২০১৫-১৬ ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের শ্রীলঙ্কা সফর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
২০১৫-১৬ ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের শ্রীলঙ্কা সফর
Flag of Sri Lanka.svg
শ্রীলঙ্কা
WestIndiesCricketFlagPre1999.svg
ওয়েস্ট ইন্ডিজ
তারিখ ৪ অক্টোবর ২০১৫ – ১১ নভেম্বর ২০১৫
অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস (টেস্ট ও ওডিআই)
লাসিথ মালিঙ্গা (টি২০আই)
জেসন হোল্ডার (টেস্ট ও ওডিআই)
ড্যারেন স্যামি (টি২০আই)
টেস্ট সিরিজ
ফলাফল ২-ম্যাচের সিরিজ শ্রীলঙ্কা ২–০ তে জয়ী হয়
সর্বাধিক রান Dimuth Karunaratne (১৯৯) Darren Bravo (১৪৪)
সর্বাধিক উইকেট Rangana Herath (১৫) Kraigg Brathwaite (৬)
Jomel Warrican (৬)
Jerome Taylor (৬)
সিরিজ সেরা Rangana Herath (SL)
একদিনের আন্তর্জাতিক সিরিজ
ফলাফল ৩-ম্যাচের সিরিজ শ্রীলঙ্কা ৩–০ তে জয়ী হয়
সর্বাধিক রান Kusal Perera (163) Marlon Samuels (175)
সর্বাধিক উইকেট Suranga Lakmal (6) Sunil Narine (4)
সিরিজ সেরা Kusal Perera (SL)
টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক সিরিজ
ফলাফল ২-ম্যাচের সিরিজ ১–১ এ ড্র হয়
সর্বাধিক রান Tillakaratne Dilshan (১০৮) Andre Fletcher (80)
সর্বাধিক উইকেট Sachithra Senanayake (4)
Lasith Malinga (4)
Dwayne Bravo (4)
সিরিজ সেরা Tillakaratne Dilshan (SL)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল দুইটি টেস্ট ক্রিকেট, তিনটি একদিনের আন্তর্জাতিক এবং দুইটি টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক খেলার জন্য শ্রীলঙ্কা সফর করে, যা ফেব্রুয়ারি ২০২০-এ অনুষ্ঠিত হয়।

প্রস্তুতিমূলক খেলা[সম্পাদনা]

সফরকারী ম্যাচ: শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্টের একাদশ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান[সম্পাদনা]

৯–১১ অক্টোবর
২০৯ (৬৫.৩ ওভার)
কার্লোস ব্রাদওয়েট ৫৪ (৪৬)
সুরজ রণদিব ৫/৭৩ (২৩ ওভার)
৪৫৫/৬ (১০৭ ওভার)
উদারা জয়াসুন্দরা ১৪২ (২১৬)
জেসন হোল্ডার ২/৫৪ (১৬ ওভার)
  • ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • ভিজা আউটফিল্ডের কারণে প্রথম দিনের শুরুতে বিলম্ব হয়েছিল।
  • বৃষ্টির কারণে ম্যাচের শুরু একদিন পিছিয়ে দেওয়া হয়েছিল।
  • প্রতি পক্ষের ১৫ জন খেলোয়াড় (১১ ব্যাটিং, ১১ ফিল্ডিং)।

একদিনের ম্যাচ: শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্টের একাদশ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান[সম্পাদনা]

২৯ অক্টোবর
০৯.৩০
ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান 
৩১৮ (৪৮.৪ ওভার)
  • শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্টের একাদশ টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।

টেস্ট সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম টেস্ট[সম্পাদনা]

১৪–১৮ অক্টোবর ২০১৫
৪৮৪ (১৫২.৩ ওভার)
দিমুথ করুনারত্নে ১৮৬ (৩৫৪)
দেবেন্দ্র বিশু ৪/১৪৩ (৪০.৩ ওভার)
২৫১ (৮২ ওভার)
ড্যারেন ব্র্যাভো ৫০ (১০৭)
রঙ্গনা হেরাথ ৬/৬৮ (৩৩ ওভার)
২২৭(f/o) (৬৮.৩ ওভার)
জার্মেইন ব্ল্যাকউড ৯২ (১৩৫)
রঙ্গনা হেরাথ ৪/৭৯ (২২ ওভার)
শ্রীলঙ্কা একটি ইনিংস এবং ৬ রানে দ্বারা জয়ী
গালে আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম, গালে
ম্যাচসেরা: রঙ্গনা হেরাথ (শ্রীলঙ্কা)
  • শ্রীলঙ্কা টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • মিলিন্ডা শ্রীবর্ধনা (শ্রীলঙ্কা) তার টেস্ট অভিষেক হয়।
  • ২৩৮ রানের তৃতীয় উইকেটের পক্ষে দাঁড়িয়েছে দিমুথ করুনারত্নেদিনেশ চান্ডিমাল গালে টেস্টে শ্রীলঙ্কার হয়ে সর্বোচ্চ তৃতীয় উইকেট জুটি।
  • রঙ্গনা হেরাথ তার ২৩তম টেস্টটি পাঁচ উইকেট নিয়েছিলেন। এটি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে হেরথের প্রথম পাঁচ উইকেট শিকার।

২য় টেস্ট[সম্পাদনা]

২২–২৬ অক্টোবর ২০১৫
২০০ (৬৬ ওভার)
মিলিন্ডা শ্রীবর্ধনা ৬৮ (১১১)
জোমেল ওয়ারিকান ৪/৬৭ (২০ ওভার)
১৬৩ (৬৪.২ ওভার)
ক্রেগ ব্রেদওয়েট ৪৭ (১০১)
ধাম্মিকা প্রসাদ ৪/৩৪ (১২ ওভার)
২০৬ (৭৫.৩ ওভার)
অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস ৪৬ (১২০)
ক্রেগ ব্রেদওয়েট ৬/২৯ (১১.৩ ওভার)
১৭১ (৬৫.৫ ওভার)
ড্যারেন ব্র্যাভো ৬১ (১৩৪)
রঙ্গনা হেরাথ ৪/৫৬ (১৯.৫ ওভার)
শ্রীলঙ্কা ৭২ রানে জয়ী
পি. সারা ওভাল, কলম্বো
আম্পায়ার: সাইমন ফ্রাই (অস্ট্রেলিয়া) ও রড টাকার (অস্ট্রেলিয়া)
ম্যাচসেরা: মিলিন্ডা শ্রীবর্ধনা (শ্রীলঙ্কা)
  • শ্রীলঙ্কা টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • ম্যাচটি ভিজিয়ে আউটফিল্ডের কারণে দ্বিতীয় দিন সকালে ৩০ মিনিট দেরি করে।
  • তৃতীয় দিন চায়ের ঠিক আগে বৃষ্টি খেলা বন্ধ হয়ে যায়, দিনের সাথে খেলাটি পরিত্যক্ত ছিল।
  • বৃষ্টির কারণে চার দিন কোনও খেলা সম্ভব হয়নি।
  • কুশল মেন্ডিস (শ্রীলঙ্কা) ও জোমেল ওয়ারিকান (ওয়েস্ট ইন্ডিজ) তার টেস্ট অভিষেক হয়।
  • সাইমন ফ্রাই (অস্ট্রেলিয়া) তার প্রথমটিতে দাঁড়িয়েছিল টেস্ট আম্পায়ার হিসাবে ম্যাচ।

ওডিআই সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম ওডিআই[সম্পাদনা]

১ নভেম্বর ২০১৫
১৪:৩০ (দিন/রাত)

২য় ওডিআই[সম্পাদনা]

৪ নভেম্বর ২০১৫
১৪:৩০ (দিন/রাত)
শ্রীলঙ্কা 
২১৪ (৩৭.৪ overs)
 ওয়েস্ট ইন্ডিজ
২২৫/২ (৩৬.৩ overs)
Johnson Charles ৮৩ (৭০)
Milinda Siriwardana ২/২৭ (৭ ওভার)
Kusal Perera ৯৯ (৯২)
Sunil Narine ১/২৭ (৮ ওভার)
  • ওয়েস্ট ইন্ডিজ টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংসের ২৭ তম ওভারে বৃষ্টি খেলা বন্ধ করে দিয়েছে। খেলাটি তিন ঘন্টা বিলম্বের পরে পুনরায় শুরু হয়েছিল, খেলাটি প্রতি পাশের ৩৮ ওভারে নামিয়ে আনা হয়েছে।
  • জার্মেইন ব্ল্যাকউড (ওয়েস্ট ইন্ডিজ) তার ওডিআই অভিষেক হয়।
  • মারলন স্যামুয়েলস জেসন হোল্ডার এর জায়গায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের অধিনায়ক ছিলেন, কারণ ওভারের হার স্লো ওভারের জন্য এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞার কারণে।

৩য় ওডিআই[সম্পাদনা]

৭ নভেম্বর ২০১৫
১৪:৩০ (দিন/রাত)
 শ্রীলঙ্কা
180/5 (32.3 overs)
  • শ্রীলঙ্কা টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংসের চতুর্থ ওভারে বৃষ্টি খেলা থামল। এক ঘন্টা পরে খেলা আবার শুরু হয়েছিল, তবে ২৪ তম ওভারে বৃষ্টির কারণে আবার থামানো হয়েছিল। দুই ঘন্টা বিলম্বের পরে, ম্যাচটি প্রতি-পাশেই ৩৬ ওভারে কমে যাওয়ার সাথে সাথে আবার খেলা শুরু হয়েছিল। শ্রীলঙ্কার ইনিংসের ৩৩ তম ওভারে আম্পায়াররা ম্যাচটি ঘোষনা দিয়ে বৃষ্টি খেলা বন্ধ করে দেয়।

টি২০আই সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম টি২০আই[সম্পাদনা]

৪ মার্চ ২০১৭
১৯:০০ (দিন/রাত)
  • ওয়েস্ট ইন্ডিজ টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • ম্যাচের শুরুটা দেরিতে হয়েছিল বৃষ্টিতে।

২য় টি২০আই[সম্পাদনা]

৬ মার্চ ২০১৭
১৯:০০ (দিন/রাত)
ওয়েস্ট ইন্ডিজ 
১৬২/৬ (২০ ওভার)
 শ্রীলঙ্কা
১৩৯ (২০ ওভার)
  • ওয়েস্ট ইন্ডিজ টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • ম্যাচের শুরুটা দেরিতে হয়েছিল বৃষ্টিতে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]