শত্রুঘ্ন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
চিত্র: অস্ত্র সাজে সজ্জিত শত্রুঘ্ন

রাজা দশরথের তৃতীয় স্ত্রী সুমিত্রার গর্ভজাত যমজ পুত্রের মধ্যে লক্ষ্মণ জ্যেষ্ঠ ও শত্রুঘ্ন কনিষ্ঠ। ইনি ভরত ,লক্ষ্মণ ও রামের অনুজ ছিলেন। রামের বনগমনে পুত্রশোকে দশরথ দেহত্যাগ করেন। তখন শত্রুঘ্ন ভরতের সাথে ভরতের মাতুলালয়ে ছিলেন। শত্রুঘ্নের সাথে জনক রাজার কনিষ্ঠ ভ্রাতার অন্যতমা কন্যা শ্রুতকীর্তির বিবাহ হয়। রামের নির্বাসনে ইনি এতদূর বিরক্ত ও মর্মাহত হয়েছিলেন যে সকল অনর্থের মূল কৈকেয়ীর দাসী মন্থরাকে নিগৃহীত করেন এবং কৈকেয়ীকে কঠোর ভর্ৎসনা করেন। রাম বনবাসের পর ভরত রাজ্যভার গ্রহণ করলে শত্রুঘ্ন ভরতকে রাজকার্যে সাহায্য করেন। একসময় যমুনাতীরবাসী মহর্ষিরা মধুদৈত্যের পুত্র লবণাসুরের অত্যাচারে জর্জরিত হয়ে উঠলে শত্রুঘ্ন রামের আদেশে তার বিরুদ্ধে অভিযান করেন এবং তাকে শূলহীন দেখে আক্রমণ করে বিনষ্ট করেন। দেবতা প্রদত্ত শূলের জন্যই মধুদৈত্যের মত তার পুত্র অজেয় ছিল। লবণাসুর বধের পর শত্রুঘ্ন লবণাসুরের মথুরারাজ্য নিজের পুত্র সুবাহু ও শত্রুঘাতীকে অর্পণ করেন। এরপর শত্রুঘ্ন রামের সহিত সরযু নদীতে প্রবেশ করে যোগবলে দেহত্যাগ করেন।

উৎস[সম্পাদনা]

  • পৌরাণিক অভিধান - সুধীরচন্দ্র সরকার

কৃত্তিবাসী রামায়ণ - কৃত্তিবাস ওঝা