অঙ্গ (জীববিজ্ঞান)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search

জীববিজ্ঞানে অঙ্গ (ইংরেজি: Organ, ল্যাটিন: organum, যন্ত্র) হলো একগুচ্ছ কলা যা নির্দিষ্ট একটি বা অনেকগুলি কাজ সম্পন্ন করে। সাধারণত কলা সমূহ প্রধানস্পোরাডিক কলায় বিভক্ত। প্রধান কলা হলো ওই সকল কলা যারা কোন অঙ্গের জন্য নির্দিষ্ট। যেমন, হৃৎপিন্ডের প্রধান কলা হলো হৃৎপেশী। অন্যদিকে স্পোরাডিক কলাসমূহ হলো স্নায়ু, রক্ত, যোজক কলা ইত্যাদি।

অঙ্গসংস্থান ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

উদ্ভিদ অঙ্গ[সম্পাদনা]

উদ্ভিদ অঙ্গ সমূহকে বর্ধমান (vegetative) ও পুনরুৎপাদনশীল (reproductive) এই দুই ভাগে ভাগ করা যায়। বর্ধমান উদ্ভিদ অঙ্গ সমূহ হলো মূল, কান্ড এবং পাতা। অপরদিকে পুনরুৎপাদনশীল অঙ্গ সমূহ হলো পুষ্প, বীজ এবং ফল

বর্ধমান অঙ্গ সমূহ উদ্ভিদের জীবন ধারণের জন্য আবশ্যকীয় (তারা জৈব অপরিহার্য কাজ যেমন সালোকসংশ্লেষণ করে), আর পুনরুৎপাদনশীল অঙ্গ সমূহ প্রজননের জন্য অত্যাবশ্যকীয়।

প্রাণী অঙ্গ[সম্পাদনা]

সাধারণ প্রাণী অঙ্গসমূহের হলো হৃৎপিন্ড, ফুসফুস, মস্তিষ্ক, চোখ, পাকস্থলী, প্লীহা, অস্থি, অগ্ন্যাশয়, বৃক্ক, যকৃৎ, অন্ত্র সমূহ, ত্বক (মানুষের সর্ববৃহৎ অঙ্গ), গর্ভাশয় এবং মূত্র থলি। শরীরের ভেতরের অঙ্গ গুলোকে প্রায়শ অভ্যন্তরীণ অঙ্গ নামে বর্ণনা করা হয়। অভ্যন্তরীণ অঙ্গগুলোকে যৌথভাবে বলা হয় ভিসেরা এবং এর সল্প ব্যবহৃত বহুবচন হলো ভিসকাস

স্তন্যপায়ী প্রাণীদের অঙ্গতন্ত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

স্তন্যপায়ী প্রাণীদের দেহে ১১টি প্রধান অঙ্গতন্ত্র দেখা যায়।

অঞ্চল অনুযায়ী মানবদেহের অঙ্গসমূহ[সম্পাদনা]

মাথা ও ঘাড়[সম্পাদনা]

পেছন[সম্পাদনা]

উদর[সম্পাদনা]

বস্তিদেশ এবং পেরিনিয়াম[সম্পাদনা]

উর্ধবাহু / নিম্নবাহু[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]