েশনের চ্যাম্পিয়নরা রয়েছে। যেহেতু চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপাধারী, রিয়াল মাদ্রিদ অ্যাসোসিয়েশন ২ (স্পেন) এর চ্যাম্পিয়ন, তাই অ্যাসোসিয়েশন ৭ (নেদারল্যান্ডস) এর চ্যাম্পিয়ন আয়াক্সও পট ১-এ স্থান পাবে।
  • পট ২, ৩ এবং ৪-এ অবশিষ্ট দলগুলি রয়েছে, তাদের ২০২২ উয়েফা ক্লাব কো-ইফিশিয়েন্টের উপর ভিত্তি করে বাছাই করা হয়েছে।

একই অ্যাসোসিয়েশনের দল একই গ্রুপে ড্র করা যাবে না।

আইন্ট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট আগের মৌসুমে ইউরোপা লিগ জেতার পর প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বে তাদের অভিষেক হবে। চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো পাঁচটি জার্মান ক্লাব গ্রুপ পর্বে প্রবেশ করেছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. UEFA.com (২০১৮-১২-০২)। "UEFA Executive Committee approves new club competition | Inside UEFA"UEFA.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০২-১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-২১ 
  2. UEFA.com (২০২১-০৬-২৪)। "Abolition of the away goals rule in all UEFA club competitions | Inside UEFA"UEFA.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৮-১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-২১ 
  3. "UEFA Executive Committee approves new club competition"UEFA.com। Union of European Football Associations। ২ ডিসেম্বর ২০১৮। ১৩ মে ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  4. "Abolition of the away goals rule in all UEFA club competitions"। UEFA.com। ২৪ জুন ২০২১। ২৪ জুন ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ আগস্ট ২০২১ 
  5. "Regulations of the UEFA Champions League, 2022/23 Season"documents.uefa.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-২১ 
  6. UEFA.com। "Country coefficients | UEFA Coefficients"UEFA.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৩-১০-১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-২১ 
  7. "Access list 2021–24" (PDF)। ৪ ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ আগস্ট ২০২১ 
  8. UEFA.com (২০২১-০৮-১৬)। "2021/22 UEFA Champions League: all you need to know"UEFA.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৭-২৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-২১ 
  9. UEFA.com (২০১৯-০৯-২৪)। "Format change for 2020/21 UEFA Nations League | Inside UEFA"UEFA.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০২-২৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৮-২১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]