ইংল্যান্ড লায়ন্স (ক্রিকেট দল)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ইংল্যান্ড লায়ন্স
150px
কর্মীবৃন্দ
অধিনায়ককিটন জেনিংস
মালিকইংল্যান্ড এবং ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)
দলীয় তথ্য
প্রতিষ্ঠাকাল১৯৮২
অফিসিয়াল ওয়েবসাইটঅফিসিয়াল ওয়েবসাইট

ইংল্যান্ড লায়ন্স ক্রিকেট দল (ইংরেজি: England Lions) আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গনে ইংল্যান্ডওয়েলসের প্রতিনিধিত্বকারী দ্বিতীয় সারির ক্রিকেট দল। এর অবস্থান পূর্ণাঙ্গ শক্তিধর ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের পরের স্তরে। পূর্বে দলটি ইংল্যান্ড এ দল নামে পরিচিত ছিল। প্রতিশ্রুতিশীল তরুণ ক্রিকেটারদেরকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণের লক্ষ্যে অভিজ্ঞতা অর্জনই এই দলটির মূখ্য উদ্দেশ্য। ইংল্যান্ড এবং ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি) কর্তৃক দলটি পরিচালিত হচ্ছে।

ইংল্যান্ড বি ও এ দল[সম্পাদনা]

যদিও মূলতঃ বিদেশ সফরের উদ্দেশ্য নিয়ে দলটি গঠিত হয়েছে; তবুও ১৯৯০-এর দশকে ইংল্যান্ডে প্রত্যেক মৌসুম শুরুর পূর্বে একটি খেলায় অংশ নিতো। ১৯৯২ থেকে ১৯৯৫ সালের মধ্যে পূর্ববর্তী মৌসুমের কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপের শিরোপাধারী দলের বিপক্ষে খেলে। ১৯৯৬ ও ১৯৯৭ সালে ইংল্যান্ডের বহিঃএকাদশ দলের বিপক্ষে অংশগ্রহণ করে। এছাড়াও, ১৯৯১ সালে পূর্ণাঙ্গ শক্তিধর সফরকারী শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুইটি লিস্ট এ খেলায় অংশ নেয়।

পূর্বে দ্বিতীয় সারির দলরূপে ইংল্যান্ড বি দল নামে পরিচিত ছিল। ১৯৮২ সালে পাকিস্তান একাদশের বিপক্ষে একটি খেলায় অংশ নেয়ার পর ১৯৮৫-৮৬ মৌসুমে পূর্ণাঙ্গ শক্তিধর সফরকারী শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলে। ১৯৮৯-৯০ মৌসুমে ইংল্যান্ড এ দল নামে প্রথমবারের মতো জিম্বাবুয়ে সফরে যায়। সেখানে তারা তিনটি প্রথম-শ্রেণীর খেলায় অংশগ্রহণসহ তিনটি ৫০-ওভারের সীমিত ওভারের খেলায়ও অংশ নেয়। এবার তারা পূর্ণাঙ্গ শক্তিধর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলে। কিন্তু পরবর্তীকালের সফরগুলোয় গুরুত্বপূর্ণ প্রতিপক্ষগুলোর সমমানের এ দলগুলোর মুখোমুখি হয়। ইংল্যান্ড এ দল অস্ট্রেলিয়া সফরেও যায়। তবে, তারা কখনো প্রতিপক্ষীয় অস্ট্রেলিয়া এ দলের মুখোমুখি হয়নি।

এছাড়াও দলটি প্রায়শঃই রাজ্য কিংবা প্রাদেশিক দলগুলোর বিপক্ষে খেলেছে। ২০০০-০১ মৌসুমে ইংল্যান্ড এ দল ওয়েস্ট ইন্ডিজের ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর প্রতিযোগিতা হিসেবে বুস্তা কাপে অংশ নেয়। আট দলের অংশগ্রহণে দলটি তৃতীয় স্থান দখল করেছিল। ২০০৩-০৪ মৌসুমে দলটি ভারতের দিলীপ ট্রফি প্রতিযোগিতায়ও অংশ নিয়েছিল। তবে, গ্রুপ পর্বের উভয় খেলায় পরাজিত হলে তারা এগুতে পারেনি। এ দুটি সফরের মাঝখানে আর কোন খেলায় অংশ নেয়নি দলটি।

ইংল্যান্ড লায়ন্স[সম্পাদনা]

নতুন আঙ্গিকে সাজানো ইংল্যান্ড লায়ন্স তৎকালীন ইসিবি ন্যাশনাল একাডেমির অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ হয়ে উঠে। সফরকারী দলগুলোয় একাডেমির দল থেকে সদস্য নেয়া হতে থাকে। ১৫ জুন, ২০০৭ তারিখে ইসিবি ঘোষণা করে যে, নব প্রতিষ্ঠিত লায়ন্স দল ওরচেস্টারে সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে একদিনের প্রস্তুতিমূলক খেলায় অংশ নিবে।[১] ঐ বছরের গ্রীষ্মকালের শেষদিকে সফরকারী ভারতীয় একাদশের বিপক্ষে চেমসফোর্ডে অনুষ্ঠিত তিনদিনের খেলায় ড্র করে।[২] নর্দাম্পটনে অন্য আরেকটি সীমিত ওভারের খেলাটি বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত ঘোষিত হয়।[৩]

৪ জানুয়ারি, ২০০৮ তারিখে ভারত সফরের জন্য ইংল্যান্ড দলের সদস্যদের তালিকা প্রকাশ করা হয়। সাসেক্সের ব্যাটসম্যান মাইকেল ইয়ার্ডিকে অধিনায়ক মনোনীত করা হয়েছিল। দলটি ২০০৮ সালের প্রথম-শ্রেণীর প্রতিযোগিতা হিসেবে দিলীপ ট্রফিতে অংশ নেয়ার পাশাপাশি প্রীতিখেলায়ও অংশ নিয়েছিল।[৪]

বর্তমান দলীয় সদস্য[সম্পাদনা]

পূর্ববর্তী বারো মাসে অংশগ্রহণকারী সকল খেলোয়াড়ের তালিকা দেয়া হয়েছে। দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পালনের বিষয়টি সচরাচর সিরিজ অনুসারে ভিন্নতর হয়। জুন, ২০১৭ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে এ দলের বিপক্ষে কিটন জেনিংস প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অধিনায়কত্ব করেছেন।[৫]

যে-সকল খেলোয়াড় ইংল্যান্ডের মূল দলে খেলেছেন, তাদেরকে সুপারস্ক্রিপ্টের সাহায্যে দেখানো হয়েছে।

নাম বয়স ব্যাটিংয়ের ধরন বোলিংয়ের ধরন কাউন্টি সর্বশেষ অংশগ্রহণ শার্ট নং
ব্যাটসম্যান
টম আলসপ ২৩ বামহাতি স্লো লেফট-আর্ম অর্থোডক্স হ্যাম্পশায়ার ২০১৬-১৭ শ্রীলঙ্কা সফর ৪০
গ্যারি ব্যালেন্সটেস্ট, ওডিআই ২৯ বামহাতি ডানহাতি লেগ ব্রেক ইয়র্কশায়ার ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা ৪৮
ড্যানিয়েল বেল-ড্রুমন্ড ২৫ ডানহাতি ডানহাতি মিডিয়াম-ফাস্ট কেন্ট ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা এ[৬] ৪২
বেন ডাকেটটেস্ট, ওডিআই ২৪ বামহাতি নর্দাম্পটনশায়ার ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা এ[৬] ৫৯
নিক গাবিন্স ২৫ বামহাতি ডানহাতি লেগ ব্রেক মিডলসেক্স ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা এ[৫] ৬২
হাসিব হামিদটেস্ট ২২ ডানহাতি ডানহাতি লেগ ব্রেক ল্যাঙ্কাশায়ার ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা এ[৫]
কিটন জেনিংসটেস্ট ২৬ বামহাতি ডানহাতি মিডিয়াম-ফাস্ট ডারহাম ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা ৬৫
ড্যান লরেন্স ২১ ডানহাতি ডানহাতি অফ ব্রেক এসেক্স ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা এ[৫]
লিয়াম লিভিংস্টোনটি২০আই ২৫ ডানহাতি ডানহাতি লেগ ব্রেক ল্যাঙ্কাশায়ার ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা ৮৭
দাউদ মালানটি২০আই ৩১ বামহাতি ডানহাতি লেগ ব্রেক মিডলসেক্স ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা এ[৬] ২৯
স্যাম রবসনটেস্ট ২৯ ডানহাতি ডানহাতি লেগ ব্রেক মিডলসেক্স ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা
মার্ক স্টোনম্যান ৩১ বামহাতি ডানহাতি অফ ব্রেক সারে ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা এ[৫]
জেমস ভিন্সটেস্ট, ওডিআই, টি২০আই ২৮ ডানহাতি ডানহাতি মিডিয়াম হ্যাম্পশায়ার ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা এ[৬] ১৪
টম ওয়েস্টলি ৩০ ডানহাতি ডানহাতি অফ ব্রেক এসেক্স ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা ৫৬
উইকেট-রক্ষক
স্যাম বিলিংসওডিআই, টি২০আই ২৮ ডানহাতি কেন্ট ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা
জো ক্লার্ক ২৩ ডানহাতি ওরচেস্টারশায়ার ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা ৮০
বেন ফোকস ২৬ ডানহাতি সারে ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা এ[৫] ৫০
অল-রাউন্ডার
লিয়াম ডসনটেস্ট, ওডিআই, টি২০আই ২৯ ডানহাতি স্লো লেফট-আর্ম অর্থোডক্স হ্যাম্পশায়ার ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা এ[৬] ৮৩
ব্রেট ডি’অলিভেইরা ২৭ ডানহাতি ডানহাতি লেগ ব্রেক ওরচেস্টারশায়ার ২০১৬ ত্রি-দেশীয় সিরিজ ৫৭
ক্রেগ ওভারটন ২৫ ডানহাতি ডানহাতি মিডিয়াম-ফাস্ট সমারসেট ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা এ[৬] ৭৪
পেস বোলার
স্যাম কারেন ২১ বামহাতি বামহাতি মিডিয়াম-ফাস্ট সারে ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা এ[৫] ৮২
টম কারেনটি২০আই ২৪ ডানহাতি ডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম সারে ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা এ[৬] ৩৫
স্টিভেন ফিনটেস্ট, ওডিআই, টি২০আই ৩০ ডানহাতি ডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম মিডলসেক্স ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা এ[৬] ২৫
জেমস ফুলার ২৯ ডানহাতি ডানহাতি ফাস্ট মিডলসেক্স ২০১৬-১৭ শ্রীলঙ্কা সফর ৩৮
জর্জ গার্টন ২২ বামহাতি বামহাতি মিডিয়াম-ফাস্ট সাসেক্স ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা ৮৬
টম হেম ২৫ ডানহাতি ডানহাতি মিডিয়াম-ফাস্ট মিডলসেক্স ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা ৮৫
সাকিব মাহমুদ ২২ ডানহাতি ডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম ল্যাঙ্কাশায়ার ২০১৬ ত্রি-দেশীয় সিরিজ ৬১
স্টুয়ার্ট মিকারওডিআই, টি২০আই ৩০ ডানহাতি ডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম সারে ২০১৬-১৭ সংযুক্ত আরব আমিরাত সফর ৬০
জেমি ওভারটন ২৫ ডানহাতি ডানহাতি ফাস্ট সমারসেট ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা এ[৫] ৭৫
লিয়াম প্লাঙ্কেটটেস্ট, ওডিআই, টি২০আই ৩৪ ডানহাতি ডানহাতি ফাস্ট ইয়র্কশায়ার ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা ১৭
জেমি পোর্টার ২৬ ডানহাতি ডানহাতি মিডিয়াম-ফাস্ট এসেক্স ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা এ[৫]
টবি রোল্যান্ড-জোন্সওডিআই ৩১ ডানহাতি ডানহাতি ফাস্ট মিডলসেক্স ২০১৬-১৭ সংযুক্ত আরব আমিরাত সফর ২২
মার্ক উড টেস্ট, ওডিআই, টি২০আই ২৯ ডানহাতি ডানহাতি ফাস্ট ডারহাম ২০১৬ ত্রি-দেশীয় সিরিজ ৩৩
স্পিন বোলার
ডমিনিক বেস ২১ ডানহাতি ডানহাতি অফ ব্রেক সমারসেট ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা এ[৫]
ম্যাসন ক্রেন টি২০আই ২২ ডানহাতি ডানহাতি লেগ ব্রেক হ্যাম্পশায়ার ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা ৪৪
জ্যাক লিচ ২৭ বামহাতি স্লো লেফট-আর্ম অর্থোডক্স সমারসেট ২০১৭ ব দক্ষিণ আফ্রিকা এ[৫]
জোশ পয়েসডেন ২৭ বামহাতি ডানহাতি লেগ ব্রেক ওয়ারউইকশায়ার ২০১৬-১৭ শ্রীলঙ্কা সফর
অলি রেনার ৩৩ ডানহাতি ডানহাতি অফ ব্রেক মিডলসেক্স ২০১৬-১৭ শ্রীলঙ্কা সফর ৪৩

সংক্ষিপ্ত ফলাফল[সম্পাদনা]

মৌসুম অনুযায়ী[সম্পাদনা]

মৌসুম দেশ প্রথম-শ্রেণী ব এ দল অন্যান্য প্রথম-শ্রেণী লস্ট এ ব এ দল অন্যান্য লিস্ট এ টুয়েন্টি২০ ব এ দল অন্যান্য টুয়েন্টি২০
ড্র ড্র /এনআর /এনআর /এনআর /এনআর
ইংল্যান্ড বি (১৯৮২-১৯৮৫/৮৬)
১৯৮২ পাকিস্তান
১৯৮৫-৮৬ শ্রীলঙ্কা
ইংল্যান্ড এ (১৯৮৯/৯০-২০০৬/০৭)
১৯৮৯-৯০ জিম্বাবুয়ে[৭]
১৯৯০-৯১ পাকিস্তান[৮]
শ্রীলঙ্কা
১৯৯১ ইংল্যান্ড
১৯৯১-৯২ ওয়েস্ট ইন্ডিজ
১৯৯২ ইংল্যান্ড
১৯৯২-৯৩ অস্ট্রেলিয়া
১৯৯৩ ইংল্যান্ড
১৯৯৩-৯৪ দক্ষিণ আফ্রিকা
১৯৯৪ ইংল্যান্ড
১৯৯৪-৯৫ ভারত
১৯৯৫ ইংল্যান্ড
১৯৯৫-৯৬ পাকিস্তান
১৯৯৬ ইংল্যান্ড
১৯৯৬-৯৭ অস্ট্রেলিয়া
১৯৯৭ ইংল্যান্ড
১৯৯৭-৯৮ কেনিয়া[৯] [১০]
শ্রীলঙ্কা
১৯৯৮-৯৯ জিম্বাবুয়ে [১০] [১০]
দক্ষিণ আফ্রিকা
১৯৯৯-২০০০ বাংলাদেশ[১১]
নিউজিল্যান্ড
২০০০-০১ ওয়েস্ট ইন্ডিজ
২০০৩-০৪ ভারত
২০০৪-০৫ শ্রীলঙ্কা[১২]
২০০৫-০৬ ওয়েস্ট ইন্ডিজ
২০০৬-০৭ বাংলাদেশ
ইংল্যান্ড লায়ন্স (২০০৭-বর্তমান)
২০০৭ ওয়েস্ট ইন্ডিজ [১৩]
ভারত
২০০৭-০৮ ভারত[১৪]
২০০৮ নিউজিল্যান্ড
দক্ষিণ আফ্রিকা
২০০৮-০৯ নিউজিল্যান্ড
২০০৯ ওয়েস্ট ইন্ডিজ
অস্ট্রেলিয়া
২০০৯-১০ পাকিস্তান[১৫]
ইংল্যান্ড[১৫]
২০১০ বাংলাদেশ
ওয়েস্ট ইন্ডিজ[১৬]
ভারত[১৬]
২০১০-১১ ওয়েস্ট ইন্ডিজ[১৭]
২০১১ শ্রীলঙ্কা
২০১১-১২ বাংলাদেশ
শ্রীলঙ্কা
২০১২ ওয়েস্ট ইন্ডিজ
অস্ট্রেলিয়া
২০১২-১৩ অস্ট্রেলিয়া [১৮]
২০১৩ নিউজিল্যান্ড
বাংলাদেশ
২০১৩-১৪ শ্রীলঙ্কা
২০১৪ শ্রীলঙ্কা[১৯]
নিউজিল্যান্ড[১৯]
২০১৪-১৫ দক্ষিণ আফ্রিকা
২০১৫-১৬ পাকিস্তান[২০]
২০১৬ শ্রীলঙ্কা[২১]
পাকিস্তান[২১]

মুখোমুখি প্রতিদ্বন্দ্বিতা[সম্পাদনা]

দল প্রথম-শ্রেণী লিস্ট এ টুয়েন্টি২০
ড্র /এনআর /এনআর
অস্ট্রেলিয়া একাদশ
অস্ট্রেলিয়া এ
বাংলাদেশ
বাংলাদেশ এ
বাংলাদেশ একাদশ
বার্বাডোস
বর্ডার
সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিক্টস
মধ্য অঞ্চল
সম্মিলিত একাদশ
কম্বাইন্ড ক্যাম্পাসেস এন্ড কলেজেস
ইস্টার্ন প্রভিন্স
পূর্ব অঞ্চল
ইংল্যান্ড
এসেক্স
গটেং একাদশ
গায়ানা
ভারত এ
ভারতীয় বোর্ড সভাপতি একাদশ
ভারত একাদশ
ভারতীয় যুব একাদশ
জ্যামাইকা
করাচী
কর্ণাটক
কেনিয়া
লিওয়ার্ড দ্বীপপুঞ্জ
ম্যাশোনাল্যান্ড
মিডলসেক্স
নাটাল
নিউ সাউথ ওয়েলস
নিউজিল্যান্ড এ
নিউজিল্যান্ড একাডেমি
নিউজিল্যান্ড একাদশ
নর্দার্ন ট্রান্সভাল
নর্থ আইল্যান্ড
অরেঞ্জ ফ্রি স্টেট
পাকিস্তান এ
পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড একাদশ
পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড প্যাট্রন্স একাদশ
পাকিস্তান একাদশ
পাকিস্তান বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন
কুইন্সল্যান্ড
বহিঃএকাদশ
দক্ষিণ আফ্রিকা এ
দক্ষিণ আফ্রিকান বোর্ড সভাপতি একাদশ
দক্ষিণ আফ্রিকা একাদশ
দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়া
সাউদার্ন ডিস্ট্রিক্টস একাদশ
সাউথ আইল্যান্ড
দক্ষিণ অঞ্চল
শ্রীলঙ্কা
শ্রীলঙ্কা এ ১১
শ্রীলঙ্কা বোর্ড সভাপতি একাদশ
শ্রীলঙ্কা কোল্টস একাদশ
শ্রীলঙ্কা সম্মিলিত ক্রিকেট একাদশ
শ্রীলঙ্কা উদীয়মান খেলোয়াড় একাদশ
শ্রীলঙ্কা একাদশ
তামিলনাড়ু
তাসমানিয়া
ট্রান্সভাল
ত্রিনিদাদ ও টোবাগো
সংযুক্ত আরব আমিরাত
ভিক্টোরিয়া
ওয়ারউইকশায়ার
ওয়েস্টার্ন প্রভিন্স
ওয়েস্ট ইন্ডিজ একাদশ
ওয়েস্ট ইন্ডিজ এ
ওয়েস্ট ইন্ডিজ বি
পশ্চিম অঞ্চল
উইনওয়ার্ড আইল্যান্ডস
জিম্বাবুয়ে
জিম্বাবুয়ে এ
জিম্বাবুয়ে কান্ট্রি ডিস্ট্রিক্টস
জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট একাডেমি
জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট ইউনিয়ন সভাপতি একাদশ

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Solanki to lead England 'Lions'", 2007-06-15, BBC Sport. Retrieved on 2007-06-21.
  2. "Strauss calls the tune ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৬ অক্টোবর ২০০৭ তারিখে", England and Wales Cricket Board.
  3. "Deluge denies Lions ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৭ অক্টোবর ২০০৮ তারিখে", England and Wales Cricket Board.
  4. "Yardy leads Lions in India ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১৯ জুলাই ২০০৮ তারিখে", 2008-01-04, England and Wales Cricket Board. Retrieved on 2008-01-04.
  5. Hopps, David (১৩ জুন ২০১৭)। "England set up Test opener shoot-out"ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুন ২০১৭ 
  6. "Vince to captain Lions against SA A"ESPNcricinfo। ২১ মে ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মে ২০১৭ 
  7. England A played their three first-class matches against the full Zimbabwean side rather than the A team.
  8. The tour was called off after two matches because of the start of the Gulf War.
  9. All four matches were played against the full Kenyan side.
  10. One further match was abandoned without a ball being bowled.
  11. All three matches were played against the full Bangladeshi side.
  12. England took part in a triangular one-day tournament also involving Pakistan A. There were two games against Sri Lanka A (W1 L1) and two against Pakistan A (L2)
  13. Match played against the full West Indian side.
  14. England Lions played as a guest team in the Duleep Trophy, an Indian domestic competition.
  15. Matches played in the United Arab Emirates.
  16. England Lions played in a triangular series against West Indies A and India A.
  17. England Lions played in the Regional Four Day Competition, a domestic competition in the West Indies.
  18. Match abandoned with no toss having taken place.
  19. England Lions played in a triangular series against Sri Lanka A and New Zealand A.
  20. England Lions toured the United Arab Emirates, playing five List-A and five Twenty20 matches against Pakistan A and one unofficial Twenty20 and two 50-over games against the UAE national side.
  21. England Lions played in a triangular series against Sri Lanka A and Pakistan A.

আরও দেখুন[সম্পাদনা]