শেষ উত্তর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
শেষ উত্তর
পরিচালক আজিজুর রহমান বুলি
প্রযোজক অশোক ঘোষ
রচয়িতা আহমদ জামান চৌধুরী
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকার রবিন ঘোষ
চিত্রগ্রাহক রফিকুল বারী চৌধুরী
সম্পাদক মাহবুবুর রহমান
প্রযোজনা
কোম্পানি
রহমান ফিল্মস
পরিবেশক রহমান ফিল্মস
মুক্তি ১৯৮০ (১৯৮০Tবাংলাদেশ)
দেশ বাংলাদেশ
ভাষা বাংলা

শেষ উত্তর আজিজুর রহমান বুলি পরিচালিত ১৯৮০ সালের বাংলাদেশী রোমান্টিক-নাট্য চলচ্চিত্র। ছবিটির কাহিনী, চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন আহমদ জামান চৌধুরী[১] এতে অভিনয় করেছেন বুলবুল আহমেদ, শাবানা, ইলিয়াস কাঞ্চন,[২] আজমেরি জামান রেশমা, দিলারা, রওশন জামিল প্রমুখ।

বুলবুল আহমেদ এই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য ৬ষ্ঠ জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে শ্রেষ্ঠ অভিনেতা বিভাগে পুরস্কার লাভ করেন।[৩]

কাহিনী সংক্ষেপ[সম্পাদনা]

আমিনা একজন সুন্দরী যুবতী। কিন্তু তার মামীর কড়া শাসনে তাকে মুখে কালি মেখে বাইরে যেতে হয়। এমনি একদিন তার মামীর এক আত্মীয়ের বাড়ি থেকে ফিরার পথে সে আর তার মামী এক ট্রাক ড্রাইভারকে তাদের নিয়ে যেতে বলে। ট্রাক ড্রাইভার রহমান বিরক্ত হয়ে তাদের ট্রাকে তুলে নেয়। রহমানের মদ্যপানকে পানি পান মনে করে মামী তার কাছে পানি চাইলে রহমান জোর করে তাকে মদ খাইয়ে দেয় এবং তাদের বাড়ি পৌঁছে দেয়। পরের দিন রহমান আমিনাকে গ্রামে দুধ বিক্রিরত অবস্থায় পায়। সে আমিনাকে তার বাড়িতে প্রতিদিন দুধ দিয়ে যেতে বলে এবং তার সৌন্দর্য লুকানোর বিষয়টা আবিস্কার করে। বাড়ি ফিরার পথে ঘটক চুন্নু মিয়াও তাকে দেখে ফেলে।

ঘটক আমিনার বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে আসে তার মামী বাতাসী বিবির কাছে। বাতাসী বিবি আপদ বিদায় করতে বুড়ো হাফেজ ব্যাপারীর সাথে তার বিয়ে দিতে প্রস্তুত হয়। আমিনা রহমানের বাড়িতে গিয়ে তার বিয়ের কথা জানায় এবং তাকে বিয়ে করতে বলে। ব্যাপারীর সাথে বিয়ের দিন রহমান বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হয় এবং আমিনাকে বিয়ে করে তার বাড়িতে নিয়ে আসে। তারা নতুনভাবে জীবন শুরু করে। কিন্তু আমিনার গর্ভকালীন সময়ে রহমান চাকরী হারায় এবং সে আমিনার সাথে খারাপ ব্যবহার করে। আমিনা রহমানের সহকারী কেরামতের কাছে থেকে তার চাকরীচ্যুতির কথা জানতে পেরে রহমানের মালিকের কাছে চাকরী ফেরত দেওয়ার আবেদন জানায়। রহমান আবার চাকরী ফেরত পায় কিন্তু সালামের কূট চালে তারা আলাদা হয়ে যায়।

আমিনা তার সন্তানকে নিয়ে গ্রাম ছেড়ে চলে যায়। ট্রেনে তাদের ইমরানের সাথে দেখা হয়। সে আমিনার ট্রেনের ভাড়া দিয়ে দেয়। ইমরান আবার আমিনাকে তার সন্তান নিয়ে রাস্তায় দাড়িয়ে বৃষ্টিতে ভেজা অবস্থায় পায়। সে তাদের তার বাড়িতে নিয়ে যায়। ইমরান একজন স্কুল শিক্ষক। তার বাড়িতে আমিনার ছেলে রতন বড় হতে থাকে। একদিন রতন ও ইমরানের রহমানের সাথে দেখা হয়। তারা রহমানকে বাড়ি নিয়ে আসে। সেখানে এসে রহমান জানতে পারে রতনের পরিচয়। কিন্তু আমিনার অনুরধে সে চলে যায়। পরে ইমরান রতনের বাবার পরিচয় পেলে তাকে এবং আমিনাকে রহমানের কাছে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করে।

কুশীলব[সম্পাদনা]

সঙ্গীত[সম্পাদনা]

শেষ উত্তর চলচ্চিত্রের সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন রবিন ঘোষ। গীত রচনা করেছেন আহমদ জামান চৌধুরী। গানে কণ্ঠ দিয়েছেন সৈয়দ আব্দুল হাদী, খুরশিদ আলমরুনা লায়লা। সঙ্গীত গ্রহণ করা হয় শ্রুতি রেকর্ডিং স্টুডিও ও ইপ্‌সা রেকর্ডিং স্টুডিওতে।

গানের তালিকা[সম্পাদনা]

নং.শিরোনামলেখককণ্ঠশিল্পীদৈর্ঘ্য
১."আমার মামী"আহমদ জামান চৌধুরীরুনা লায়লা 
২."দোহাই লাগে পতি রাগ করো না"আহমদ জামান চৌধুরীরুনা লায়লা 

পুরস্কার[সম্পাদনা]

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "আহমদ জামান চৌধুরী"প্রিয়.কম। সংগ্রহের তারিখ ১১ জানুয়ারি ২০১৭ 
  2. "নতুন চলচ্চিত্র নিয়ে আসছেন"দৈনিক ইত্তেফাক। ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১১ জানুয়ারি ২০১৭ 
  3. "এক নজরে বুলবুল আহমেদ"যায়যায়দিন। জুলাই ২৫, ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১১ জানুয়ারি ২০১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]