ইসরায়েল–বাংলাদেশ সম্পর্ক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(বাংলাদেশ–ইসরায়েল সম্পর্ক থেকে পুনর্নির্দেশিত)
বাংলাদেশ-ইসরায়েল সম্পর্ক
মানচিত্র Israel এবং Bangladesh অবস্থান নির্দেশ করছে

ইসরায়েল

বাংলাদেশ

বাংলাদেশ এবং ইসরায়েলের মাঝে কোন ধরনের কূটনৈতিক এবং বাণিজ্যিক সম্পর্ক নেই। যদিও তৃতীয় পক্ষের মাধ্যমে সম্পর্ক রয়েছে।

কূটনীতি[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ পাসপোর্ট ইসরায়েল ব্যতীত বিশ্বের সকল দেশের জন্য প্রযোজ্য।

বাংলাদেশ ইসরায়েলকে নৈতিক রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকার করে না এবং বাংলাদেশী নাগরিকদের ইসরায়েলে ভ্রমণে সরকারি নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। বাংলাদেশের পাসপোর্ট ইসরায়েল ব্যতীত বিশ্বের সকল দেশ ভ্রমণের জন্য বৈধ।[১] ২০০৩ সালের নভেম্বরে বাংলাদেশী সাংবাদিক সালেহ চৌধুরীকে ইসরায়েলে প্রবেশের চেষ্টার দায়ে ৭ বছরের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।[২] বাংলাদেশ একটি সার্বভৌম ফিলিস্তিন রাষ্ট্র সমর্থন করে এবং ইসরায়েলের “অবৈধভাবে প্যালেস্টাইন দখলের” সমাপ্তি দাবি করে।[৩]

২০২১ এর মে মাসে “আন্তর্জাতিক মান রক্ষার্থে” বাংলাদেশের ই-পাসপোর্ট থেকে “ইসরায়েল ব্যতীত” শব্দগুচ্ছ অপসারণ করা হয়।[৪] যদিও এমআরপিতে (মেশিন পাঠযোগ্য পাসপোর্ট) পূর্বের মতোই শব্দবন্ধটি বহাল রাখা হয়। পাসপোর্ট থেকে এই শব্দগুচ্ছ অপসারণ করা হলেও বাংলাদেশি পাসপোর্ট নিয়ে ইসরায়েলে ভ্রমণের নিষেধাজ্ঞা সরিয়ে নেয়নি বাংলাদেশ।[৪]

বাণিজ্য[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ পৃথিবীর একমাত্র রাষ্ট্র যেটি ইসরায়েলের সাথে সকল প্রকার প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ বাণিজ্যের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে, যদিও উভয়ই বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার সদস্য রাষ্ট্র[৫][৬][৭][৮]

আল জাজিরার প্রতিবেদন[সম্পাদনা]

২০২১ সালের ফেব্রুয়ারিতে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম আল জাজিরা "ওরা প্রধানমন্ত্রীর লোক" শিরোনামে তাদের একটি তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এই প্রতিবেদনে অভিযোগ করা হয়েছে যে বাংলাদেশের সামরিক গোয়েন্দা বিভাগ গোপনে ইসরায়েলের তৈরি মোবাইল ফোন নজরদারি এবং ম্যানিপুলেশন সরঞ্জাম কিনেছিল যা ব্যবহার করে একই সাথে কয়েকশ লোকের উপর নজরদারি করা যেতে পারে। প্রতিবেদনে আরও দাবি করা হয়েছে যে হাঙ্গেরির একটি গুদামঘরে ইসরায়েলি প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা কিছু বাংলাদেশি সামরিক কর্মকর্তাকে প্রশিক্ষণ দিয়েছিল।[৯] বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এক বিবৃতিতে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছে।[১০]

বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ[সম্পাদনা]

বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের পরবর্তি সময়ে যেসব রাষ্ট্র বাংলাদেশকে সর্বপ্রথম স্বীকৃতি দেয়, ইসরায়েল তাদের মধ্যে অন্যতম।[১১] আরব দেশসমূহ স্বীকৃতি দেয়ার আগেই ইসরায়েল বাংলাদেশকে স্বীকৃতি প্রদান করে।[১২] ইসরায়েল সরকার এবং ইসরায়েলী নাগরিক সকলেই বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে বাংলাদেশকে সমর্থন করেছিলো। স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে নতুন স্বাধীনতা লাভকারী বাংলাদেশকে ইসরায়েল আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃতি প্রধান করে, যা বাংলাদেশ সরকার নিরপেক্ষভাবে প্রত্যাখ্যান করে।[১২][১৩] বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে তৎকালীন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী খন্দকার মোশতাক আহমেদ একটি চিঠিতে বলেছিলেন যে এই স্বীকৃতি গ্রহণযোগ্য নয়।

২০০৬-এর লেবানন যুদ্ধ[সম্পাদনা]

২০০৬ সালের লেবানন যুদ্ধের পরপরই জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী বাহিনীর সহায়তার জন্য বাংলাদেশ তার পদাতিক বাহিনীর ব্যাটালিয়ন প্রেরণের প্রস্তাব দিলে ইসরায়েল তা প্রত্যাখ্যান করেছিল কারন বাংলাদেশ ইসরায়েলকে স্বীকৃতি দেয়নি। যদিও ইসরায়েল বাংলাদেশের অংশগ্রহণ প্রত্যাখ্যান করেছিল, তবে বাংলাদেশ অন্যতম প্রথম দেশ ছিল যার সেনা দক্ষিণ লেবাননের তীরে পৌঁছেছিল। যেখানে পশ্চিমা দেশগুলি যেমন ফ্রান্স এবং অন্যান্য শীর্ষস্থানীয় অবদানকারীরা তাদের সেনা মোতায়েন বিলম্বিত করেছিল। ২০১৫ সালের মে অনুযায়ী, বাংলাদেশের ৩২৬জন শান্তিরক্ষী লেবাননে ইউএনআইএফআইএল-এ অংশগ্রহণ করছে।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Moving Israel from Europe to Asia"দ্য জেরুসালেম পোস্ট (ইংরেজি ভাষায়)। 
  2. "The unfathomable life of Salah Uddin Shoaib Choudhury"টাইমস অব ইসরায়েল (ইংরেজি ভাষায়)। 
  3. "Statement by Her Excellency Ms. Dipu Moni, Minister for Foreign Affairs of Bangladesh" (ইংরেজি ভাষায়)। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, ঢাকা। ২৪ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 
  4. "পাসপোর্ট থেকে ইসরায়েল প্রসঙ্গ বাদ: যা বলছে সরকার"। বিডিনিউজ২৪। ২৩ মে ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মে ২০২১ 
  5. "No diplomatic ties but B'desh earns from export in Israel"দ্য নিউ এজ (ইংরেজি ভাষায়)। ২০ মে ২০১৪। 
  6. Ohad Shpak। "Elections in Bangladesh – Why do we care?"টাইমস অব ইসরায়েল (ইংরেজি ভাষায়)। 
  7. "Bangladesh Trade Boycott On Israel Impacts U.S. Firm And Garment Sector" (ইংরেজি ভাষায়)। উইকিলিকস। ৭ জানুয়ারি ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 
  8. "Bangladesh exports unknown goods to Israel"প্রথম আলোর ইংরেজি সংস্করণ (ইংরেজি ভাষায়)। ১১ আগস্ট ২০১৪। [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  9. Unit, Al Jazeera Investigative। "Bangladesh bought spyware from Israeli surveillance company"www.aljazeera.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৬ 
  10. "বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে নিয়ে ষড়যন্ত্র চলছে : সেনাপ্রধান | কালের কণ্ঠ"Kalerkantho। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৭ 
  11. "Israel Recognizes Bangladesh"দ্য জেরুসালেম পোস্ট (ইংরেজি ভাষায়)। ৭ ফেব্রুয়ারি ১৯৭২। 
  12. Habib, Mohshin (৫ ডিসেম্বর ২০১১)। "A Story of Israel Hatred"Gatestone Institute (ইংরেজি ভাষায়)। 
  13. Verinder Grover (১ জানুয়ারি ২০০০)। Bangladesh: Government and Politics (ইংরেজি ভাষায়)। Deep & Deep Publications। পৃষ্ঠা 674। আইএসবিএন 978-81-7100-928-2