হারবাং ইউনিয়ন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
হারবাং
ইউনিয়ন
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সীল.svg ১নং হারবাং ইউনিয়ন পরিষদ
হারবাং বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
হারবাং
হারবাং
বাংলাদেশে হারবাং ইউনিয়নের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২১°৫১′১৪″ উত্তর ৯২°৪′১৬″ পূর্ব / ২১.৮৫৩৮৯° উত্তর ৯২.০৭১১১° পূর্ব / 21.85389; 92.07111স্থানাঙ্ক: ২১°৫১′১৪″ উত্তর ৯২°৪′১৬″ পূর্ব / ২১.৮৫৩৮৯° উত্তর ৯২.০৭১১১° পূর্ব / 21.85389; 92.07111 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগচট্টগ্রাম বিভাগ
জেলাকক্সবাজার জেলা
উপজেলাচকরিয়া উপজেলা উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
সরকার
 • চেয়ারম্যানমিরানুল ইসলাম মিরান
আয়তন
 • মোট৬৯.১৭ কিমি (২৬.৭১ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা
 • মোট৩৯,৩৫১
 • জনঘনত্ব৫৭০/কিমি (১৫০০/বর্গমাইল)
সাক্ষরতার হার
 • মোট৩২.০৯%
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড৪৭৪০ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট Edit this at Wikidata
মানচিত্র

হারবাং বাংলাদেশের কক্সবাজার জেলার অন্তর্গত চকরিয়া উপজেলার একটি ইউনিয়ন

আয়তন[সম্পাদনা]

হারবাং ইউনিয়নের আয়তন ১৭,০৯২ একর (৬৯.১৭ বর্গ কিলোমিটার)।[১]

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

২০১১ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী হারবাং ইউনিয়নের লোকসংখ্যা ৩৯,৩৫১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১৯,৩২৬ জন এবং মহিলা ২০,০২৫ জন।[২]

অবস্থান ও সীমানা[সম্পাদনা]

চকরিয়া উপজেলার সর্ব-উত্তরে হারবাং ইউনিয়নের অবস্থান। চকরিয়া উপজেলা সদর থেকে এ ইউনিয়নের দূরত্ব প্রায় ১১ কিলোমিটার। এ ইউনিয়নের দক্ষিণে বড়ইতলী ইউনিয়ন, পশ্চিমে পেকুয়া উপজেলার শীলখালী ইউনিয়নটৈটং ইউনিয়ন, উত্তরে চট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী উপজেলার পুঁইছড়ি ইউনিয়নলোহাগাড়া উপজেলার চুনতি ইউনিয়ন এবং পূর্বে বান্দরবান জেলার লামা উপজেলার আজিজনগর ইউনিয়ন অবস্থিত।

ইতিহাস ও নামকরণ[সম্পাদনা]

জনশ্রুতি আছে, গৌতমবুদ্ধের নির্দেশে তাঁর অনুচর ভ্যেয়াইয়া নামক একজন বৌদ্ধ ধর্মানুসারী বর্তমান হারবাং অঞ্চলে অবস্থান করে এবং জঙ্গল কেটে পরিকল্পিত বসতি গড়ে তুলে। তাই বসতি স্থপনকারী নেতার নামানুসারে এলাকটির প্রাচীন নাম ছিল ভ্যেয়াইয়া কাটা। আবার অনেকের মতে, কুখ্যাত পতুর্গিজ জলদস্যুর সর্দার হার্মাদের প্রধান ঘাঁটি ছিল হারবাং এবং হার্মাদ এর নাম থেকে হারবাং নামের উৎপত্তি হয়েছে। কারো কারো মতে, হারবাং নাম ধারণের আগে এই এলাকাটিতে সমুদ্রে লোনা পানি ঢুকে এলাকার ছড়াগুলোকে নুনা করে দিতে বলে এটি নুনাছড়ি নামে পরিচিত ছিল। খ্রিস্টপূর্ব ৭ম-৮ম শতাব্দীর হারবাং এলাকায় প্রচুর রাখাইন জনগোষ্টির বসতি ছিল বলে এটি রাখাইন পাড়া নামেও পরিচিত ছিল। আবার উত্তর পূর্ব দিকে হারবাং এলাকার দিকে তাকালে চাঁদের মত পাহাড়ের কোল ঘেঁষে থাকায় এক সময় এটি পহরচাঁদা নামেও পরিচিত ছিল।[৩]

প্রশাসনিক কাঠামো[সম্পাদনা]

হারবাং ইউনিয়ন চকরিয়া উপজেলার আওতাধীন ১নং ইউনিয়ন পরিষদ। এ ইউনিয়নের প্রশাসনিক কার্যক্রম চকরিয়া থানার আওতাধীন। এ ইউনিয়ন জাতীয় সংসদের ২৯৪নং নির্বাচনী এলাকা কক্সবাজার-১ এর অংশ। এটি ২টি মৌজায় বিভক্ত।[২]

ওয়ার্ডভিত্তিক এ ইউনিয়নের গ্রামগুলো হল:

ওয়ার্ড নং গ্রামের নাম
১নং ওয়ার্ড রাখাইন পাড়া, পাহাড়তলী, শুধাংশু পাহাড়, কাটাখালী
২নং ওয়ার্ড গুচ্ছগ্রাম, উত্তর নুনাছড়ি, মধ্যম নুনাছড়ি, পূর্ব নুনাছড়ি, চরপাড়া
৩নং ওয়ার্ড কালা সিকদারপাড়া, মহাজন পাড়া, নয়াপাড়া, বাইঘ্যার পাড়া
৪নং ওয়ার্ড সিকদারপাড়া, বাজারপাড়া, কুলালপাড়া, মাস্টারপাড়া, জমিদারপাড়া, গোধারপাড়া
৫নং ওয়ার্ড দক্ষিণ পহরচাঁদা, মধ্যম পহরচাঁদা, উত্তর পহরচাঁদা, পশ্চিম বড়ুয়াপাড়া, কলইঘোনা, হাছিয়ার কাটা, ডেবলতলী, পাতাখোলা
৬নং ওয়ার্ড রোসাইঙ্গাপাড়া, পালপাড়া, ভাইয়া কাটা, মসজিদ মুড়া, মছন সিকদারপাড়া, ধরপাড়া
৭নং ওয়ার্ড নাথপাড়া, মুসলিমপাড়া, স্টেশনপাড়া, কিল্লার পূর্বপাড়া, আলীপুর, চরপাড়া, উত্তর বড়ুয়াপাড়া, আশ্রয়নকেন্দ্র
৮নং ওয়ার্ড সাবানঘাটা, বৃন্দাবনখীল, করমুহুরীপাড়া, কাট্টলীপাড়া, গয়ালমারা
৯নং ওয়ার্ড ভিলেজার পাড়া, চেয়ারম্যান পাড়া, কলাতলী, কোরবানিয়া ঘোনা, গাইনা কাটা, গোলাম ছোবাহান মিয়ার ঘোনা, ইছাছড়ি

[৪]

শিক্ষা ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

হারবাং ইউনিয়নের সাক্ষরতার হার ৩২.০৯%।[১] এ ইউনিয়নে ৩টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ২টি দাখিল মাদ্রাসা, ১টি নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ৬টি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে।[২]

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান[সম্পাদনা]

মাধ্যমিক বিদ্যালয়

[৫]

মাদ্রাসা
নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়
প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • উত্তর হারবাং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • পূর্ব হারবাং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • হারবাং নোয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • হারবাং পহরচাঁদা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • হারবাং বার্মিজ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • হারবাং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

[৬]

যোগাযোগ ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

হারবাং ইউনিয়নে যোগাযোগের প্রধান সড়ক হল চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক। সব ধরণের যানবাহনে যোগাযোগ করা যায়।

ধর্মীয় উপাসনালয়[সম্পাদনা]

হারবাং ইউনিয়নে ৩৮টি মসজিদ, ৭টি মন্দির, ১১টি বিহার ও ১টি গীর্জা রয়েছে।[২]

হাট-বাজার[সম্পাদনা]

হারবাং ইউনিয়নের প্রধান প্রধান হাট/বাজারগুলো হল হারবাং হাট, হারবাং বাস স্টেশন বাজার, হারবাং গয়ালমারা বাজার এবং উত্তর হারবাং বাজার।[৭]

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

  • হারবাং রাখাইন পাড়া[৮]

কৃতী ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

  • লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অবঃ) জিয়া উদ্দীন বীর উত্তম
  • ইশতিয়াক উদ্দীন
  • ইহতিশাম উদ্দীন আহমদ
  • খান বাহাদুর জালাল উদ্দিন আহমদ; প্রাক্তন সংসদ সদস্য ও মন্ত্রী
  • এডভোকেট রজনী পাল; চকরিয়া উপজেলার প্রথম এডভোকেট
  • হাছিনা বেগম; চকরিয়া উপজেলার প্রথম মহিলা গ্রাজুয়েট
  • ডাক্তার সুরাইয়া পারভীন; চকরিয়া উপজেলার প্রথম মহিলা এমবিবিএস
  • মোহাম্মদ ওয়ালিদ; চকরিয়া উপজেলার প্রথম পাইলট

[৯]

জনপ্রতিনিধি[সম্পাদনা]

  • বর্তমান চেয়ারম্যান: মিরানুল ইসলাম মিরান[১০]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "চকোরিয়া উপজেলা - বাংলাপিডিয়া"bn.banglapedia.org 
  2. "এক নজরে হারবাং ইউনিয়ন - হারবাঙ্গ ইউনিয়ন - হারবাঙ্গ ইউনিয়ন"harbangup.coxsbazar.gov.bd 
  3. "হারবাং ইউনিয়নের ইতিহাস - হারবাঙ্গ ইউনিয়ন - হারবাঙ্গ ইউনিয়ন"harbangup.coxsbazar.gov.bd 
  4. "গ্রামভিত্তিক লোকসংখ্যা - হারবাঙ্গ ইউনিয়ন - হারবাঙ্গ ইউনিয়ন"harbangup.coxsbazar.gov.bd 
  5. "মাধ্যমিকবিদ্যালয় - হারবাঙ্গ ইউনিয়ন - হারবাঙ্গ ইউনিয়ন"harbangup.coxsbazar.gov.bd 
  6. http://180.211.137.51:321/DashboardunionN.aspx?div=4&dis=412&thana=41205&union=01[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  7. "হাট বাজারের তালিকা - হারবাঙ্গ ইউনিয়ন - হারবাঙ্গ ইউনিয়ন"harbangup.coxsbazar.gov.bd 
  8. "দর্শনীয়স্থান - হারবাঙ্গ ইউনিয়ন - হারবাঙ্গ ইউনিয়ন"harbangup.coxsbazar.gov.bd 
  9. "প্রখ্যাত ব্যক্তিত্ব - হারবাঙ্গ ইউনিয়ন - হারবাঙ্গ ইউনিয়ন"harbangup.coxsbazar.gov.bd 
  10. "চকরিয়ায় ইউপি চেয়ারম্যান এসোসিয়েশন কমিটি গঠিত"। ১৪ অক্টোবর ২০১৭। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]