জাপান-বাংলাদেশ সম্পর্ক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বাংলাদেশ–জাপান সম্পর্ক
মানচিত্র Bangladesh এবং Japan অবস্থান নির্দেশ করছে

বাংলাদেশ

জাপান

বাংলাদেশ জাপান সম্পর্ক(জাপানি: 日本とバングラデシュの関係) হল বাংলাদেশ জাপান দ্বিপক্ষীয় কূটনৈতিক সম্পর্ক । ১৯৭২ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি[১] থেকে স্বাধীন বাংলাদেশের সাথে সাথে জাপানের কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপিত হলেও বাঙালিদের সাথে জাপানিজদের সম্পর্ক শতাব্দী প্রাচীন । জাপানকে ঐতিহাসিক ভাবে বাঙালীরা বন্ধু রাষ্ট্র মনে করে । বাংলাদেশ ও জাপানের পতাকার মধ্যেকার সামঞ্জস্যই বাঙালি জাপানিজ সম্পর্ক পরিস্কার ধারনা দেয় । দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় বাঙালি জাতীয়তাবাদী নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু ব্রিটিশদের কাছ থেকে বাংলা স্বাধীন করতে জাপানের রাজার সাহায্য কামনা করলে জাপানের রাজকীয় বাহিনী তার পদাতিক ও বিমান বাহিনী বাংলার অভিমুখে প্রেরন করে । বাঙালি জাপানিজ বন্ধুত্বের স্বারক হিসাবে রয়েছে এই দুই দেশের পতাকা । বর্তমানে জপান বাংলাদেশ অর্থনৈতিক ও বানিজ্যিক সম্পর্ক অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ ।

ঐতিহাসিক পটভূমি[সম্পাদনা]

ব্রিটিশ শাসিত বাংলা[সম্পাদনা]

অর্থনৈতিক সম্পর্ক[সম্পাদনা]

জাপান বাংলাদেশের ১১ তম বৃহত্তম রপ্তানি মার্কেট ২০০৫ সালের হিসাবে, বাংলাদেশ থেকে আমদানী কমপক্ষে উন্নত দেশগুলির ২৩% জাপানি আমদানির পরিমাণ কম্বোডিয়া থেকে দ্বিতীয়। বাংলাদেশ থেকে জাপান পর্যন্ত প্রচলিত আমদানিগুলি অন্তর্ভুক্ত রয়েছে চামড়াজাত সামগ্রী, তৈরি পোশাক এবং চিংড়ি। [২] ২০০১ সালে, জাপানে প্রায় ৯৫০০ বাংলাদেশি ছিল। ১৯৭২ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি স্বাধীনতার পরপরই জাপান গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয়। ২০০২ সালে উভয় পক্ষ ৩০ বছরের সম্পর্কের উদযাপন করে।.[৩] ২০১৬ সালের, ১ জুলাই ইসলামি জঙ্গিদের দ্বারা ঢাকা আক্রমনে সাতজন জাপানি নাগরিক মারা যান। জাপানের প্রধানমন্ত্রীর শিনজো আবে বলেন, "আমি গভীর রাগ অনুভব করছি যে, অনেক নির্দোষ মানুষ নিষ্ঠুর ও নৃশংস সন্ত্রাসে তাদের জীবন হারালো।[৪]

সামরিক সম্পর্ক[সম্পাদনা]

সাংস্কৃতিক সম্পর্ক[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Japan-Bangladesh Relations, Japan: Ministry of Foreign Affairs, মার্চ ২০০৮, সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০৪-০৯ 
  2. Abdul Matin, Muhammad (২০০৫), "East Asian Security: A Bangladesh Perspective", Sisodia, N. S.; Naidu, G. V. C., Changing Security Dynamic in Eastern Asia: Focus on Japan, Bibliophile South Asia, পৃষ্ঠা 504–528, আইএসবিএন 81-86019-52-9 
  3. Ashrafur Rahman, Syed (অক্টোবর–ডিসেম্বর ২০০৫), "Japan's Political and Economic Goals in Bangladesh" (PDF), Asian Affairs, 27 (4): 41–50, সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০৪-০৯ 
  4. hermesauto (২০১৬-০৭-০২)। "Seven Japanese involved in Bangladesh hostage attack confirmed dead"The Straits Times (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০১-২২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]