বাংলাদেশ–সুদান সম্পর্ক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বাংলাদেশ–সুদান সম্পর্ক
মানচিত্র Bangladesh এবং Sudan অবস্থান নির্দেশ করছে

বাংলাদেশ

সুদান

বাংলাদেশ–সুদান সম্পর্ক হল বাংলাদেশসুদান রাষ্ট্রদ্বয়ের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক

বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠালাভ[সম্পাদনা]

১৯৭২ সালে চীন জাতিসংঘে বাংলাদেশের সদস্যপদ লাভে ভেটো দিলে সুদান ও গিনিয়াই চীনকে সমর্থন দিয়েছিল।[১]

উচ্চ পর্যায়ের সফর[সম্পাদনা]

২০০৮ সালে জয়েন্ট চিফস অব স্টাফ অব সুদানিজ আর্মড ফোর্সেসের সাবেক সভাপতি জেনারেল মুহাম্মদ আবদুল কাদির নাসরুদ্দিন ঢাকায় আনুষ্ঠানিক সফরে আসেন।[২]

সামরিক সম্পর্ক[সম্পাদনা]

বাংলাদেশে বেশকিছু প্রশিক্ষণ কর্মসূচীতে সুদানিজ সৈনিকেরা অংশ নিয়েছে। তারা মূলত জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা কর্মসূচীতে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব পিস সাপোর্ট অপারেশন ট্রেইনিং থেকে প্রশিক্ষণ নেয়।[৩]

অর্থনৈতিক সম্পর্ক[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ ও সুদান দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বাড়াতে পারস্পরিক আগ্রহ প্রকাশ করেছে।[৪] বাংলাদেশি ওষুধ, তৈরি পোশাক এবং সিরামিক সুদানিজ বাজারে কদর পেয়েছে।[৫] ২০০৮ সালে, বাংলাদেশ ও সুদান জনসম্পদ রপ্তানিবিষয়ক একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে।[৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. এশিয়ান রেকর্ডার, ভলিউম ১৮। ১৯৭২। পৃষ্ঠা xlix। 
  2. "Gen Nasruddin leaves Dhaka"দ্য ডেইলি স্টার। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মে ২০১৪ 
  3. "Enhanced trade ties with Sudan stressed"দ্য ডেইলি স্টার। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মে ২০১৪ 
  4. "New Sudanese ambassador presents credentials to President"বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা। ২০১৪-০৫-১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মে ২০১৪ 
  5. "President for Sudan to recruit agri manpower, import medicines from BD"ইউনাইটেড নিউজ অব বাংলাদেশ। ১৭ মে ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মে ২০১৪ 
  6. "Sudan, Bangladesh to sign deal on manpower importation"সুদান ট্রিবিউন। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মে ২০১৪ 

টেমপ্লেট:সুদানের বৈদেশিক সম্পর্ক