পাণ্ডুয়া, মালদা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
পান্ডুয়া
পাণ্ডুয়া, মালদা পশ্চিমবঙ্গ-এ অবস্থিত
পাণ্ডুয়া, মালদা
পশ্চিমবঙ্গে অবস্থান
বিকল্প নাম হযরত পান্ডুয়া, ফিরুজাবাদ
অবস্থান পশ্চিমবঙ্গ, ভারত
স্থানাঙ্ক ২৪°৫২′ উত্তর ৮৮°০৮′ পূর্ব / ২৪.৮৬৭° উত্তর ৮৮.১৩৩° পূর্ব / 24.867; 88.133স্থানাঙ্ক: ২৪°৫২′ উত্তর ৮৮°০৮′ পূর্ব / ২৪.৮৬৭° উত্তর ৮৮.১৩৩° পূর্ব / 24.867; 88.133
ধরন Settlement
ইতিহাস
প্রতিষ্ঠিত ১৪ তম শতক
পরিত্যক্ত ১৫ তম শতক

পাণ্ডুয়া বাংলার প্রাচীন রাজধানী। সুলাতান সামসুদ্দিন ইলিয়াশ শাহ্ এর আমলে (১৩৪২-১৩৫২) পান্ডুয়া বাংলার রাজধানী ছিল। বর্তমান ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মালদা শহরের ১২ মাইল উত্তরে এবং আরেক প্রাচীন নগর গৌড় হতে ২০ মাইল দূরে অবস্থিত।

নামকরণ[সম্পাদনা]

গৌড় এর মতো প্রাচীন আর প্রসিদ্ধ না হলেও পান্ডু নগরীতে প্রচুর হিন্দু দেবদেবীর মূর্তীর ধ্বংসাবশেষ পাওয়া গেছে। এছাড়াও এখানে বহু প্রাচীন স্থাপনারও অস্তিত্ব আছে। ১৩৫৩ সালে সুলতান ইলিয়াশ শাহ্ এর নামকরণ করেন ফিরুজাবাদ। এই নামকরণ সম্ভবত বাংলার আর এক স্বাধীন সুলতান ফিরুজ শাহ্ (১৩১১-১৩২২) এর নাম অনুসারে করা হয়েছিল। শের শাহ্ এর আমলের রৌপ্যমুদ্রা থেকে জানা যায় যে, ১৫৪০ থেকে ১৫৪৫ সাল পর্য়ন্ত পান্ডুয়ায় টাকশাল ছিল। পান্ডয়া নগরীর আদূরে জালাল উদ্দিন তবরীজিনূর কুতুব আলম নামে দুইজন দরবেশের খানকাহ আছে। যার কারনে এলাকাটি হযরত পান্ডূয়া নামেও প্রসিদ্ধ। বলা হয় যে পান্ডুয়ার নাম করান হয় পান্ডুইয়া>পান্ডুভিয়া থেকে। যদিও কানিংহামের মতে পাণ্ডুবিস নামক জলজ পাখির নাম হতেই পাণ্ডুয়ার নামকরণ হয়।

পুরা নিদর্শন[সম্পাদনা]

অতীতের সাক্ষ্য বুকে নিয়ে আদিনা মসজিদ, একলাখী সমাধীসৌধ, পীর-দরবেশদের সমাধীসৌধ, দনুজ দীঘি এবং সতাশগড় দীঘি প্রভৃতি পুরা নিদর্শন আজ অবধি বিদ্যমান আছে।

বহি:সংযোগ[সম্পাদনা]

  • [১] বাংলাপেডিয়া