বাংলাদেশ–সেনেগাল সম্পর্ক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বাংলাদেশ–সেনেগাল সম্পর্ক
মানচিত্র Bangladesh এবং Senegal অবস্থান নির্দেশ করছে

বাংলাদেশ

সেনেগাল

বাংলাদেশ–সেনেগাল সম্পর্ক হল বাংলাদেশ এবং সেনেগাল রাষ্ট্রদ্বয়ের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের পর স্বাধীন বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেওয়া প্রথম আফ্রিকার রাষ্ট্র হল সেনেগাল। ডাকারে বাংলাদেশের দূতাবাস থাকলেও বাংলাদেশে সেনেগালের কোনো নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত নেই। দুই রাষ্ট্রের মধ্যকার সম্পর্ক উষ্ণ এবং উভয়েই এ সম্পর্ককে আরো সুদৃঢ় করে তুলবার ব্যাপারে একমত।[১]

আন্তর্জাতিক ফোরামে সহযোগিতা[সম্পাদনা]

২০০৩ সালে সেনেগাল অর্গানাইজেশন অব ইসলামি কোঅপারেশনে বাংলাদেশের সেক্রেটারি জেনারেলকে সমর্থন দেয়।[২]

অর্থনৈতিক সহযোগিতা[সম্পাদনা]

দ্বিপাক্ষিক অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড এগিয়ে নিতে বাংলাদেশ ও সেনেগাল দুই দেশই পারস্পরিক আগ্রহ প্রকাশ করেছে এবং এ জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণে উদ্যোগী হয়েছে। সেনেগাল বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ খাতে বিনিয়োগে আগ্রহী।[৩] সেনেগালের বাজারে বাংলাদেশে তৈরি সিরামিক, ওষুধ, তৈরি পোশাক, পাট ও চামড়াজাত দ্রব্য ভালো কদর পেয়েছে। অধিকন্তু বাংলাদেশ সেনেগালকে দক্ষ জনসম্পদ আহরণে আহ্বান করেছে যারা সেনেগালের সামাজিক-অর্থনৈতিক খাতের উন্নয়নে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখতে পারবে।[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Senegal urged to import Bangladeshi products"বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা। ১৫ মার্চ ২০১২। ২০১৫-০৭-১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ জানুয়ারি ২০১৪ 
  2. "OIC secretary general post Senegal to back Bangladesh"দ্য ডেইলি স্টার। সংগ্রহের তারিখ ৬ জানুয়ারি ২০১৪ 
  3. "Senegal keen to invest in Bangladesh: envoy"বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা। ১৮ মার্চ ২০১২। ২০১৪-০২-২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ জানুয়ারি ২০১৪ 
  4. "Azad urges Senegal to import Bangladeshi products"বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা। ১৫ মার্চ ২০১২। ২০১৪-০২-২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ জানুয়ারি ২০১৪