মালিক দীনার মসজিদ

স্থানাঙ্ক: ১২°২৯′০৬″ উত্তর ৭৪°৫৯′২০″ পূর্ব / ১২.৪৮৪৯° উত্তর ৭৪.৯৮৯০° পূর্ব / 12.4849; 74.9890
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
হযরত মালিক দীনার গ্র্যান্ড জুমা মসজিদ
Malikdeenar Mosque in the Morning.jpg
মালিক দীনার গ্র্যান্ড জুমা মসজিদ
ধর্ম
অন্তর্ভুক্তিইসলাম
জেলাকাসারগড়
প্রদেশথালাঙ্গারা
যাজকীয় বা
সাংগঠনিক অবস্থা
মসজিদ, মসজিদ
নেতৃত্বমালিক দিনার
পবিত্রীকৃত বছরহিজরাহ ১১০ - ১২০ (৭২০ - ৭৪৯ খ্রিস্টাব্দের কাছাকাছি)
অবস্থান
অবস্থানভারত Thalangara, কাসারগড়, ভারত
রাজ্যকেরালা
স্থানাঙ্ক১২°২৯′০৬″ উত্তর ৭৪°৫৯′২০″ পূর্ব / ১২.৪৮৪৯° উত্তর ৭৪.৯৮৯০° পূর্ব / 12.4849; 74.9890
স্থাপত্য
স্থপতিমালিক দিনার
ধরনমসজিদ
স্থাপত্য শৈলীইসলামি
সম্পূর্ণ হয়হিজরাহ ১১০-১২০ (সন জানা যায়নি)
নির্দিষ্টকরণ
সম্মুখভাগের দিককা'বা
ধারণক্ষমতা২০০০
উপাদানসমূহকাঠ এবং পাথর
ওয়েবসাইট
malikdeenargreatjumamasjid.com

মালিক দীনার মসজিদ ভারতের দ্বিতীয় প্রাচীনতম মসজিদ, যা ভারতের কেরালা রাজ্যের কাসারগড় শহরের থালাঙ্গারা-তে অবস্থিত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

বছরের পর বছর ধরে, কাসারগড় পশ্চিম উপকূলে ইসলামের কেন্দ্র হিসাবে যথেষ্ট গুরুত্ব অর্জন করেছে। এটি মালিক দীনার কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত একটি মসজিদ স্থান। কিসাত শাকারওয়াতি ফরমাদ-এর মতে, কোডুঙ্গাল্লুর, কোল্লাম, মাদায়ি, বারকুর, ম্যাঙ্গালোর, কাসারগড়, কান্নুর, ধর্মাদম, পান্থালয়িনি এবং চালিয়ামের মসজিদগুলি মালিক দিনারের যুগে নির্মিত হয়েছিল এবং সেগুলি ভারতীয় উপমহাদেশ-এর প্রাচীনতম মসজিদগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য ।[১] ধারণা করা হয় মালিক দীনার কাসারগড় শহরের থালাঙ্গারায় মারা যান।

অবস্থান[সম্পাদনা]

জুমা মসজিদটি জেলার মধ্যে সবচেয়ে ভালো মানের এবং সবচেয়ে আকর্ষণীয়। এটি তালাঙ্গাড়ায় অবস্থিত। থালাঙ্গারা সমুদ্র সৈকত কাসারগড় শহরের পশ্চিম দিকে এবং এটি রেলওয়ে স্টেশনের কাছাকাছি।

পবিত্র কবর[সম্পাদনা]

মসজিদটিতে মালিক দীনার-এর কবর রয়েছে । মালিক দীনার একজন তাবিঈন (যারা ইসলামিক নবী মুহাম্মদের সাহাবীদের দেখেছিলেন) ছিলেন। স্থানটি মুসলমানদের কাছে পবিত্র।[২] কাসারগড়ের আরেকটি উল্লেখযোগ্য মসজিদ হল শহরের কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত থেরুভাথ মসজিদ।

তীর্থযাত্রী কেন্দ্র[সম্পাদনা]

থালাঙ্গারা মসজিদ কাসারগড় জেলার একটি বিশিষ্ট তীর্থযাত্রী কেন্দ্র।

মালিক দীনার উরুস[সম্পাদনা]

মালিক দীনার উরুস (مالك دينار عروس) হল ভারতের কেরালায় মালিক দীনার-এর আগমন উদযাপনের জন্য ভারতীয় মুসলমানদের অন্যতম প্রধান পর্যবেক্ষণ। এটি মহররম মাসে পরিচালিত হয় এবং এক মাস স্থায়ী হয়। এতে জিয়ারত (সমাধি পরিদর্শন), পাটাকা উয়ারথাল (পতাকা হোস্টিং) এবং অন্নদানামের মতো বিভিন্ন আচার-অনুষ্ঠান অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।[৩]

চিত্রশালা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Prange, Sebastian R. Monsoon Islam: Trade and Faith on the Medieval Malabar Coast. Cambridge University Press, 2018. 98.
  2. Pg 58, Cultural heritage of Kerala: an introduction, A. Sreedhara Menon, East-West Publications, 1978
  3. "Official Website of Malik Deenar"। ১ আগস্ট ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-১০-০৫