২০০৭-০৮ দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলের বাংলাদেশ সফর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
২০০৭-০৮ দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলের বাংলাদেশ সফর
Flag of Bangladesh.svg
বাংলাদেশ
Flag of South Africa.svg
দক্ষিণ আফ্রিকা
তারিখ ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০০৮ – ১৮ মার্চ, ২০০৮
অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল গ্রেইম স্মিথ
টেস্ট সিরিজ
ফলাফল ২-ম্যাচের সিরিজ দক্ষিণ আফ্রিকা ২–০ তে জয়ী হয়
সর্বাধিক রান শাহরিয়ার নাফীস (১৪১) গ্রেইম স্মিথ (৩০৪)
সর্বাধিক উইকেট শাহাদাত হোসেন (১২) ডেল স্টেইন (১৪)
সিরিজ সেরা ডেল স্টেইন (দক্ষিণ আফ্রিকা)
একদিনের আন্তর্জাতিক সিরিজ
ফলাফল ৩-ম্যাচের সিরিজ দক্ষিণ আফ্রিকা ৩–০ তে জয়ী হয়
সর্বাধিক রান রকিবুল হাসান (৯০)
তামিম ইকবাল (৯০)
গ্রেইম স্মিথ (১৯৯)
সর্বাধিক উইকেট আব্দুর রাজ্জাক (৩) আন্দ্রে নেল (৭)
সিরিজ সেরা গ্রেইম স্মিথ (দক্ষিণ আফ্রিকা)
২০০২-০৩ (পূর্ববর্তী) (পরবর্তী) ২০১৫

দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দল পূর্ব-নির্ধারিত সময়সূচী মোতাবেক ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০০৮ তারিখ থেকে ১৮ মার্চ, ২০০৮ তারিখ পর্যন্ত বাংলাদেশ সফর করে। সফরে দক্ষিণ আফ্রিকা দল বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের বিপক্ষে ২টি টেস্ট ও ৩টি একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশ নেয়। দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক ও কৃতী বোলার শন পোলকের অবসর নেয়ার পর দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথম সফরে আসে। অন্যদিকে নিউজিল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কার কাছে পরাজয়ের পর বাংলাদেশ দল নিজেদের সুসংগঠিত করার প্রয়াস চালায়।

দক্ষিণ আফ্রিকা দলের সদস্যদের তালিকা প্রকাশে এক সপ্তাহ বিলম্ব ঘটে। ক্রিকেট সাউথ আফ্রিকা (সিএসএ) প্রধান ৬জন কৃষ্ণাঙ্গ খেলোয়াড় মনোনয়ন না দিলেও পরবর্তীকালে তা পরিমার্জিত হয়।[১] তন্মধ্যে সর্বশেষ পরিবর্তন হিসেবে আঘাতপ্রাপ্ত পল হ্যারিসের পরিবর্তে রবিন পিটারসন অন্তর্ভুক্ত হন।[২] অন্যদিকে জুলাই, ২০০৭ সালের পর দলের বাইরে থাকা প্রথিতযশা বামহাতি স্পিনার মোহাম্মদ রফিককে টেস্ট দলের সদস্য হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।[৩]

দলীয় সদস্য[সম্পাদনা]

টেস্ট ওডিআই
 বাংলাদেশ[৪]  দক্ষিণ আফ্রিকা[৫]  বাংলাদেশ  দক্ষিণ আফ্রিকা

প্রস্তুতিমূলক খেলা[সম্পাদনা]

বিসিবি একাদশ ব দক্ষিণ আফ্রিকা একাদশ[সম্পাদনা]

১৭-১৯ ফেব্রুয়ারি
স্কোরকার্ড
৩৯৭ (১০৯.৩ ওভার)
এমভি বাউচার ১০৭* (১৬৪)
ফরহাদ রেজা ৩/৭৩ (২৭ ওভার)
৪১২/৯ডি. (১০২.৩ ওভার)
জুনায়েদ সিদ্দিকী ১০৩ (১৬৮)
জেএ বোথা ৪/৭৬ (২৪.৩ ওভার)
৪৭/০ (৯ ওভার)
জিসি স্মিথ ৩২* (৩১)
খেলা ড্র
নারায়ণগঞ্জ ওসমানী স্টেডিয়াম, ফতুল্লা
আম্পায়ার: মাহফুজুর রহমান (বাংলাদেশ) ও নাদির শাহ (বাংলাদেশ)
  • দক্ষিণ আফ্রিকা একাদশ টসে জয়ী হয়ে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • উভয় পক্ষে ১২ খেলোয়াড় অংশগ্রহণ করেন, ১১ প্রতি ইনিংসে।

বিসিবি একাদশ ব দক্ষিণ আফ্রিকা একাদশ[সম্পাদনা]

৭ মার্চ
০৯:৩০
স্কোরকার্ড
বিসিবি একাদশ 
২৪৩/৭ (৫০ ওভার)
  • বিসিবি একাদশ টসে জয়ী হয়ে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • উভয় পক্ষে ১৩ খেলোয়াড় অংশগ্রহণ করেন, ১১ প্রতি ইনিংসে।

টেস্ট সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম টেস্ট[সম্পাদনা]

২২-২৬ ফেব্রুয়ারি
স্কোরকার্ড
১৯২ (৫৪.৪ ওভার)
আফতাব আহমেদ ৪৪ (৮৪)
মরনে মরকেল ৫/৫০ (১৩ ওভার)
১৭০ (৬০.৩ ওভার)
এবি ডি ভিলিয়ার্স ৪৬ (৭৩)
শাহাদাত হোসেন ৬/২৭ (১৫.৩ ওভার)
১৮২ (৭৩ ওভার)
জুনায়েদ সিদ্দিকী ৭৪ (১৮৪)
জ্যাক ক্যালিস ৫/৩০ (১৪ ওভার)
২০৫/৫ (৬৭.৫ ওভার)
গ্রেইম স্মিথ ৬২ (১০৪)
শাহাদাত হোসেন ৩/৭০ (১৯ ওভার)
দক্ষিণ আফ্রিকা ৫ উইকেটে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
আম্পায়ার: আলীম দার (পাকিস্তান) ও স্টিভ বাকনর (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)
ম্যাচসেরা: জ্যাক ক্যালিস (দক্ষিণ আফ্রিকা)
  • বাংলাদেশ টসে জয়ী হয়ে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।

২য় টেস্ট[সম্পাদনা]

২৯ ফেব্রুয়ারি - ৪ মার্চ
স্কোরকার্ড
৫৮৩/৭ডি. (১৬১.১ ওভার)
গ্রেইম স্মিথ ২৩২ (২৭৭)
শাহাদাত হোসেন ৩/১০৭ (২৫ ওভার)
২৫৯ (৭০.৪ ওভার)
শাহরিয়ার নাফীস ৬৯ (৯৮)
মাখায়া এনটিনি ৪/৩৫ (১৩.৪ ওভার)
১১৯ (এফ/ও) (৩৯.৫ ওভার)
আব্দুর রাজ্জাক ৩২* (৪০)
রবিন পিটারসন ৫/৩৩ (১৩ ওভার)
দক্ষিণ আফ্রিকা ইনিংস ও ২০৫ রানে বিজয়ী
চট্টগ্রাম বিভাগীয় স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম
আম্পায়ার: আলীম দার (পাকিস্তান) ও স্টিভ বাকনর (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)
ম্যাচসেরা: গ্রেইম স্মিথ (দক্ষিণ আফ্রিকা)

ওডিআই সিরিজ[সম্পাদনা]

১ম ওডিআই[সম্পাদনা]

৯ মার্চ
০৯:৩০
স্কোরকার্ড
বাংলাদেশ 
১৭৮ (৪৮.২ ওভার)
 দক্ষিণ আফ্রিকা
১৮০/১ (৩৬.৫ ওভার)
তামিম ইকবাল ৮২ (৯৮)
আন্দ্রে নেল ৩/২৪ (১০ ওভার)
গ্রেইম স্মিথ ১০৩* (১১৮)
সাকিব আল হাসান ১/২৯ (৮.৫ ওভার)
দক্ষিণ আফ্রিকা ৯ উইকেটে বিজয়ী
চট্টগ্রাম বিভাগীয় স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম
আম্পায়ার: আলীম দার (পাকিস্তান) ও এনামুল হক (বাংলাদেশ)
সেরা খেলোয়াড়: গ্রেইম স্মিথ (দক্ষিণ আফ্রিকা)

২য় ওডিআই[সম্পাদনা]

১২ মার্চ
০৯:৩০
স্কোরকার্ড
বাংলাদেশ 
১৭৩ (৪৮.২ ওভার)
 দক্ষিণ আফ্রিকা
১৭৯/৩ (৪৮.১ ওভার)
রকিবুল হাসান ৬৩ (১০৫)
আন্দ্রে নেল ৪/২৭ (১০ ওভার)
দক্ষিণ আফ্রিকা ৭ উইকেটে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
আম্পায়ার: আলীম দার (পাকিস্তান) ও নাদির শাহ (বাংলাদেশ)
সেরা খেলোয়াড়: আন্দ্রে নেল (দক্ষিণ আফ্রিকা)
  • বাংলাদেশ টসে জয়ী হয়ে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।
  • বাংলাদেশের পক্ষে নাজিমউদ্দিনের ওডিআই অভিষেক ঘটে।

৩য় ওডিআই[সম্পাদনা]

১৪ মার্চ
০৯:৩০
স্কোরকার্ড
বাংলাদেশ 
১৪৩ (৪২.৫ ওভার)
 দক্ষিণ আফ্রিকা
১৪৭/৩ (৩৪.২ ওভার)
দক্ষিণ আফ্রিকা ৭ উইকেটে বিজয়ী
শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুর
আম্পায়ার: আলীম দার (পাকিস্তান) ও নাদির শাহ (বাংলাদেশ)
সেরা খেলোয়াড়: আলবি মরকেল (দক্ষিণ আফ্রিকা)
  • বাংলাদেশ টসে জয়ী হয়ে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।

পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

টেস্ট
ব্যাটিং[৬]
খেলোয়াড় দল ম্যাচ ইনিংস রান গড় সর্বোচ্চ ১০০ ৫০
গ্রেইম স্মিথ  দক্ষিণ আফ্রিকা ৩০৪ ১০১.৩৩ ২৩২
নিল ম্যাকেঞ্জি  দক্ষিণ আফ্রিকা ২৫৭ ৮৫.৬৬ ২২৬
শাহরিয়ার নাফীস  বাংলাদেশ ১৪১ ৩৫.২৫ ৬৯
হাশিম আমলা  দক্ষিণ আফ্রিকা ১০৯ ৩৬.৩৩ ৪৬
জুনায়েদ সিদ্দিকী  বাংলাদেশ ৯৩ ২৩.২৫ ৭৪
বোলিং[৭]
খেলোয়াড় দল ম্যাচ ওভার উইকেট গড় সেরা ৫ উই ১০ উই
ডেল স্টেইন  দক্ষিণ আফ্রিকা ৬২.৪ ১৪ ১২.৫৭ ৪/৪৮
শাহাদাত হোসেন  বাংলাদেশ ৫৯.৩ ১২ ১৭.০০ ৬/২৭
রবিন পিটারসন  দক্ষিণ আফ্রিকা ২৯ ১৫.৬৬ ৫/৩৩
মরনে মরকেল  দক্ষিণ আফ্রিকা ৪৭.৫ ৩০.৮৩ ৫/৫০
মোহাম্মদ রফিক  বাংলাদেশ ৯৭ ৪০.১৬ ২/৫৪
ওডিআই
ব্যাটিং[৮]
খেলোয়াড় দল ম্যাচ ইনিংস রান গড় সর্বোচ্চ ১০০ ৫০
গ্রেইম স্মিথ  দক্ষিণ আফ্রিকা ১৯৯ ১৯৯.০০ ১০৩*
এবি ডি ভিলিয়ার্স  দক্ষিণ আফ্রিকা ১০৯ ১০৯.০০ ৬৯*
রকিবুল হাসান  বাংলাদেশ ৯০ ৩০.০০ ৬৩
তামিম ইকবাল  বাংলাদেশ ৯০ ৩০.০০ ৮২
হার্শেল গিবস  দক্ষিণ আফ্রিকা ৭০ ২৩.৩৩ ৫৭
বোলিং[৯]
খেলোয়াড় দল ম্যাচ ওভার উইকেট গড় সেরা ৫ উই ১০ উই
আন্দ্রে নেল  দক্ষিণ আফ্রিকা ২০ ৭.২৮ ৪/২৭
আলবি মরকেল  দক্ষিণ আফ্রিকা ২২.২ ১৩.৩৩ ৪/২৯
চার্ল ল্যাঙ্গেভ্যাল্ট  দক্ষিণ আফ্রিকা ১৮.২ ১২.৬০ ৩/৩১
যোহান বোথা  দক্ষিণ আফ্রিকা ২৭.৫ ২৪.৮০ ৩/৩৪
পল হ্যারিস  দক্ষিণ আফ্রিকা ৩০ ২৭.৬৬ ২/৩০

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "South Africa Drop Gibbs For Tour To Bangladesh"। ২০ এপ্রিল ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ জুলাই ২০১৫ 
  2. "Robin Peterson Gets Late Call For Bangladesh Tour"। ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ জুলাই ২০১৫ 
  3. "Mohammad Rafique Recalled For South Africa Test Series"। ২ মার্চ ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ জুলাই ২০১৫ 
  4. Bangladesh Test Squad - 19 February 2008
  5. South Africa Test Squad - 11 February 2008
  6. "Records / South Africa in Bangladesh Test Series, 2007/08 / Most runs" (ইংরেজি ভাষায়)। ক্রিকইনফো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৭-৩০ 
  7. "Records / South Africa in Bangladesh Test Series, 2007/08 / Most wickets" (ইংরেজি ভাষায়)। ক্রিকইনফো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৭-৩০ 
  8. "Records / South Africa in Bangladesh ODI Series, 2007/08 / Most runs" (ইংরেজি ভাষায়)। ক্রিকইনফো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৭-৩০ 
  9. "Records / South Africa in Bangladesh ODI Series, 2007/08 / Most wickets" (ইংরেজি ভাষায়)। ক্রিকইনফো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৭-৩০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]