পারি সাঁ-জেরমাঁ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
প্যারিস সেইন্ট জার্মেইন
প্যারিস সেইন্ট জার্মেইন লোগো.png
পূর্ণ নামপ্যারিস সেইন্ট জার্মেইন ফুটবল ক্লাব
ডাকনামলে পারিজিয়াঁ (প্যারিসীয়রা) লে রুজ-এ-ব্লো (লাল-নীলেরা)
সংক্ষিপ্ত নামPSG (পেএসজি)
Paris SG (পারি এসজি)
প্রতিষ্ঠিত১৯৭০; ৪৮ বছর আগে (১৯৭০)
মাঠপার্ক দে প্রাঁস, প্যারিস
ধারণক্ষমতা৪৭,৯২৯
মালিকঅরিক্স কাতার স্পোর্টস ইনভেস্টমেন্টস (কিউএসআই)
সভাপতিনাসের আল-খেলাইফি
ম্যানেজারফ্রান্স উনাই এমরি
লীগলীগ ১
২০১৬-১৭লীগ ১, ২য়
ওয়েবসাইটক্লাব ওয়েবসাইট

'প্যারিস সেইন্ট জার্মেইন[টীকা ১][টীকা ২] (ফরাসি: Paris Saint-Germain FC; ফরাসি উচ্চারণ: ​[paʁi sɛ̃ ʒɛʁmɛ̃]), যা ফ্রান্সে প্রচলিতভাবে পারি সাঁ-জেরমাঁ বা সংক্ষেপে পিএসজি নামে পরিচিত, ইউরোপের ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিস শহর অবস্থিত একটি পেশাদার ফুটবল ক্লাব। ক্লাবটি ১৯৭০ সালে প্রতিষ্ঠা করা হয়। ঐতিহ্যগতভাবে ক্লাবের খেলোয়াড়েরা লাল-নীল পোশাক পরে থাকে। ১৯৭৪ সাল থেকে ক্লাবটি প্যারিসের ১৬তম আরোঁদিসমঁ বা প্রশাসনিক এলাকাতে প্রায় ৪৮ হাজার আসনক্ষমতাবিশিষ্ট পার্ক দে প্রাঁস মাঠে আয়োজক দল হিসেবে খেলে থাকে।[১][২] এই ক্লাব দলটি ফরাসি ক্লাব প্রতিযোগিতা ব্যবস্থার সর্বোচ্চ স্তরে খেলে থাকে, যার নাম লিগ আঁ[৩]

সাম্প্রতিক বছরগুলিতে পারি সাঁ-জেরমাঁ ফ্রান্স ও ইউরপের ফুটবল অঙ্গনে একটি প্রধান শক্তি হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। তারা এ পর্যন্ত ৩৬টি সর্বোচ্চ-স্তরের শিরোপা বিজয় করেছে, যার ফলে তারা ফরাসি ফুটবলের ইতিহাসে সবচেয়ে সফল ক্লাব দল হিসেবে স্বীকৃত।[৩][৪] পারি সাঁ-জেরমাঁ একমাত্র ফরাসি ক্লাব যারা কখনো ফ্রান্সের সর্বোচ্চ পেশাদার ক্লাব ফুটবল প্রতিযোগিতা লিগ আঁ থেকে নিম্নতর লিগে অবনমিত হয়নি।[৫] তারা ১৯৭৪ সাল থেকে এ পর্যন্ত টানা ৪৫টি মৌসুম ধরে ফরাসি ক্লাব ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর লিগ আঁ-তে অংশ নিয়েছে।[৬] ইউরোপীয় পর্যায়ের প্রধানতম ক্লাব ফুটবল প্রতিযোগিতায় বিজয়ী দুইটি ফরাসি ক্লাবের একটি হল পারি সাঁ-জেরমাঁ।[৭] একইসাথে তারা ফ্রান্সের সবচেয়ে জনপ্রিয় ফুটবলা ক্লাব।[৮]

ঘরোয়া আসরে প্যারিসের এই ক্লাবটি ৭ বার লিগ আঁ শিরোপা জয় করেছে।[৪] এক্ষেত্রে তাদের সবচেয়ে শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বী হল বন্দর শহর মার্সেই-ভিত্তিক ওলাঁপিক দ্য মার্সেই। এই দুই দলের খেলাগুলি ফ্রান্সে "ল্য ক্লাসিক" নামে পরিচিত।[৯]

২০১১ সালে অরিক্স কাতার স্পোর্টস ইনভেস্টমেন্টস ক্লাবটির মালিকানা কিনে নেয়।[১০] এই মালিকানা বদলের কারণে পারি সাঁ-জেরমাঁ ফ্রান্সের সবচেয়ে ধনী ক্লাব এবং গোটা বিশ্বের সবচেয়ে ধনবান ক্লাবগুলির একটিতে পরিণত হয়।[১১] বর্তমানে ক্লাবটির বার্ষিক আয় প্রায় ৪৯ কোটি ইউরো, যা বিশ্বের ৭ম সর্বোচ্চ।[১২] ফোর্বস সাময়িকীর মতে এটি বিশ্বের ১১তম সর্বাধিক মূল্যবান ক্লাব, যার মূল্যমান প্রায় ৮৩ কোটি ইউরো।[১৩]

খেলোয়াড়[সম্পাদনা]

বর্তমান দল[সম্পাদনা]

নোট: পতাকা জাতীয় দল নির্দেশ করে যা ফিফা যোগ্যতার নিয়ম অধীন নির্ধারিত হয়েছে। খেলোয়াড়দের একাধিক জাতীয়তা থাকতে পারে যা ফিফা ভুক্ত নয়।

নং অবস্থান খেলোয়াড়
ইতালি গো জিয়ানলুইজি বুফন
ব্রাজিল থিয়াগো সিলভা (অধিনায়ক)
ফ্রান্স প্রেসনেল কিম্পেম্বে
জার্মানি থিলো কেরা
ব্রাজিল মারকিনয়োস (সহ-অধিনায়ক)
ইতালি মার্কো ভেররাত্তি
ফ্রান্স কিলিয়ান এমবাপে
উরুগুয়ে এদিনসন কাভানি
১০ ব্রাজিল নেইমার
১১ আর্জেন্টিনা আনহেল দি মারিয়া
১২ বেলজিয়াম তমা মোনিয়ে
১৩ ব্রাজিল দানি আলভেস
১৪ স্পেন হুয়ান বেরনাত
১৬ ফ্রান্স গো আলফঁস আরেওলা
নং অবস্থান খেলোয়াড়
১৭ ক্যামেরুন এরিক মাকসিম শুপো-মটিং
১৯ ফ্রান্স লাসানা দিয়ারা
২০ ফ্রান্স লেভিঁ কুরজাওয়া
২১ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র টিমোথি ওয়াহ
২৩ জার্মানি জুলিয়ান ড্রাক্সলার
২৪ ফ্রান্স ক্রিস্তোফার এনকুঙ্কু
২৫ ফ্রান্স আদ্রিয়েঁ রাবিয়ো
২৭ ফ্রান্স মুসা দিয়াবি
২৮ ফ্রান্স অঁতোয়ান বেরনেদে
২৯ ফ্রান্স ইয়াচিন আদলি
৩১ ফ্রান্স কলিন দাগবা
৩৪ ফ্রান্স স্তানলি এনসকি
৫০ ফ্রান্স গো সেবাস্তিয়েন চিবোইস
স্পেন হেসে

টীকা[সম্পাদনা]

  1. এই ফরাসি নামটির বাংলা প্রতিবর্ণীকরণে উইকিপিডিয়া:বাংলা ভাষায় ফরাসি শব্দের প্রতিবর্ণীকরণ-এ ব্যাখ্যাকৃত নীতিমালা অনুসরণ করা হয়েছে।
  2. প্রচলিত বিকল্প বানান "প্যারিস সেন্ট জার্মেই"।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Parc des Princes"PSG.fr। ১৯ আগস্ট ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জুলাই ২০১৭ 
  2. "Paris Saint-Germain FC"UEFA.com। ১৯ জুন ২০১৩। ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জুন ২০১৪ 
  3. "Histoire"PSG.fr। ১৯ আগস্ট ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জুলাই ২০১৭ 
  4. "PARIS SAINT-GERMAIN"LFP.fr। ২৬ জুন ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ আগস্ট ২০১৪ 
  5. "Which European football clubs have never been relegated?"The Guardian। ২ জুন ২০১৫। ২ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জানুয়ারি ২০১৭ 
  6. "45 ans consécutifs en Ligue 1, le PSG roi historique de la longévité !"Histoire du #PSG। ২১ মে ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২১ মে ২০১৮ 
  7. "Paris city guide"UEFA.com। ৯ জুলাই ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুলাই ২০১৬ 
  8. "France's passion play"FIFA.com। ২২ এপ্রিল ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ 
  9. "Le Qatar sans limite"Le Parisien। ৭ মার্চ ২০১২। ৬ ডিসেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ মার্চ ২০১২ 
  10. "Paris Saint-Germain, having conquered France, are still working on Qatar"The National। ৩০ ডিসেম্বর ২০১৫। ১৮ এপ্রিল ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ এপ্রিল ২০১৭ 
  11. "Deloitte Football Money League 2018"Deloitte। ২২ মে ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০১৮ 
  12. Ozanian, Mike। "The World's Most Valuable Soccer Teams 2018"Forbes। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৬-১২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]