বিষয়বস্তুতে চলুন

ভট্টিকাব্য

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ভট্টিকাব্য
তথ্য
ধর্মহিন্দুধর্ম
রচয়িতাভট্টি বা ভর্তৃহরি
ভাষাসংস্কৃত
অধ্যায়২২ সৰ্গ
শ্লোক১৬৫০

ভট্টিকাব্য (সংস্কৃত: भट्टिकाव्यम्) বা ভট্টিকাব্যম্ হল সপ্তম শতকের ভারতবর্ষে কবি ভট্টি বা ভর্তৃহরি কর্তৃক সংস্কৃত ভাষায় বাইশটি সর্গে রচিত কাব্যগ্রন্থ। গ্রন্থটির কবিতা সমূহ ধ্রুপদী সংস্কৃতে মূলত ভারতীয় মহাকাব্য ধারারই অন্তর্ভুক্ত। [১] মহাকাব্যটির উৎস হল আদিকবি বাল্মীকি রচিত রামায়ণ মহাকাব্য। তাই এই কাব‍্যের অপর নাম 'রামকাব্য', 'রামচরিত' বা ‘রাবনবধম্’ ইত‍্যাদি।

বৈশিষ্ট্য

[সম্পাদনা]

এই ধ্রুপদী মহাকাব্যে বিভিন্ন সংখ্যার তুলনামূলকভাবে ছোট বাইশটি সর্গে মোট ১৬৫০ টি শ্লোকের সমন্বয়ে চারটি খণ্ড বা কাণ্ডে রচিত হয়েছে।[১] রাম ও সীতার জীবন কাহিনী একদিকে যেমন কাব্যরসে বিধৃত হয়েছে, তেমনি সংস্কৃত ব্যাকরণের মূল নিয়মাবলী যা পঞ্চম শতকে সংস্কৃত ভাষাবিদ ও পণ্ডিত পাণিনি তার অষ্টাধ্যায়ী কাব্যগ্রন্থে সংস্কৃত ভাষায় যে সর্বপ্রথম এবং সর্বোত্তম ব্যাকরণিক বিষয় অবতারণা করেছেন, তারই অনুসরণে পরিমার্জিত সংস্করণ এই মহাকাব্য। সেদিক থেকে 'কাব্যের মাধ্যমে ব্যাকরণ শিক্ষা দেওয়াই ছিল ভট্টিকাব্য রচনার উদ্দেশ্য'।

ব্যাকরণের মানদণ্ডে কাব্যটিকে চার ভাগে ভাগ করা যায়-

  • প্রকীর্ণকাণ্ড (প্রথম থেকে পঞ্চম সর্গ)
  • অধিকারকাণ্ড (ষষ্ঠ থেকে নবম সর্গ)
  • প্রসন্ন কাণ্ড (দশম থেকে ত্রয়োদশ সর্গ)
  • তিঙন্তকাণ্ড ( চতুর্দশ থেকে দ্বাবিংশতি সর্গ) [২]

রামায়ণের কাহিনী নির্ভর কাব্যটিতে রাবণবধে কাব্যটি শেষ হয়নি, রামচন্দ্রের রাজ্যাভিষেকও বর্ণিত হয়েছে। কাব্যটিতে কাব্যরসের পাশাপাশি ব্যাকরণ পরিবেশিত হয়েছে। তবে দীর্ঘ সমাসবদ্ধ পদের ব্যবহার নেই, বরং অলংকার মাধুর্যে অনুপম সৌন্দর্য প্রকাশ পেয়েছে।

কাব্যগ্রন্থটির রচয়িতা ভট্টি ষষ্ঠ শতকের শেষের দিকে ও সপ্তম শতকের প্রথম দিকে ভারতবর্ষের সৌরাষ্ট্র অঞ্চলের প্রাচীন শহর ভালভীতে (অধুনা গুজরাটের ভাবনগর জেলার ভল্লভীপুরের) শ্রীধরসেনের রাজদরবারের পণ্ডিত ছিলেন।কথিত আছে তিনি রাজকুমারদের সংস্কৃত শিক্ষা দিতেন। তাদের পৃষ্ঠপোষকতায় কবি ভট্টি কাব‍্যগ্রন্থটি রচনা করেন। ভট্টি ভগবান শিবের উপাসক তথা শৈব্য ছিলেন। [১] কাব্যগ্রন্থটির শেষে একটি পদে ভট্টি নিজের সম্পর্কে যা উল্লেখ করেন তা নিম্নরূপ-

(সংস্কৃত)

«यथा काव्यमिदं विहितं मया वलभ्यां श्रीधरसूनुनरेन्द्रपालितायाम्‌ । कीर्तिरतो भवतान्नृपस्य तस्य प्रेमकरः क्षितियो यतः प्रजानाम्‌ ।। (भट्टिकाव्यम् २२.३५)»

(বাংলা)

«আমি এই কাব্যটি ভালভীতে রচনা করেছি, যা শ্রীধরসেনের পুত্র নরেন্দ্র দ্বারা সুরক্ষিত। রাজার খ্যাতি বৃদ্ধি হোক, যেহেতু রাজা তার প্রজাদের মধ্যে আনন্দের পরিবেশ তৈরি করেন।" (ভট্টিকাব্য ২২.৩৫)»

তথ্যসূত্র

[সম্পাদনা]
  1. "Bhattikavya-poem epic by Bhatti"। সংগ্রহের তারিখ ২০২৪-০৩-১২ 
  2. "ভট্টি-কাব্য [সংস্করণ-৪] বাংলা বই পিডিএফ"। সংগ্রহের তারিখ ২০২৪-০৩-১৩