কাজিমিরো

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কাজিমিরো
20180610 FIFA Friendly Match Austria vs. Brazil Casemiro 850 1575.jpg
২০১৮ সালে ব্রাজিলের হয়ে কাজিমিরো
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম কার্লোস এনরিকে কাজিমিরো[১]
জন্ম (1992-02-23) ২৩ ফেব্রুয়ারি ১৯৯২ (বয়স ২৯)[২]
জন্ম স্থান সান হোসে দোস কাম্পোস, ব্রাজিল
উচ্চতা ১.৮৫ মিটার (৬ ফুট ১ ইঞ্চি)
মাঠে অবস্থান মধ্যমাঠের খেলোয়াড়
ক্লাবের তথ্য
বর্তমান ক্লাব
রিয়াল মাদ্রিদ
জার্সি নম্বর ১৪
যুব পর্যায়
২০০২–২০১০ সাও পাওলো
জ্যেষ্ঠ পর্যায়*
বছর দল ম্যাচ (গোল)
২০১০–২০১৩ সাও পাওলো ৬২ (৬)
২০১৩রিয়াল মাদ্রিদ কাস্তিয়া (ধার) ১৫ (১)
২০১৩রিয়াল মাদ্রিদ (ধার) (০)
২০১৩– রিয়াল মাদ্রিদ ১৯২ (২৩)
২০১৪–২০১৫পোর্তু (ধার) ২৮ (৩)
জাতীয় দল
২০০৯ ব্রাজিল অনূর্ধ্ব-১৭ (১)
২০১১ ব্রাজিল অনূর্ধ্ব-২০ ১৫ (৩)
২০১১– ব্রাজিল ৫৬ (৪)
* শুধুমাত্র ঘরোয়া লীগে ক্লাবের হয়ে ম্যাচ ও গোলসংখ্যা গণনা করা হয়েছে এবং ১৬:০৬, ২৯ আগস্ট ২০২১ (ইউটিসি) তারিখ অনুযায়ী সকল তথ্য সঠিক।
‡ জাতীয় দলের হয়ে ম্যাচ ও গোলসংখ্যা ১৬:০২, ১৯ আগস্ট ২০২১ (ইউটিসি) তারিখ অনুযায়ী সঠিক।

কার্লোস এনরিকে কাজিমিরো (পর্তুগিজ: Casemiro; জন্ম: ২৩ ফেব্রুয়ারি ১৯৯২; কাজিমিরো নামে সুপরিচিত) হলেন একজন ব্রাজিলীয় পেশাদার ফুটবল খেলোয়াড়। তিনি বর্তমানে স্পেনের পেশাদার ফুটবল লীগের শীর্ষ স্তর লা লিগার ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ এবং ব্রাজিল জাতীয় দলের হয়ে মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেন।[৩][৪] তিনি মূলত রক্ষণাত্মক মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হিসেবে খেললেও মাঝেমধ্যে কেন্দ্রীয় মধ্যমাঠের খেলোয়াড় এবং কেন্দ্রীয় রক্ষণভাগের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেন।

২০০২–০৩ মৌসুমে, ব্রাজিলীয় ফুটবল ক্লাব সাও পাওলোর যুব পর্যায়ের হয়ে খেলার মাধ্যমে কাজিমিরো ফুটবল জগতে প্রবেশ করেছেন এবং এই দলের হয়ে খেলার মাধ্যমেই তিনি ফুটবল খেলায় বিকশিত হয়েছেন। ২০১০ সালে, সাও পাওলোর মূল দলের হয়ে খেলার মাধ্যমে তিনি তার জ্যেষ্ঠ পর্যায়ের খেলোয়াড়ি জীবন শুরু করেছেন, যেখানে তিনি ৪ মৌসুম অতিবাহিত করেছেন; সাও পাওলোর হয়ে তিনি ৬২ ম্যাচে ৬টি গোল করেছেন। অতঃপর ২০১২–১৩ মৌসুমে রিয়াল মাদ্রিদ কাস্তিয়া এবং রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে ধারে খেলার পর পরবর্তী মৌসুমে তিনি প্রায় ৬ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে স্পেনীয় ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদে যোগদান করেছেন। মাঝে তিনি ১ মৌসুমের জন্য পর্তুগিজ ক্লাব পোর্তু্র হয়ে ধারে খেলেছেন।

২০০৯ সালে, কাজিমিরো ব্রাজিল অনূর্ধ্ব-১৭ দলের হয়ে ব্রাজিলের বয়সভিত্তিক পর্যায়ে অভিষেক করেছিলেন। ব্রাজিলের বয়সভিত্তিক দলের হয়ে খেলার পর, তিনি ২০১১ সালে ব্রাজিলের হয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অভিষেক করেছেন; ব্রাজিলের জার্সি গায়ে তিনি এপর্যন্ত ৫৬ ম্যাচে ৪টি গোল করেছেন। তিনি ব্রাজিলের হয়ে ২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপ এবং ৪টি কোপা আমেরিকায় (২০১৫, ২০১৬, ২০১৯ এবং ২০২১) অংশগ্রহণ করেছেন, যার মধ্যে ২০১৯ সালে তিতের অধীনে কোপা আমেরিকার শিরোপা জয়লাভ করেছেন।

ব্যক্তিগতভাবে, কাজিমিরো বেশ কিছু পুরস্কার জয়লাভ করেছেন, যার মধ্যে ২০২১ কোপা আমেরিকার সেরা একাদশে অন্তর্ভুক্তি অন্যতম।[৫] দলগতভাবে, কাজিমিরো এপর্যন্ত ১৯টি শিরোপা জয়লাভ করেছেন, যার মধ্যে ১টি সাও পাওলোর হয়ে, ১৪টি রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে এবং ৪টি ব্রাজিলের হয়ে জয়লাভ করেছেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

কার্লোস এনরিকে কাজিমিরো ১৯৯২ সালের ২৩শে ফেব্রুয়ারি তারিখে ব্রাজিলের সান হোসে দোস কাম্পোসে জন্মগ্রহণ করেছেন এবং সেখানেই তার শৈশব অতিবাহিত করেছেন।

আন্তর্জাতিক ফুটবল[সম্পাদনা]

কাজিমিরো ব্রাজিল অনূর্ধ্ব-১৭ এবং ব্রাজিল অনূর্ধ্ব-২০ দলের হয়ে খেলার মাধ্যমে ব্রাজিলের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। ২০০৯ সালে, তিনি ব্রাজিল অনূর্ধ্ব-১৭ দলের হয়ে ২০০৯ দক্ষিণ আমেরিকান অনূর্ধ্ব-১৭ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জয়লাভ করেছেন,[৬][৭] যেখানে তিনি ৫ ম্যাচে ১টি গোল করেছেন।[৮] একই বছরে তিনি ২০০৯ ফিফা অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করলেও[৯] তার দল প্রতিযোগিতার গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছিল; উক্ত প্রতিযোগিতায় তিনি ২ ম্যাচে অংশগ্রহণ করেছিলেন।[১০] দুই বছর পর ব্রাজিল অনূর্ধ্ব-২০ দলের হয়ে তিনি ২০১১ দক্ষিণ আমেরিকান অনূর্ধ্ব-২০ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জয়লাভ করেছেন।[১১] একই বছরে অনুষ্ঠিত ২০১১ ফিফা অনূর্ধ্ব-২০ বিশ্বকাপ২০১১ ফিফা অনূর্ধ্ব-২০ বিশ্বকাপের শিরোপা জয়লাভ করার মাধ্যমে তিনি ব্রাজিলের হয়ে সাফল্যের ধারাবাহিকতা বজায় রাখেন, উক্ত প্রতিযোগিতার ফাইনালের অতিরিক্ত সময়ে তার দল পর্তুগাল অনূর্ধ্ব-২০ দলকে ৩–২ গোলের ব্যবধানে পরাজিত করে উক্ত প্রতিযোগিতার ইতিহাসে পঞ্চমবারের মতো শিরোপা ঘরে তুলতে সক্ষম হয়েছিল।[১২] ব্রাজিলের বয়সভিত্তিক দলের হয়ে তিনি ২৩ ম্যাচে অংশগ্রহণ করে ৪টি গোল এবং ৩টি শিরোপা জয়লাভ করেছেন।

২০১১ সালের ১৫ই সেপ্টেম্বর তারিখে, মাত্র ১৯ বছর ৬ মাস ২৩ দিন বয়সে, ডান পায়ে ফুটবল খেলায় পারদর্শী কাজিমিরো আর্জেন্টিনার বিরুদ্ধে অনুষ্ঠিত প্রীতি ম্যাচে অংশগ্রহণ করার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ফুটবলে ব্রাজিলের হয়ে অভিষেক করেছেন।[১৩] উক্ত ম্যাচের ৮৮তম মিনিটে মধ্যমাঠের খেলোয়াড় পাওলিনিয়োর বদলি খেলোয়াড় হিসেবে তিনি মাঠে প্রবেশ করেন;[১৪] ম্যাচটি ০–০ গোলে ড্র হয়েছিল।[১৫] ব্রাজিলের হয়ে অভিষেকের বছরে কাজিমিরো মাত্র ১ ম্যাচে অংশগ্রহণ করেছেন। জাতীয় দলের হয়ে অভিষেকের ৭ বছর ৯ মাস ৭ দিন পর, ব্রাজিলের জার্সি গায়ে প্রথম গোলটি করেন; ২০১৯ সালের ২২শে জুন তারিখে, পেরুর বিরুদ্ধে ম্যাচের প্রথম গোলটি করার মাধ্যমে তিনি আন্তর্জাতিক ফুটবলে তার প্রথম গোলটি করেন।[১৬][১৭][১৮] ২০১৭ সালের ৫ই অক্টোবর তারিখে, তিনি বলিভিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচে ব্রাজিলের হয়ে প্রথমবারের মতো অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেন, ম্যাচটি ০–০ গোলে ড্র হয়েছিল।[১৯][২০][২১]

কাজিমিরো রাশিয়ায় অনুষ্ঠিত ২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপের জন্য তিতের অধীনে ঘোষিত ব্রাজিল দলে স্থান পাওয়ার মাধ্যমে প্রথমবারের মতো ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করার সুযোগ পান।[২২][২৩][২৪] ২০১৮ সালের ১৭ই জুন তারিখে, তিনি সুইজারল্যান্ডের বিরুদ্ধে গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে অংশগ্রহণ করার মাধ্যমে ফিফা বিশ্বকাপে অভিষেক করেছেন।[২৫][২৬][২৭] উক্ত বিশ্বকাপে তিনি ৪ ম্যাচে অংশগ্রহণ করেছেন।[২৮]

২০২১ সালের ৮ই জুন তারিখে প্যারাগুয়ের আসুনসিওনের দেফেন্সোরেস দেল চাকো স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত প্যারাগুয়ের বিরুদ্ধে ম্যাচে অংশগ্রহণ করার মাধ্যমে তিনি ব্রাজিলের জার্সি গায়ে তার ৫০তম ম্যাচ খেলেছেন, ম্যাচটি ব্রাজিল ২–০ গোলের ব্যবধানে জয়লাভ করেছিল, যেখানে তিনি পূর্ণ ৯০ মিনিট খেলার পাশাপাশি ব্রাজিলের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছেন।[২৯][৩০][৩১]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

২০২০ সালের ৭ই নভেম্বর তারিখে তার কোভিড-১৯ পরীক্ষায় ইতিবাচক ফলাফল এসেছিল।[৩২]

কাজিমিরো ফিফা ১৯-এর জন্য একটি প্রচারমূলক ট্রেলারে কাজ করেছেন।[৩৩]

পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

ব্রাজিলের হয়ে খেলছেন কাজিমিরো

আন্তর্জাতিক[সম্পাদনা]

১৯ আগস্ট ২০২১ পর্যন্ত হালনাগাদকৃত।
দল সাল ম্যাচ গোল
ব্রাজিল ২০১১
২০১২
২০১৪
২০১৫
২০১৬
২০১৭
২০১৮ ১২
২০১৯ ১৪
২০২০
২০২১
সর্বমোট ৫৬

অর্জন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Acta del Partido celebrado el 20 de marzo de 2016, en Madrid" [Minutes of the Match held on 20 March 2016, in Madrid] (স্পেনীয় ভাষায়)। Royal Spanish Football Federation। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জুন ২০১৯ 
  2. "FIFA World Cup Russia 2018: List of Players: Brazil" (PDF)। FIFA। ১৫ জুলাই ২০১৮। পৃষ্ঠা 4। ১১ জুন ২০১৯ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  3. "Midfielder First Team - Official Real Madrid CF website"Real Madrid C.F. - Web Oficial। ২৪ অক্টোবর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২৩ আগস্ট ২০২১ 
  4. "Carlos Henrique Casimiro LaLiga Santander"লা লিগা। ২৮ জুন ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২৩ আগস্ট ২০২১ 
  5. "Uno por uno, el equipo ideal de la CONMEBOL Copa América 2021 elegido por el GET"Copa América (স্পেনীয় ভাষায়)। ১৩ জুলাই ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুলাই ২০২১ 
  6. "Argentina - Brazil 5:6 (U17 Campeonato Sudamericano 2009 Chile, Final)"worldfootball.net। ২৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  7. "Brazil U17 - Squad U17 Campeonato Sudamericano 2009 Chile"worldfootball.net। ২৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  8. "Brazil U17 - AppearancesU17 Campeonato Sudamericano 2009"worldfootball.net। ২৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  9. "FIFA U-17 World Cup Nigeria 2009: List of Players" (PDF)fifa.com (ইংরেজি ভাষায়)। ফিফা। ২৩ অক্টোবর ২০০৯। ৬ নভেম্বর ২০১২ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  10. "Brazil U17 - AppearancesU17 World Cup 2009"worldfootball.net। ২৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  11. "Brazil U20 - Squad U20 Campeonato Sudamericano 2011 Peru"worldfootball.net। ২৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  12. "FIFA U-20 World Cup • 2011-08-21"FIFA। ২১ আগস্ট ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  13. "Argentina - Brazil 0:0 (Friendlies 2011, September)"worldfootball.net। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  14. "Argentina - Brazil, Sep 15, 2011 - International Friendlies - Match sheet"Transfermarkt। ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  15. Strack-Zimmermann, Benjamin (১৪ সেপ্টেম্বর ২০১১)। "Argentina vs. Brazil (0:0)"National Football Teams। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  16. "Peru - Brazil, Jun 22, 2019 - Copa América 2019 - Match sheet"Transfermarkt। ২২ জুন ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  17. "Peru - Brazil 0:5 (Copa América 2019 Brazil, Group A)"worldfootball.net। ২৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  18. Strack-Zimmermann, Benjamin (২২ জুন ২০১৯)। "Brazil vs. Peru (5:0)"National Football Teams। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  19. "Bolivia - Brazil, Oct 5, 2017 - World Cup qualification South America - Match sheet"Transfermarkt। ৫ অক্টোবর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  20. "Bolivia - Brazil 0:0 (WC Qualifiers South America 2015-2017, 17. Round)"worldfootball.net। ২৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  21. Strack-Zimmermann, Benjamin (৫ অক্টোবর ২০১৭)। "Bolivia vs. Brazil (0:0)"National Football Teams। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  22. "FIFA World Cup Russia 2018™: List of Players" (PDF)fifadata.com (ইংরেজি ভাষায়)। ফিফা। ১০ জুন ২০১৮। পৃষ্ঠা ১৭। ৬ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ আগস্ট ২০২১ 
  23. "Seleção Brasileira é convocada para Copa do Mundo" [Brazilian team called for World Cup]। CBF.com.br (পর্তুগিজ ভাষায়)। Brazilian Football Confederation। ১৪ মে ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৪ মে ২০১৮ 
  24. "Marcelo will be Brazil's captain for their opener in Russia"Marca। ১৬ জুন ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুন ২০১৮ 
  25. "Brazil - Switzerland, Jun 17, 2018 - World Cup 2018 - Match sheet"Transfermarkt। ১৭ জুন ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  26. "Brazil - Switzerland 1:1 (World Cup 2018 Russia, Group E)"worldfootball.net। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  27. Strack-Zimmermann, Benjamin (১৭ জুন ২০১৮)। "Brazil vs. Switzerland (1:1)"National Football Teams। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  28. "Brazil - Appearances World Cup 2018"worldfootball.net। ২৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  29. "Paraguay - Brazil, Jun 9, 2021 - World Cup qualification South America - Match sheet"Transfermarkt। ৯ জুন ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  30. "Paraguay - Brazil 0:2 (WC Qualifiers South America 2020-2021, 8. Round)"worldfootball.net। ২৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  31. Strack-Zimmermann, Benjamin (৮ জুন ২০২১)। "Paraguay vs. Brazil (0:2)"National Football Teams। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২১ 
  32. "Official Announcement"। Real Madrid CF। ৭ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০২০ 
  33. Mendola, Nicholas (৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮)। "Star-studded video has players campaigning for FIFA ratings"NBC Sports। সংগ্রহের তারিখ ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  34. "Real Madrid 2 Barcelona 0 (5–1 on aggregate): Woeful Barca dismissed as Zinedine Zidane's unstoppable side win Super Cup"The Daily Telegraph। ১৬ আগস্ট ২০১৭। ১৪ জুন ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ আগস্ট ২০১৭ 
  35. "Spanish Super Cup: Real Madrid beat Atletico Madrid on penalties"BBC Sport। ১২ জানুয়ারি ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জানুয়ারি ২০২০ 
  36. "Majestic Real Madrid win Champions League in Cardiff"। UEFA। ৩ জুন ২০১৭। ৩১ মার্চ ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুন ২০১৭ 
  37. "Isco goal gives Real Madrid victory over Manchester United in Super Cup"The Guardian। London। ৮ আগস্ট ২০১৭। ২৮ এপ্রিল ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ আগস্ট ২০১৭ 
  38. "Cristiano Ronaldo free-kick fires Real Madrid to Club World Cup glory"The Guardian। ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  39. "Brazil 3–1 Peru"BBC Sport। ৭ জুলাই ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]