মার্কাস রাশফোর্ড

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মার্কাস রাশফোর্ড
Press Tren CSKA - MU (3).jpg
২০১৭ সালে রাশফোর্ড ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড-এর হয়ে অনুশীলন করছেন।
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম মার্কাস রাশফোর্ড[১]
জন্ম (1997-10-31) ৩১ অক্টোবর ১৯৯৭ (বয়স ২১)[২]
জন্ম স্থান ওথেনসশো, ম্যানচেস্টার, ইংল্যান্ড
উচ্চতা ৫ ফুট ১১ ইঞ্চি (১.৮০ মি)[৩]
মাঠে অবস্থান ফরওয়ার্ড
ক্লাবের তথ্য
বর্তমান ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড
জার্সি নম্বর ১৯
যুব পর্যায়ের খেলোয়াড়ী জীবন
২০০৩–২০০৫ ফ্লেচার মোস রেঞ্জার্স
২০০৫–২০১৫ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড
জ্যেষ্ঠ পর্যায়ের খেলোয়াড়ী জীবন*
বছর দল উপস্থিতি (গোল)
২০১৫– ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ৯৯ (২৫)
জাতীয় দল
২০১২ ইংল্যান্ড অনুর্ধ ১৬ (০)
২০১৪ ইংল্যান্ড অনুর্ধ ১৮ (০)
২০১৬ ইংল্যান্ড অনুর্ধ ২০ (০)
২০১৬– ইংল্যান্ড অনুর্ধ ২১ (৩)
২০১৬– ইংল্যান্ড ৩১ (৬)
  • পেশাদারী ক্লাবের উপস্থিতি ও গোলসংখ্যা শুধুমাত্র ঘরোয়া লিগের জন্য গণনা করা হয়েছে এবং ১৭:১২, ২৯ জানুয়ারী ২০১৯ (ইউটিসি) তারিখ অনুযায়ী সঠিক।

† উপস্থিতি(গোল সংখ্যা)।

‡ জাতীয় দলের হয়ে খেলার সংখ্যা এবং গোল ০০:৪৩, ১৩ জানুয়ারী ২০১৯ (ইউটিসি) তারিখ অনুযায়ী সঠিক।

মার্কাস রাশফোর্ড (জন্ম ৩১ অক্টোবর ১৯৯৭) হলেন একজন ইংরেজ পেশাদার ফুটবলার, যিনি একজন ফরওয়ার্ড হিসেবে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগ-এর জনপ্রিয় ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড এবং ইংল্যান্ড জাতীয় দল-এর হয়ে খেলে থাকেন।

২০১৭ সালে রাশফোর্ড ম্যানটেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে খেলছেন।

মাত্র সাত বছর বয়স থেকেই ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড-এর খেলোয়াড়, তিনি তার দুবারের প্রথম-দলের হয়ে অভিষেকেই গোল করেছেন, যেখানে প্রথমে তিনি উয়েফা ইউরোপা লীগ-এ অনুশীলন করতে গিয়ে স্ট্রাইকার এন্থনি মার্টিয়াল চোট পাওয়ার পর, এবং ২০১৬ সালে ফেব্রুয়ারী মাসে তার প্রথম প্রিমিয়ার লিগ ম্যাচে আর্সেনাল ফুটবল ক্লাব-এর বিপক্ষে। তিনি তার প্রথম ম্যানচেস্টার ডার্বি ম্যাচে, তার প্রথম লিগ কাপ ম্যাচ এবং তার প্রথম উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ ম্যাচেও গোল করেন। ২০১৬ সালের মে মাসে, রাশফোর্ড তার ইংল্যান্ডের হয়ে অভিষেক ম্যাচে গোল করেন, এতে করে তিনি সবচেয়ে কনিষ্ঠ ইংলিশ খেলোয়াড় হিসেবে তার প্রথম কোন জেষ্ঠ আন্তর্জাতিক ম্যাচে গোল করা খেলোয়াড় হয়ে যান। তিনি ২০১৬ সালে ফ্রান্সে আয়োজিত উয়েফা ইউরো ২০১৬-এর জন্যও নির্বাচিত হয়েছিলেন।

ক্লাব খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড[সম্পাদনা]

প্রাথমিক খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

রাশফোর্ডের জন্ম, ইংল্যান্ডের ম্যানচেস্টার শহরের দক্ষিণস্থ শহর ওথেনসশো-এ, এবং তিনি কিট্টিটিয়ানদের (সেন্ট কিট্‌স ও নেভিস এর অধিবাসী) বংশধর। [৪] রাশফোর্ড মাত্র পাচঁ বছর বয়সে, ইংল্যান্ডের ম্যানচেস্টারে অবস্থিত ফুটবল ক্লাব ফ্লেচার মোস রেঞ্জার্স এর হয়ে প্রথম খেলা শুরু করেন[৫], সাত বছর বয়সে তিনি জনপ্রিয় ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড এর একাডেমীতে যোগদান করেন।[৬][৭]

২০১৬ সালে রাশফোর্ড ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড-এর হয়ে অনুশীলন করছেন।

আন্তর্জাতিক খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

প্রথম জেষ্ঠ সিজনে রাশফোর্ডের অবদানের সফল হিসেবে, ২০১৬ সালে ফ্রান্সে আয়োজিত উয়েফা ইউরো ২০১৬ প্রতিযোগিতায় ইংল্যান্ড জাতীয় দলের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করার জন্য ডাক পান। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের একাডেমী কোচ নিকি বাট এটিকে যথা সময়ের আগেই সুযোগ প্রদান এবং খেলোয়াড়ের মান উন্নয়নে হয়ত ক্ষতিকারক পদক্ষেপ হতে যাচ্ছে বলে এটি বাতিল করেন।[৮] যদিও একই প্রতিযোগিতাটির জন্য, একই বছরের ১২ই মে, সেই সময়ের ইংল্যান্ড জাতীয় দলের ফুটবল দলের এবং বর্তমানে ইংলিশ ক্লাব ক্রিস্টাল প্যালেস-এর ম্যানেজার রায় হজসন এর করা ২৬ সদস্যের প্রাথমিক দলেও তিনি জায়গা পেয়েছিলে।[৯] তার ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড এর হয়ে অভিষেক হওয়ার চার মাসেরও কম সময় পর, তিনি ইংল্যান্ডের ইউরো ২০১৬ দলের একজন নির্বাচিত হন। [১০]

২০১৬ সালে রাশফোর্ড ম্যানটেস্টার ইউনাইটেড দলের সাথে সারিবদ্ধ হয়ে দাড়াচ্ছেন।

খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

ক্লাব[সম্পাদনা]

২৬শে জানুয়ারী ২০১৮ পর্যন্ত হালনাগাদকৃত।
ক্লাব অনুযায়ী উপস্থিতি এবং গোল, সিজন এবং প্রতিযোগিতা
ক্লাব সিজন লিগ এফএ কাপ ইএফএল কাপ ইউরোপ অন্যান্য সর্বমোট
বিভাগ উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল
ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ২০১৫–১৬[১১] প্রিমিয়ার লিগ 11 5 4 1 0 0 3[ক] 2 ১৮
২০১৬–১৭[১২] প্রিমিয়ার লীগ ৩২ ১১[ক] 2 1[খ] ৫৩ ১১
২০১৭–১৮[১৩] প্রিমিয়ার লীগ ২৪ [গ] 3 1[ঘ] ৩৬ ১০
খেলোয়াড়ী জীবনে সর্বমোট ৬৭ ১৪ ২০ ১০৭ ২৯

আন্তর্জাতিক[সম্পাদনা]

১৪ই নভেম্বর ২০১৭ পর্যন্ত হালনাগাদকৃত।[১৪]
জাতীয় দলে উপস্থিতি অনুযায়ী গোল, দল এবং সাল
জাতীয় দল সাল উপস্থিতি গোল
ইংল্যান্ড ২০১৬
২০১৭
সর্বমোট ১৫

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Squads for 2017/18 Premier League confirmed"। Premier League। ১ সেপ্টেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  2. "Marcus Rashford"11v11.com। AFS Enterprises। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  3. "Marcus Rashford: Overview"। Premier League। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  4. "St. Juste opgeroepen voor Saint Kitts en Nevis - Omrop Fryslân"। ২৭ জানুয়ারি ২০১৭। 
  5. Fordyce, Tom (২ মার্চ ২০১৭)। "Manchester's cold war"। BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ২ মার্চ ২০১৭ 
  6. Luckhurst, Samuel (২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৬)। "Marcus Rashford rejected Liverpool to join Manchester United"Manchester Evening News। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০১৭ 
  7. Bernstein, Joe (২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৬)। "Marcus Rashford could have joined City instead of Manchester United"Daily Mail। London। [অনির্ভরযোগ্য উৎস?]
  8. Ornstein, David (১৪ মার্চ ২০১৬)। "Euro 2016 too early for Man Utd's Marcus Rashford – Nicky Butt"। BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ১৪ মার্চ ২০১৬ 
  9. "Euro 2016: Marcus Rashford makes England provisional squad"। BBC Sport। ১৬ মে ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মে ২০১৬ 
  10. "Euro 2016: Marcus Rashford's England rise 'doesn't seem real'"। BBC Sport। ৯ জুন ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০১৭ 
  11. টেমপ্লেট:Soccerbase season
  12. টেমপ্লেট:Soccerbase season
  13. টেমপ্লেট:Soccerbase season
  14. National-Football-Teams.com-এ "Rashford, Marcus" (ইংরেজি ভাষায়)। জাতীয় ফুটবল দল। সংগ্রহের তারিখ ২২ জানুয়ারি ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]


উদ্ধৃতি ত্রুটি: "lower-alpha" নামক গ্রুপের জন্য <ref> ট্যাগ রয়েছে, কিন্তু এর জন্য কোন সঙ্গতিপূর্ণ <references group="lower-alpha"/> ট্যাগ পাওয়া যায়নি, বা বন্ধকরণ </ref> দেয়া হয়নি