২০১৭ দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলের ইংল্যান্ড সফর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
২০১৭ দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলের ইংল্যান্ড সফর
Flag of England.svg
ইংল্যান্ড
Flag of South Africa.svg
দক্ষিণ আফ্রিকা
তারিখ ১৯ মে – ৮ আগস্ট ২০১৭
অধিনায়ক জো রুট (টেস্ট)
ইয়ন মর্গ্যান (ওডিআই ও টি২০আই)
ফাফ দু প্লেসিস (টেস্ট)
এবি ডি ভিলিয়ার্স (ওডিআই ও টি২০আই)
টেস্ট সিরিজ
ফলাফল ৪-ম্যাচের সিরিজ ইংল্যান্ড ৩–১ এ জয়ী হয়
সর্বাধিক রান জো রুট (৪৬১) হাশিম আমলা (৩৩০)
সর্বাধিক উইকেট মঈন আলী (২৫) মরনে মরকেল (১৯)
সিরিজ সেরা মঈন আলী (ইংল্যান্ড) এবং মরনে মরকেল (দক্ষিণ আফ্রিকা)
একদিনের আন্তর্জাতিক সিরিজ
ফলাফল ৩-ম্যাচের সিরিজ ইংল্যান্ড ২–১ এ জয়ী হয়
সর্বাধিক রান ইয়ন মর্গ্যান (১৬০) হাশিম আমলা (১৫২)
সর্বাধিক উইকেট ক্রিস উকস (৪)
লিয়াম প্লাঙ্কেট (৪)
কাগিসো রাবাদা (৭)
সিরিজ সেরা ইয়ন মর্গ্যান (ইংল্যান্ড)
টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক সিরিজ
ফলাফল ৩-ম্যাচের সিরিজ ইংল্যান্ড ২–১ এ জয়ী হয়
সর্বাধিক রান জনি বেয়ারস্টো (১০৭) এবি ডি ভিলিয়ার্স (১৪৬)
সর্বাধিক উইকেট টম কারেন (৫) ডেইন পেটারসন (৫)

দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দল তিনটি একদিনের আন্তর্জাতিক, তিনটি টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক এবং চারটি টেস্ট ক্রিকেট খেলার জন্য ইংল্যান্ড সফর করে, যা মে থেকে আগস্ট ২০১৭-এ অনুষ্ঠিত হয়।[১][২] ইংল্যান্ডে জুনের দিকে অনুষ্ঠিত হওয়া একদিনের খেলা গুলো হবে ২০১৭ আইসিসি চ্যাম্পিয়ন ট্রফির প্রস্তুতিমূলক খেলা।[৩] ২০১৭ মানচেস্টার এলাকায় বোমা বিস্ফোরণের কারণে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলের জন্য অতিরিক্ত নিরাপত্তা জোরদার করা হয়।[৪] ইংল্যান্ড ওডিআই সিরিজটি ২–১[৫] এবং টি২০ সিরিজটি ২–১ এ জয় লাভ করে।[৬]

ওডিআই সিরিজটি শুরু হওয়ার পূর্বে দক্ষিণ আফ্রিকা দলনর্দাম্পটনশায়ার এবং সাসেক্স কাউন্টি ক্লাবের সাথে একটি করে ওয়ানডে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে। দক্ষিণ আফ্রিকা দলের লেইচেস্টারশায়ার এর সাথে একটি টি২০ প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার কথাও ছিল, কিন্তু এটি বাতিল করা হয় চ্যাম্পিয়ানস ট্রফি খেলার সূচীর কারণে।[৭] টেস্ট সিরিজের পূর্বে ওরচেস্টারে ইংল্যান্ড লায়ন্স এর বিপরীতে একটি তিনদিনের ম্যাচ খেলে।[৮]

টেস্ট সিরিজের জন্য জো রুট প্রথমবার ইংল্যান্ড দলের অধিনায়ক নিযুক্ত করা হয়।[৯] দক্ষিণ আফ্রিকা দলের টেস্ট অধিনায়ক ফাফ দু প্লেসিস তার প্রথম সন্তানের জন্ম উপলক্ষ প্রথম টেস্ট খেলায় অনুপস্থিত থাকে, ফলে ডিন এলগার কে প্রথমবারের মতো দক্ষিণ আফ্রিকা দলের নেতৃত্ব প্রদান করা হয়।[১০] ৩-১ ব্যবধানে ইংল্যান্ড টেস্ট সিরিজটি জিতে নেয়, এবং তাদের ঘরোয়া মাঠে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ১৯৯৮ সালের পর প্রথম সিরিজ জয়। [১১] মঈন আলী ২৫২ রান ও ২৫টি উইকেট নিয়ে প্রথম কোন ক্রিকেটার চার ম্যাচ সিরিজে ২৫২ রান ও ২৫টি উইকেট নেয়ার রেকর্ডের অধিকারী হয়ে যান।[১১]

দলীয় সদস্য[সম্পাদনা]

টেস্ট ওডিআই টি২০আই
 ইংল্যান্ড[১২]  দক্ষিণ আফ্রিকা[১৩]  ইংল্যান্ড[১৪]  দক্ষিণ আফ্রিকা[১৫]  ইংল্যান্ড[১৬]  দক্ষিণ আফ্রিকা[১৭]

স্টিভেন ফিন, টবি রোল্যান্ড-জোন্স এবং লিয়াম ডসন মুলত প্রাথমিক ঘোষিত দলের স্কোয়াডে ছিল না, পরবর্তীতে ৩য় ওডিআই-এর পূর্বে তাদেরকে দলে অন্তর্ভূক্ত করা হয়।[১৮] মার্ক উডকে ১ম টি২০আই-এর জন্য, জনি বিয়ারস্টোকে প্রথম দুটি টি২০আই এর জন্য এবং ক্রেক ওভারটনকে শেষ দুটি টি২০আইয়ের জন্য দলে নেয়া হয়।[১৬] ডাউয়েড মালান এবং টম ওয়েস্টলীকে তৃতীয় টেস্টের পূর্বে ইংল্যান্ড দলে ডাকা হয়।[১৯] জেপি ডুমিনিকে দক্ষিণ আফ্রিকার পরবর্তী ৩য় টেস্টের জন্য অবমুক্ত করে দেয়া হয়।[২০] শেষ টেস্টে ইংল্যান্ড দলে মার্ক উড এর পরিবর্তে স্টিভেন ফিনকে যুক্ত করা হয়।[২১]

প্রস্তুতিমূলক খেলা[সম্পাদনা]

ওডিআই: সাসেক্স বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা[সম্পাদনা]

১৯ মে ২০১৭ (দিন/রাত)
Scorecard
দক্ষিণ আফ্রিকা 
২৮৯/৪ (৩২ ওভার)
ইংল্যান্ড সাসেক্স
২২৩/৯ (৩২ ওভার)
হ্যারি ফিঞ্চ ৬২ (৫৯)
কাগিসো রাবাদা ২/২৬ (৩ ওভার)
দক্ষিণ আফ্রিকা ৬৬ রানে বিজয়ী
কাউন্টি ক্রিকেট গ্রাউন্ড, হোভ
আম্পায়ার: নেইল মালেন্দার (ইংল্যান্ড) এবং বিল্লী টেলর (ইংল্যান্ড)
  • সাকেক্স টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়.
  • বৃষ্টির কারণে খেলাটি উভয় দলের জন্য ৩২ ওভারে সীমিত করা হয়।
  • ডেলরয় রাউলিনস (সাকেক্স) লিস্ট এ ক্রিকেটে অভিষেক করে।

ওডিআই: নর্দাম্পটনশায়ার বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা[সম্পাদনা]

২১ মে ২০১৭
Scorecard
দক্ষিণ আফ্রিকা 
২৭৫/৭ (৫০ ওভার)
ইংল্যান্ড নর্দাম্পটনশায়ার
২৬২ (৪৭.১ ওভার)
হাশিম আমলা ৫৯ (৬৭)
সাঈফ যাইব ২/২২ (৩ ওভার)
ম্যাক্স হোল্ডেন ৫৫ (৫৫)
ক্রিস মরিস ৩/৩৬ (৮ ওভার)
দক্ষিণ আফ্রিকা ১৩ রানে বিজয়ী
কাউন্টি ক্রিকেট গ্রাউন্ড, নর্দাম্পটন
আম্পায়ার: নেইল বেইনটন (ইংল্যান্ড) এবং মার্টিন সাগজার্স (ইংল্যান্ড)
  • দক্ষিণ আফ্রিকা টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়.
  • টস সোলে (নর্দাম্পটনশায়ার) লিস্ট এ ক্রিকেটে অভিষেক করে।

লিস্ট এ: ইংল্যান্ড লায়ন্স বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা[সম্পাদনা]

২৯ জুন – ১ জুলাই ২০১৭
Scorecard
৩৮২/৪ ঘো (৯৭.৩ ওভার)

জর্জ গার্টন ২/৯০ (২১ ওভার)
২৬৬/৪ঘো (৮০.১ ওভার)

থেউনিস ডি ব্রুইয়ান ২/২৪ (৭ ওভার)
খেলা ড্র হয়
নিউ রোড, ওরচেস্টার
আম্পায়ার: জেফ ইভান্স (ইংল্যান্ড) এবং স্টিফেন গেইল (ইংল্যান্ড)
  • ইংল্যান্ড লায়ন্স টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়.
  • বৃষ্টি বিঘ্নিত হওয়ার ১ম দিনে কেবল ২০ ওভার খেলা সম্ভব হয়

ওডিআই সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম ওডিআই[সম্পাদনা]

২৪ মে ২০১৭ (দিন/রাত)
Scorecard
ইংল্যান্ড 
৩৩৯/৬ (৫০ ওভার)
 দক্ষিণ আফ্রিকা
২৬৭ (৪৫ ওভার)
হাশিম আমলা ৭৩ (৭৬)
ক্রিস উকস ৪/৩৮ (৮ ওভার)
ইংল্যান্ড ৭২ রানে বিজয়ী
Headingley, Leeds
আম্পায়ার: টিম রবিনসন (ইংল্যান্ড) এবং রড টাকার (অস্ট্রেলিয়া)
সেরা খেলোয়াড়: মঈন আলী (ইংল্যান্ড)
  • দক্ষিণ আফ্রিকা টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়.
  • এই মাঠে এটিই হচ্ছে ওডিআইয়ে যে কোন দলের বিপক্ষে ইংল্যান্ডের সর্বোচ্চ স্কোর। [২২]

২য় ওডিআই[সম্পাদনা]

২৭ মে ২০১৭
Scorecard
ইংল্যান্ড 
৩৩০/৬ (৫০ ওভার)
 দক্ষিণ আফ্রিকা
৩২৮/৫ (৫০ ওভার)
বেন স্টোকস ১০১ (৭৯)
কাগিসো রাবাদা ২/৫০ (১০ ওভার)
কুইন্টন ডি কক ৯৮ (১০৩)
লিয়াম প্লাঙ্কেট ৩/৬৪ (১০ ওভার)
ইংল্যান্ড ২ রানে বিজয়ী
রোজ বোল, সাউদাম্পটন
আম্পায়ার: রব বেইলি (ইংল্যান্ড) এবং ক্রিস গফানি (নিউজিল্যান্ড)
সেরা খেলোয়াড়: বেন স্টোকস (ইংল্যান্ড)
  • দক্ষিণ আফ্রিকা টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়.
  • কেশব মহারাজ (দক্ষিণ আফ্রিকা) ওডিআইয়ে অভিষেক করে।

৩য় ওডিআই[সম্পাদনা]

২৯ মে ২০১৭
Scorecard
ইংল্যান্ড 
১৫৩ (৩১.১ ওভার)
 দক্ষিণ আফ্রিকা
১৫৬/৩ (২৮.৫ ওভার)
হাশিম আমলা ৫৫ (৫৪)
জ্যাক বল ২/৪৩ (১০ ওভার)
দক্ষিণ আফ্রিকা 7 উইকেটে বিজয়ী
Lord's, London
আম্পায়ার: মাইকেল গফ (ইংল্যান্ড) এবং রড টাকার (অস্ট্রেলিয়া)
সেরা খেলোয়াড়: কাগিসো রাবাদা (দক্ষিণ আফ্রিকা)
  • দক্ষিণ আফ্রিকা টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়.
  • টবি রোল্যান্ড-জোন্স (ইংল্যান্ড) ওডিআই-এ অভিষেক করে।
  • হাশিম আমলা (দক্ষিণ আফ্রিকা) ইনিংসের বিচারে ওডিআই-এ সবচেয়ে দ্রুততম ব্যাটসম্যান যিনি ৭,০০০ রানের মাইলফলকে পৌছেছেন (১৫০ ইনিংস)[২৩]

টি২০আই সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম টি২০আই[সম্পাদনা]

২১ জুন ২০১৭
Scorecard
দক্ষিণ আফ্রিকা 
১৪২/৩ (২০ ওভার)
 ইংল্যান্ড
১৪৩/১ (১৪.৩ ওভার)
এবি ডি ভিলিয়ার্স ৬৫* (৫৮)
মার্ক উড ২/৩৬ (৪ ওভার)
ইংল্যান্ড 9 উইকেটে বিজয়ী
Rose Bowl, Southampton
আম্পায়ার: রব বেইলি (ইংল্যান্ড) এবং টিম রবিনসন (ইংল্যান্ড)
সেরা খেলোয়াড়: জনি বেয়ারস্টো (ইংল্যান্ড)

২য় টি২০আই[সম্পাদনা]

২৩ জুন ২০১৭
Scorecard
দক্ষিণ আফ্রিকা 
১৭৪/৮ (২০ ওভার)
 ইংল্যান্ড
১৭১/৬ (২০ ওভার)
এবি ডি ভিলিয়ার্স ৪৬ (২০)
টম কারেন ৩/৩৩ (৪ ওভার)
জেসন রয় ৬৭ (৪৫)
ক্রিস মরিস ২/১৮ (৪ ওভার)
দক্ষিণ আফ্রিকা 3 রানে বিজয়ী
কাউন্টি গ্রাউন্ড, টাউনটন
আম্পায়ার: রব বেইলি (ইংল্যান্ড) এবং মাইকেল গফ (ইংল্যান্ড)
সেরা খেলোয়াড়: ক্রিস মরিস (দক্ষিণ আফ্রিকা)
  • ইংল্যান্ড টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়.
  • টম কারেন এবং লিয়াম লিভিংস্টোন (ইংল্যান্ড) টি২০ আন্তর্জাতিকে অভিষেক করে।
  • জেসন রয় (ইংল্যান্ড) হলেন টি২০আই-এ প্রথম ব্যাটসম্যান যাকে ফিল্ডিংয়ে বাধাদানের দায়ে আউট দেয়া হয়।[২৫]

৩য় টি২০আই[সম্পাদনা]

২৫ জুন ২০১৭
Scorecard
ইংল্যান্ড 
১৮১/৮ (২০ ওভার)
 দক্ষিণ আফ্রিকা
১৬২/৭ (২০ ওভার)
ইংল্যান্ড 19 রানে বিজয়ী
সোফিয়া গার্ডেন, কার্ডিফ
আম্পায়ার: মাইকেল গফ (ইংল্যান্ড) এবং টিম রবিনসন (ইংল্যান্ড)
সেরা খেলোয়াড়: ডাউয়েড মালান (ইংল্যান্ড)
  • দক্ষিণ আফ্রিকা টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়.
  • ডাউয়েড মালান (ইংল্যান্ড) টি২০ আন্তর্জাতিকে অভিষেক করে।
  • ডাউয়েড মালান ইংল্যান্ডের হয়ে টি২০আই-এ অভিষেক ব্যাটসম্যান হিসাবে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড করেন।[৬]

টেস্ট সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম টেস্ট[সম্পাদনা]

৬–১০ জুলাই ২০১৭[n ১]
Scorecard
৪৫৮ (১০৫.৩ ওভার)
জো রুট ১৯০ (২৩৪)
মরনে মরকেল ৪/১১৫ (২৫.৩ ওভার)
৩৬১ (১০৫ ওভার)
টেম্বা বাভুমা ৫৯ (১৩০)
মঈন আলী ৪/৫৯ (২০ ওভার)
২৩৩ (৮৭.১ ওভার)
অ্যালাস্টেয়ার কুক ৬৯ (১৯২)
কেশব মহারাজ ৪/৮৫ (৩২.১ ওভার)
১১৯ (৩৬.৪ ওভার)
টেম্বা বাভুমা ২১ (৪১)
মঈন আলী ৬/৫৩ (১৫ ওভার)
ইংল্যান্ড ২১১ রানে বিজয়ী
লর্ডস, লন্ডন
আম্পায়ার: সুন্দারাম রবি (ভারত) and পল রেইফেল (অস্ট্রেলিয়া)
ম্যাচসেরা: মঈন আলী (ইংল্যান্ড)
  • ইংল্যান্ড টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়.
  • হেইনু কুহন (দক্ষিণ আফ্রিকা) টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক করে।
  • জো রুট ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের অধিনায়ক হিসাবে এবং ডিন এলগার দক্ষিণ আফ্রিকা জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক হিসাবে প্রথম টেস্ট ম্যাচ খেলে।[৯][১০]
  • জো রুট অধিনায়ক হিসাবে ইংল্যান্ডের পক্ষে ১ম অধিনায়ক যিনি সর্বাধিক ১৮৪ স্কোর করেন।[২৬]
  • মঈন আলী (ইংল্যান্ড) টেস্ট ক্রিকেটে ২,০০০ রান এবং ১০০ উইকেটের সংগ্রহ করে (৩৮ টেস্ট), যা ইংল্যান্ডের জন্য ৫ম দ্রুততম ক্রিকেটার।[২৭]
  • মঈন আলী টেস্ট ক্রিকেটে তার প্রথম ১০ উইকেট তুলে নেয়, এবং ইংল্যান্ডের জন্য প্রথম ব্যাটসম্যান যিনি ১০ উইকেট নেয়ার পাশাপাশি একটি অর্ধ-শতক রানের স্কোর করেছেন।[২৮][২৯]
  • এটা ছিল ইংল্যান্ডের সাথে দক্ষিণ আফ্রিকার সবচেয়ে বড় পরাজয়।[৩০]

২য় টেস্ট[সম্পাদনা]

১৪–১৮ জুলাই ২০১৭[n ১]
Scorecard
৩৩৫ (৯৬.২ ওভার)
হাশিম আমলা ৭৮ (১৪৯)
জেমস অ্যান্ডারসন ৫/৭২ (২৩.২ ওভার)
২০৫ (৫১.৫ ওভার)
জো রুট ৭৮ (৭৬)
কেশব মহারাজ ৩/২১ (১০ ওভার)
৩৪৩/৯ঘো (১০৪ ওভার)
হাশিম আমলা ৮৭ (১৮০)
মঈন আলী ৪/৭৮ (১৬ ওভার)
১৩৩ (৪৪.২ ওভার)
অ্যালাস্টেয়ার কুক ৪২ (৭৬)
ভার্নন ফিল্যান্ডার ৩/২৪ (১০ ওভার)
দক্ষিণ আফ্রিকা ৩৪০ রানে বিজয়ী
ট্রেন্ট ব্রিজ, নটিংহাম
আম্পায়ার: সাইমন ফ্রাই (অস্ট্রেলিয়া) and পল রেইফেল (অস্ট্রেলিয়া)
ম্যাচসেরা: ভার্নন ফিল্যান্ডার (SA)
  • দক্ষিণ আফ্রিকা টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়.
  • জেমস অ্যান্ডারসন (ইংল্যান্ড) স্বাগতিক হয়ে টেস্ট ক্রিকেটে সবচেয়ে দ্রুততম ফাস্ট বোলার, যিনি ৩০০ উইকেটের অধিকারী হন।[৩১]
  • হাশিম আমলা (দক্ষিণ আফ্রিকা) চতুর্থ টেস্ট ব্যাটসম্যান যিনি টেস্টে ৮,০০০ রান সংগ্রহ করেছেন।[৩১]

৩য় টেস্ট[সম্পাদনা]

২৭–৩১ জুলাই ২০১৭
Scorecard
৩৫৩ (১০৩.২ ওভার)
বেন স্টোকস ১১২ (১৫৩)
মরনে মরকেল ৩/৭০ (২৮.২ ওভার)
১৭৫ (৫৮.৪ ওভার)
টেম্বা বাভুমা ৫২ (১১০)
টবি রোল্যান্ড-জোন্স ৫/৫৭ (১৬.৪ ওভার)
৩১৩/৮ঘো (৭৯.৫ ওভার)
জনি বেয়ারস্টো ৬৩ (৫৮)
কেশব মহারাজ ৩/৫০ (১৩.৫ ওভার)
২৫২ (৭৭.১ ওভার)
ডিন এলগার ১৩৬ (২২৮)
মঈন আলী ৪/৪৫ (১৬.১ ওভার)
ইংল্যান্ড ২৩৯ রানে বিজয়ী
দি ওভাল, লন্ডন
আম্পায়ার: আলীম দার (পাক) এবং জোয়েল উইলসন (উই)
ম্যাচসেরা: বেন স্টোকস (ইংল্যান্ড)
  • ইংল্যান্ড টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়.
  • প্রথম দিনে বৃষ্টি বিঘ্নিত হওয়ায় কেবল ৫৯ ওভার খেলা সম্ভব হয়েছিল।
  • তৃতীয় দিনে বিরতির পূর্বে বৃষ্টি আরম্ভ হলে ওইদিনের খেলার আর এগোয়নি।
  • ডাউয়েড মালান, টবি রোল্যান্ড-জোন্স and টম ওয়েস্টলী (ইংল্যান্ড) সকলেই টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক করে।
  • এটি ছিল উক্ত মাঠের ১০০তম টেস্ট খেলা।[৩২]
  • টবি রোল্যান্ড-জোন্স (ইংল্যান্ড) টেস্ট অভিষেকে পাঁচ উইকেট তুলেন নেন।[৩৩]
  • চারজন দক্ষিণ আফ্রিকান ব্যাটসম্যান তাদের দ্বিতীয় ইনিংসে শূন্য রানে আউট হন। টেস্ট ক্রিকেটে এটিই প্রথম এ জাতীয় ঘটনা।[৩৪]
  • মঈন আলী (ইংল্যান্ড) দক্ষিণ আফ্রিকার ২য় ইনিংসে শেষ ৩টি উইকেট নিয়ে হ্যাট্রিক করে। এটিই হচ্ছে উক্ত মাঠের প্রথম হ্যাট্রিক[৩৫]

৪র্থ টেস্ট[সম্পাদনা]

৪–৮ আগস্ট ২০১৭?'"`UNIQ--ref-০০০০০০২B-QINU`"'?
Scorecard
৩৬২ (১০৮.৪ ওভার)
জনি বেয়ারস্টো ৯৯ (১৪৫)
কাগিসো রাবাদা ৪/৯১ (২৬ ওভার)
২২৬ (৭২.১ ওভার)
টেম্বা বাভুমা ৪৬ (৯৩)
জেমস অ্যান্ডারসন ৪/৩৮ (১৭ ওভার)
২৪৩ (৬৯.১ ওভার)
মঈন আলী ৭৫* (৬৬)
মরনে মরকেল ৪/৪১ (১৩.১ ওভার)
২০২ (৬২.৫ ওভার)
হাশিম আমলা ৮৩ (১৫৯)
মঈন আলী ৫/৬৮ (১৯.৫ ওভার)
ইংল্যান্ড ১১৭ রানে বিজয়ী
ওল্ড ট্রাফোর্ড, মানচেস্টার
আম্পায়ার: আলীম দার (পাক) এবং কুমার ধর্মসেনা (শ্রীল)
ম্যাচসেরা: মঈন আলী (ইংল্যান্ড)
  • ইংল্যান্ড টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়.
  • ৩য় দিনে শেষের দিকে বৃষ্টির কারণে ১ ঘন্টার খেলা অপচয় হয়।

টীকা[সম্পাদনা]

  1. যদিও টেস্ট খেলাগুলোর প্রতিটি ৫ দিনের খেলার জন্য নির্ধারিত ছিল, কিন্তু ১ম, ২য় এবং ৪র্থ টেস্টের ফলাফল ৪ দিনের মধ্যেই নিশ্চিত হয়ে যায়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "South Africa and West Indies confirmed for England's longest season"ESPN Cricinfo। ESPN Sports Media। সংগ্রহের তারিখ ১ জুলাই ২০১৬ 
  2. "England 2017 fixtures announced"ecb.co.uk। England and Wales Cricket Board। সংগ্রহের তারিখ ১ জুলাই ২০১৬ 
  3. "England in 2017: Champions Trophy, Ireland, South Africa & West Indies"। BBC Sport। ১ জুলাই ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১ জুলাই ২০১৬ 
  4. Moonda, Firdose (২৩ মে ২০১৭)। "South Africa reassured by increased security"ESPN Cricinfo। ESPN Sports Media। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মে ২০১৭ 
  5. Dobell, George। "Rabada and Parnell blow England away"ESPN Cricinfo। ESPN Sports Media। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০১৭ 
  6. Lofthouse, Amy (২৫ জুন ২০১৭)। "England v South Africa: Dawid Malan hits 78 as hosts win Twenty20 series"। BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুন ২০১৭ 
  7. "South Africa game cancelled"leicestershireccc.co.uk। Leicestershire County Cricket Club। ৩ মে ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জুন ২০১৭ 
  8. "Tour fixtures confirmed for 2017 season"ESPN Cricinfo। ESPN Sports Media। ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  9. Shemilt, Stephan। "জো রুট: Graeme Swann, James Anderson and ক্রিস উকস on new England skipper"। BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ৩ জুলাই ২০১৭ 
  10. "Du Plessis misses Lord's; Elgar captains"ESPN Cricinfo। ESPN Sports Media। সংগ্রহের তারিখ ৩ জুলাই ২০১৭ 
  11. "England v South Africa: জো রুট's side complete 3–1 series win"। BBC Sport। ৭ আগস্ট ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ৭ আগস্ট ২০১৭ 
  12. "England name squad for first Test against South Africa"ecb.co.uk। England and Wales Cricket Board। ১ জুলাই ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১ জুলাই ২০১৭ 
  13. Moonda, Firdose (২৬ জুন ২০১৭)। "Kuhn, Phehlukwayo in South Africa's Test squad"ESPN Cricinfo। ESPN Sports Media। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুন ২০১৭ 
  14. "England name squads for Ireland, South Africa and Champions Trophy"ecb.co.uk। England and Wales Cricket Board। ২৫ এপ্রিল ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  15. "South Africa picks Morkel for ICC Champions Trophy 2017"International Cricket Council। ১৯ এপ্রিল ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৯ এপ্রিল ২০১৭ 
  16. "Livingstone, Crane in England T20 squad"ESPN Cricinfo। ESPN Sports Media। ১২ জুন ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুন ২০১৭ 
  17. "AB to lead Proteas in T20 Series in England"cricket.co.za। Cricket South Africa। ১৩ জুন ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুন ২০১৭ 
  18. "Finn, Roland-Jones & Dawson called into squad for third ODI"। BBC Sport। ২৮ মে ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মে ২০১৭ 
  19. "England squad named for Third Investec Test against South Africa"ecb.co.uk। England and Wales Cricket Board। ২০ জুলাই ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২০ জুলাই ২০১৭ 
  20. "Duminy released from squad for rest of series"ESPN Cricinfo। ESPN Sports Media। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুলাই ২০১৭ 
  21. Dobell, George (৩০ জুলাই ২০১৭)। "Bayliss remains unconvinced of need for eight batsmen"ESPN Cricinfo। ESPN Sports Media। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জুলাই ২০১৭ 
  22. Shemilt, Stephan (২৪ মে ২০১৭)। "England v South Africa: ইয়ন মর্গ্যান hits century in Headingley win"। BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ২৫ মে ২০১৭ 
  23. Lofthouse, Amy (২৯ মে ২০১৭)। "England v South Africa: Batting collapse costs hosts in Lord's defeat"। BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০১৭ 
  24. Miller, Andrew (২০ জুন ২০১৭)। "New-look teams look to banish Champions Trophy blues"ESPN Cricinfo। ESPN Sports Media। সংগ্রহের তারিখ ২২ জুন ২০১৭ 
  25. Dobell, George (২৩ জুন ২০১৭)। "Morris the spark as SA steal three-run win"ESPN Cricinfo। ESPN Sports Media। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুন ২০১৭ 
  26. Gardner, Alan (৬ জুলাই ২০১৭)। "England seize day as Root launches captaincy with 184*"ESPN Cricinfo। ESPN Sports Media। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুলাই ২০১৭ 
  27. Seervi, Bharath (৭ জুলাই ২০১৭)। "Moeen faster than Botham, Sobers, Imran to 2000 runs and 100 wickets"ESPN Cricinfo। ESPN Sports Media। সংগ্রহের তারিখ ৭ জুলাই ২০১৭ 
  28. "Moeen's ten-for leads England rout of South Africa"ESPN Cricinfo। ESPN Sports Media। ৯ জুলাই ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৭ 
  29. "Records / Test matches / All-round records / 100 runs and 10 wickets in a match"ESPN Cricinfo। ESPN Sports Media। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুলাই ২০১৭ 
  30. "Moeen's match figures are England's best since Botham"ESPN Cricinfo। ESPN Sports Media। ৯ জুলাই ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৭ 
  31. Seervi, Bharath (১৪ জুলাই ২০১৭)। "Amla's latest landmark, and Anderson's home comforts"ESPN Cricinfo। ESPN Sports Media। 
  32. "The Oval's 100th Test: How well do you know one of cricket's iconic grounds"। BBC Sport। ২৬ জুলাই ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জুলাই ২০১৭ 
  33. Hopps, David (২৯ জুলাই ২০১৭)। "Roland-Jones five wraps up দক্ষিণ আফ্রিকা after Bavuma fight"ESPN Cricinfo। ESPN Sports Media। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৭ 
  34. "Proteas make Test golden duck history"। sport24.co.za। সংগ্রহের তারিখ ১ আগস্ট ২০১৭ 
  35. Shemilt, Stephan (৩১ জুলাই ২০১৭)। "England v South Africa: মঈন আলী hat-trick wraps up hosts' victory"। BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জুলাই ২০১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]