মার্ক রাফালো

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মার্ক রাফালো
Mark Ruffalo June 2014.jpg
২০১৪ সালে কান চলচ্চিত্র উৎসবে রাফালো
স্থানীয় নাম
Mark Ruffalo
জন্ম
মার্ক অ্যালান রাফালো

(1967-11-22) ২২ নভেম্বর ১৯৬৭ (বয়স ৫১)
বাসস্থাননিউ ইয়র্ক সিটি, নিউ ইয়র্ক, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
পেশাঅভিনেতা, চলচ্চিত্র নির্মাতা
কার্যকাল১৯৮৯-বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গীসানরাইজ কোইগনি (বি. ২০০০)
সন্তান

মার্ক রাফালো (ইংরেজি: Mark Alan Ruffalo; জন্ম: ২২ নভেম্বর ১৯৬৭)[১] হলেন একজন মার্কিন অভিনেতা, চলচ্চিত্র নির্মাতা ও সমাজকর্মী। তিনি সিবিএসের সামার প্লেহাউজ (১৯৮৯)-এর একটি পর্বে কাজের মধ্য দিয়ে তার অভিনয় জীবন শুরু করেন। এরপর তিনি কয়েকটি চলচ্চিত্রে ছোট ভূমিকায় এবং দিস ইজ আওয়ার ইয়থ (১৯৯৬)-এ অভিনয় করেন। পরবর্তীকালে তিনি থার্টিন গোয়িং অন থার্টি (২০০৪), ইটার্নাল সানশাইন অব দ্য স্পটলেস মাইন্ড (২০০৪), জোডিয়াক (২০০৭) এবং হোয়াট ডাজন্ট কিল ইউ (২০০৮) ছবিতে কাজ করেন। ২০১০ সালে তিনি মনস্তাত্ত্বিক থ্রিলার শাটার আইল্যান্ড ও হাস্যরসাত্মক নাট্যধর্মী দ্য কিডস আর অল রাইট ছবিতে অভিনয় করে প্রশংসিত হন। দ্বিতীয় কাজটির জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে একাডেমি পুরস্কার, বাফটা পুরস্কারস্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। রহস্যধর্মী নাউ ইউ সি মি ও এর অনুবর্তী পর্ব নাউ ইউ সি মি টু ছবিতে তিনি এফবিআই বিশেষ প্রতিনিধি ডিলান রোডস চরিত্রে অভিনয় করেন।[২]

রাফালো মার্ভেল কমিকসের চরিত্র হাল্ক চরিত্রে মার্ভেল সিনেম্যাটিক ইউনিভার্সের দি অ্যাভেঞ্জার্স (২০১২), আয়রন ম্যান ৩ (২০১৩), অ্যাভেঞ্জার্স: এজ অব আলট্রন (২০১৫), থর: র‍্যাগনারক (২০১৭) এবং অ্যাভেঞ্জার্স: ইনফিনিটি ওয়ার (২০১৮) ও এর অনুবর্তী পর্বে (২০১৯) অভিনয় করেন। এই সবকয়টি চলচ্চিত্র সর্বকালের সর্বোচ্চ আয়কারী চলচ্চিত্রের তালিকায় রয়েছে।

তিনি ২০১৪ সালের টেলিভিশন নাট্য চলচ্চিত্র দ্য নরমাল হার্ট-এ অভিনয় করেন এবং এর সহ-প্রযোজক হিসেবে লগ্নি করেন। এই চলচ্চিত্র প্রযোজনার জন্য তিনি সেরা টিভি চলচ্চিত্র বিভাগে প্রাইমটাইম এমি পুরস্কার অর্জন করেন এবং অভিনয়ের জন্য সেরা টিভি চলচ্চিত্র অভিনেতা বিভাগে স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড পুরস্কার অর্জন করেন। একই বছর তিনি ফক্সক্যাচার চলচ্চিত্রে ডেভ শুল্টজ চরিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে একাডেমি পুরস্কার ও গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারে মনোনীত হন। ২০১৫ সালে তিনি ইনফিনিটলি পোলার বিয়ার ছবিতে অভিনয়ের জন্য সঙ্গীতধর্মী বা হাস্যরসাত্মক চলচ্চিত্র অভিনেতা বিভাগে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারে মনোনীত হন এবং নাট্যধর্মী স্পটলাইট চলচ্চিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে বাফটা ও একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।[৩]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

রাফালো ১৯৬৭ সালের ২২শে নভেম্বর উইসকনসিন অঙ্গরাজ্যের কেনোশা শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তার মাতা মারি রোজ (জন্মনাম: হেবার) ছিলেন একজন চুল বিন্যাসকারী এবং পিতা ফ্রাঙ্ক লরেন্স রাফালো জুনিয়র রংমিস্ত্রী হিসেবে কাজ করতেন।[৪] তার দুই বোন ও এক ভাই রয়েছে। তারা হলেন তানিয়া, নিকোল ও স্কট (মৃ. ২০০৮)।[৪] তার পিতা ইতালীয় বংশোদ্ভূত এবং তিনি গিরিফালকো হতে যুক্তরাষ্ট্রে আসেন।[৫] তার মাতা অর্ধেক ফরাসি কানাডীয় ও অর্ধেক ইতালীয় বংশোদ্ভূত।[৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Mark Ruffalo birthday: These facts about Hulk actor will make you love him more than you love the character | Entertainment News"টাইমস নাউ নিউজ (ইংরেজি ভাষায়)। ২২ নভেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২২ নভেম্বর ২০১৮ 
  2. "নাও ইউ সি মি টু"দৈনিক ইনকিলাব (ইংরেজি ভাষায়)। ২০ জুন ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২২ নভেম্বর ২০১৮ 
  3. "অস্কারে সেরা পার্শ্ব অভিনেতা"দৈনিক ভোরের কাগজ। ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২২ নভেম্বর ২০১৮ 
  4. "মার্ক রাফালো"। ইনসাইড দি অ্যাক্টরস স্টুডিও। ১৩শ মৌসুম, পর্ব ৬। ১৯ মার্চ ২০০৭। ব্র্যাভো!
  5. "A tu per tu con Mark Ruffalo"এলি (ইতালীয় ভাষায়)। ১৮ জুন ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২২ নভেম্বর ২০১৮ 
  6. ভ্লোসজিনা, সুজান (১৫ সেপ্টেম্বর ২০০৫)। "Ruffalo ascends to the next level in 'Heaven'"ইউএসএ টুডে। সংগ্রহের তারিখ ২২ নভেম্বর ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]