সোডিয়াম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সোডিয়াম
১১Na
হাইড্রোজেন (other non-metal)
হিলিয়াম (noble gas)
লিথিয়াম (alkali metal)
বেরিলিয়াম (alkaline earth metal)
বোরন (metalloid)
কার্বন (other non-metal)
নাইট্রোজেন (other non-metal)
অক্সিজেন (other non-metal)
ফ্লোরিন (halogen)
নিয়ন (noble gas)
সোডিয়াম (alkali metal)
ম্যাগনেসিয়াম (alkaline earth metal)
অ্যালুমিনিয়াম (post-transition metal)
সিলিকন (metalloid)
ফসফরাস (other non-metal)
সালফার (other non-metal)
ক্লোরিন (halogen)
আর্গন (noble gas)
পটাশিয়াম (alkali metal)
ক্যালসিয়াম (alkaline earth metal)
স্ক্যানডিয়াম (transition metal)
টাইটানিয়াম (transition metal)
ভ্যানাডিয়াম (transition metal)
ক্রোমিয়াম (transition metal)
ম্যাঙ্গানিজ (transition metal)
লোহা (transition metal)
কোবাল্ট (transition metal)
নিকেল (transition metal)
তামা (transition metal)
দস্তা (transition metal)
গ্যালিয়াম (post-transition metal)
জার্মেনিয়াম (metalloid)
আর্সেনিক (metalloid)
সেলেনিয়াম (other non-metal)
ব্রোমিন (halogen)
ক্রিপ্টন (noble gas)
রুবিডিয়াম (alkali metal)
স্ট্রনসিয়াম (alkaline earth metal)
ইটরিয়াম (transition metal)
জিরকোনিয়াম (transition metal)
নাইওবিয়াম (transition metal)
মলিবডিনাম (transition metal)
টেকনিসিয়াম (transition metal)
রুথেনিয়াম (transition metal)
রোহডিয়াম (transition metal)
প্যালাডিয়াম (transition metal)
রুপা (transition metal)
ক্যাডমিয়াম (transition metal)
ইন্ডিয়াম (post-transition metal)
টিন (post-transition metal)
অ্যান্টিমনি (metalloid)
টেলুরিয়াম (metalloid)
আয়োডিন (halogen)
জেনন (noble gas)
সিজিয়াম (alkali metal)
বেরিয়াম (alkaline earth metal)
ল্যান্থানাম (lanthanoid)
সিরিয়াম (lanthanoid)
প্রাসিওডিমিয়াম (lanthanoid)
নিওডিমিয়াম (lanthanoid)
প্রমিথিয়াম (lanthanoid)
সামারিয়াম (lanthanoid)
ইউরোপিয়াম (lanthanoid)
গ্যাডোলিনিয়াম (lanthanoid)
টারবিয়াম (lanthanoid)
ডিসপ্রোসিয়াম (lanthanoid)
হলমিয়াম (lanthanoid)
এরবিয়াম (lanthanoid)
থুলিয়াম (lanthanoid)
ইটারবিয়াম (lanthanoid)
লুটেসিয়াম (lanthanoid)
হ্যাফনিয়াম (transition metal)
ট্যানটালাম (transition metal)
টাংস্টেন (transition metal)
রিনিয়াম (transition metal)
অসমিয়াম (transition metal)
ইরিডিয়াম (transition metal)
প্লাটিনাম (transition metal)
সোনা (transition metal)
পারদ (transition metal)
থ্যালিয়াম (post-transition metal)
সীসা (post-transition metal)
বিসমাথ (post-transition metal)
পোলোনিয়াম (post-transition metal)
এস্টাটিন (halogen)
রেডন (noble gas)
ফ্রান্সিয়াম (alkali metal)
রেডিয়াম (alkaline earth metal)
অ্যাক্টিনিয়াম (actinoid)
থোরিয়াম (actinoid)
প্রোটেক্টিনিয়াম (actinoid)
ইউরেনিয়াম (actinoid)
নেপচুনিয়াম (actinoid)
প্লুটোনিয়াম (actinoid)
অ্যামেরিসিয়াম (actinoid)
কুরিয়াম (actinoid)
বার্কেলিয়াম (actinoid)
ক্যালিফোর্নিয়াম (actinoid)
আইনস্টাইনিয়াম (actinoid)
ফার্মিয়াম (actinoid)
মেন্ডেলেভিয়াম (actinoid)
নোবেলিয়াম (actinoid)
লরেনসিয়াম (actinoid)
রাদারফোর্ডিয়াম (transition metal)
ডুবনিয়াম (transition metal)
সিবোরজিয়াম (transition metal)
বোহরিয়াম (transition metal)
হ্যাসিয়াম (transition metal)
মিটনেরিয়াম (unknown chemical properties)
ডার্মস্টেটিয়াম (unknown chemical properties)
রন্টজেনিয়াম (unknown chemical properties)
কোপার্নিসিয়াম (transition metal)
ইউনুনট্রিয়াম (unknown chemical properties)
ফেরোভিয়াম (unknown chemical properties)
ইউনুনপেন্টিয়াম (unknown chemical properties)
লিভেরমোরিয়াম (unknown chemical properties)
ইউনুনসেপটিয়াম (unknown chemical properties)
ইউনুনকটিয়াম (unknown chemical properties)
Li

Na

K
নিয়নসোডিয়ামম্যাগনেসিয়াম
পর্যায় সারণীতে সোডিয়াম
ভৌত রূপ
ধাতব রূপালী সাদা


Spectral lines of sodium
সাধারণ বৈশিষ্ট
নাম, প্রতীক, পারমাণবিক সংখ্যা সোডিয়াম, Na, ১১
উচ্চারণ /ˈsdiəm/ SOH-dee-əm
রাসায়নিক শ্রেণী ক্ষার ধাতু
শ্রেণী, পর্যায়, ব্লক , , s
পারমাণবিক ওজন 22.98976928(2)
ইলেকট্রন বিন্যাস [Ne] 3s1
২,৮,১
সোডিয়ামের শক্তিস্তরে ইলেকট্রনের সংখ্যা (২,৮,১)
ভৌত বৈশিষ্ট্য
দশা কঠিন
ঘনত্ব (প্রায় r.t.) 0.968 গ্রা·সেমি−৩
গলনাংকে তরলের ঘনত্ব 0.927 গ্রা·সেমি−৩
গলনাংক 370.87 কে, 97.72 °সে, 207.9 °ফা
স্ফুটনাংক 1156 কে, 883 °সে, 1621 °ফা
Critical point (extrapolated)
2573 কে, 35 MPa
ফিউশনের এনথালপি 2.60 kJ·mol−১
বাষ্পীয়করণের তাপ 97.42 kJ·mol−১
তাপ ধারকত্ব 28.230 J·mol−১·K−১
বাষ্প চাপ
P (Pa) ১০ ১০০ ১ হাজার ১০ হাজার ১ লক্ষ
at T (K) 554 617 697 802 946 1153
পারমাণবিক বৈশিষ্ট্য
জারন সংখ্যা +1, 0, -1
(strongly basic oxide)
তাড়িৎচুম্বকত্ব 0.93 (পলিং স্কেল)
আয়নীকরণ শক্তি
(বিস্তারিত)
১ম: 495.8 kJ·mol−১
২য়: 4562 kJ·mol−১
৩য়: 6910.3 kJ·mol−১
পারমানবিক ব্যাসার্ধ্য 186 pm
সমযোজী ব্যাসার্ধ 166±9 pm
ভ্যান ডার ওয়ালেস ব্যাসার্ধ 227 pm
অন্যান্য বৈশিষ্ট্য
কেলাসের গঠন কেন্দ্রমুখী ঘনক
সোডিয়ামের একটি কেন্দ্রমুখী ঘনক কেলাসের গঠন রয়েছে
চুম্বকত্ব paramagnetic
বিদ্যুৎ পরিবাহীতা (২০ °সে) 47.7 nΩ·m
তাপ পরিবহকত্ব 142 W·m−১·K−১
তাপ পরিবাহিতা (২৫ °সে) 71 µm·m−১·K−১
শব্দের গতি (পাতলা রড) (২০ °সে) 3200 m·s−১
ইয়ংয়ের গুণাঙ্ক 10 GPa
Shear modulus 3.3 GPa
Bulk modulus 6.3 GPa
কাঠিন্য মাত্রা 0.5
Brinell hardness 0.69 MPa
ক্যাস নিবন্ধন নম্বর 7440-23-5
সবচেয়ে স্থিতিশীল আইসোটোপ
মূল নিবন্ধ: সোডিয়ামের আইসোটোপ
iso NA half-life DM DE (MeV) DP
22Na trace 2.602 y β+γ 0.5454 22Ne*
1.27453(2)[১] 22Ne
εγ - 22Ne*
1.27453(2) 22Ne
β+ 1.8200 22Ne
23Na 100% Na 12টি নিউট্রন নিয়ে স্থিত হয়
· তথ্যসূত্র

সোডিয়াম একটি মৌল বা মৌলিক পদার্থ।। ১৮০৭ খ্রিস্টাব্দে স্যার হ্যামফ্রে ডেভি এটি আবিষ্কার করেন। কাপড় কাচার সোডা এবং খাওয়ার লবণে সোডিয়াম আছে। সোডিয়াম একটি ক্ষারীয় ধাতু হিসাবে পরিগণিত। সোডিয়ামের প্রতীক Na এবং পারমাণবিক সংখ্যা ১১।

আবিষ্কার[সম্পাদনা]

বৈশিষ্ট্য[সম্পাদনা]

ভৌত বৈশিষ্ট্য[সম্পাদনা]

প্রমাণ তাপমাত্রা ও চাপে সোডিয়াম একটি উজ্জ্বল রূপালী বর্ণের নরম সাদা ধাতু। এটা এতো নরম যে সাধারণ ছুরি দিয়ে একে কাটা যায়। অন্যান্য ধাতুর ন্যায় এটি ভাল বিদ্যুৎ পরিবাহীও বটে। তবে সোডিয়ামের বৈশিষ্ট্যগুলো চাপের পরিবর্তনের সাথে সাথে পরিবর্তিত হয়। উদাহরণস্বরূপ, ১.৫ মেগা বার চাপে সোডিয়ামের রং হয় কালো, ১.৯ মেগা বারে হয় লালচে ঈষদচ্ছ এবং সবশেষে ৩ মেগা বার চাপে তা পুরোপুরি স্বচ্ছ হয়ে যায় । সোডিয়াম বা এর যেকোনো যৌগ উত্তপ্ত অগ্নিশিখায় হলুদ রং ধারণ করে। যেকোনো অজানা নমুনায় সোডিয়ামের উপস্থিতি এভাবে প্রমাণিত হয়।

রাসায়নিক বৈশিষ্ট্য[সম্পাদনা]

সোডিয়ামের সক্রিয়তা পটাশিয়াম থেকে কম, তবে লিথিয়াম থেকে বেশি। অন্যান্য গ্রুপ I মৌলের ন্যায় এটি কক্ষ তাপমাত্রায় ভীষণ সক্রিয়। এটি ঠাণ্ডা পানির সাথে অত্যন্ত তীব্রভাবে বিক্রিয়া করে। (এটা প্রকৃতপক্ষে একটি প্রতিস্থাপন বিক্রিয়া, যাতে হাইড্রোজেনের অপসারণ হয়।) শুষ্ক বাতাসে সোডিয়াম পোড়ালে প্রধানত সোডিয়াম পার অক্সাইড (Na2O2) উৎপন্ন হয়। একইসাথে কিছু পরিমাণ সোডিয়াম অক্সাইডও (Na2O) উৎপন্ন হয়। সোডিয়ামের ইলেকট্রন ত্যাগের প্রবণতা খুবই বেশি। একটি ইলেকট্রন ত্যাগ করে এটি Na+ আয়নে পরিণত হয়। এর অক্সাইড ও হাইড্রোক্সাইড উভয়ই ক্ষারীয়। মুক্ত অবস্থায় রাখলে এটি বাতাসের জলীয় বাষ্পের সাথে বিক্রিয়া করে সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড (NaOH) তৈরি করে। একইসাথে কার্বন ডাই অক্সাইডের সাথে বিক্রিয়া করে সোডিয়াম কার্বনেট (Na2CO3) উৎপন্ন করে। এজন্য সবসময় সোডিয়ামকে কেরোসিন বা পেট্রোলের নিচে রাখা হয়।

কয়েকটি সোডিয়াম যৌগ[সম্পাদনা]

সকল যৌগেই সোডিয়াম আয়নিক আয়নিক বন্ধন তৈরি করে। এজন্য এর বেশিরভাগ যৌগই পানিসহ অন্যান্য পোলার দ্রাবকে দ্রবণীয়। সোডিয়ামের বহু যৌগ আমাদের দৈনন্দিন জীবন ও শিল্প কারখানায় লাগে। যেমন- আমরা যে খাবার লবণ খাই সেটার রাসায়নিক নাম হচ্ছে সোডিয়াম ক্লোরাইড (NaCl); আবার যে কাঁচ আমরা ব্যবহার করি সেটারও মূল উপাদান সোডিয়াম। সাবানের মাঝেও সোডিয়াম আছে। কাপড় কাচার সোডা এবং খাবার সোডা, দুটোই সোডিয়ামের যৌগ।

সোডিয়াম ক্লোরাইড[সম্পাদনা]

এর রাসায়নিক সংকেত NaCl । সোডিয়ামের সাথে ক্লোরিনের বিক্রিয়ায় এটি তৈরি হয়। বিশুদ্ধ NaCl স্বচ্ছ দানাদার পদার্থ। এটি পানিগ্রাসী নয়। অর্থাৎ এটা পরিবেশ থেকে পান শুষে নেয় না। তবে সাধারণ খাবার লবণে ক্যালসিয়াম ক্লোরাইডের মিশ্রণ থাকে বলে তার রং সাদা এবং এটা পানিগ্রাসী। একারণেই বর্ষাকালে খাবার লবণ খোলা অবস্থায় রাখলে ভিজে যায়।

সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড (NaOH)[সম্পাদনা]

সোডিয়ামের সাথে পানির বিক্রিয়ায় এই যৌগ তৈরি হয়। এটি একটি তীব্র ক্ষার। এসিডের সাথে বিক্রিয়া করে এটি লবণ ও পানি তৈরি করে।

রাসায়নিক বিক্রিয়া[সম্পাদনা]

ব্যবহার[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Endt, P. M. ENDT, ,1 (1990) (12/1990)। "Energy levels of A = 21-44 nuclei (VII)"। Nuclear Physics A 521: 1। ডিওআই:10.1016/0375-9474(90)90598-G 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]