অ্যাক্টিনাইড

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান

অ্যাক্টিনাইড (IUPAC nomenclature) হল ১৫টি মৌলিক পদার্থের সমন্বয়ে গঠিত পর্যায় সারণীর একটি বিশেষ শ্রেণী। ৮৯ থেকে ১০৩ পারমাণবিক সংখ্যা বিশিষ্ট মৌলগুলো এই শ্রেণীর অন্তর্ভুক্ত। অ্যাক্টিনিয়াম থেকে লরেনসিয়াম পর্যন্ত মৌলগুলোকে অ্যাক্টিনাইড মৌল বলা হয়।[২][৩][৪][৫]

গ্রুপ ৩ মৌল অ্যাক্টিনাইড থেকে এই শ্রেণীর নাম দেয়া হয়েছে অ্যাক্টিনাইড। একটি বাদে এই শ্রেণীর সবগুলো মৌল এফ-ব্লকের অন্তভুক্ত। লরেনসিয়াম মৌলটি ডি-ব্লকের অন্তর্ভুক্ত হলেও এটি অ্যক্টিনাইড শ্রেণীর মৌল।

89
Ac
90
Th
91
Pa
92
U
93
Np
94
Pu
95
Am
96
Cm
97
Bk
98
Cf
99
Es
100
Fm
101
Md
102
No
103
Lr

অ্যাক্টিনাইডসমূহের মধ্যে আদি মৌল থোরিয়াম এবং ইউরেনিয়াম প্রকৃতিতে যথেষ্ট পরিমাণ পাওয়া যায় এবং প্লুটোনিয়াম প্রকৃতির বেশ কিছু জায়গায় পাওয়া গিয়েছে। ইউরেনিয়ামের তেজষ্ক্রিয় ক্ষয়ের মাধ্যমে অল্প পরিমাণ অস্থায়ী অ্যাক্টিনিয়াম এবং প্রোটেক্টিনিয়াম তৈরী হয়। ইউরেনিয়ামের পরবর্তনের মাধ্যমে কখনো কখনো নেপচুনিয়াম, অ্যামেরিসিয়াম, কুরিয়াম, বার্কেলিয়াম এবং ক্যালিফোর্নিয়াম অণুর সৃষ্টি হয়। অন্যান্য অ্যাক্টিনাইড মৌলগুলো বিশুদ্ধ সিনথেটিক উপাদান[২][৬] পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষার সময় প্লুটোনিয়ামের তুলনায় ভারী অন্তত ছয়টি অ্যাক্টিনাইড পরিবেশে ছড়িয়ে পড়েছে। ১৯৫২ সালের হাইড্রোজেন বোমার বিষ্ফোরনের মাধ্যমে সৃষ্ট ধ্বংসাবশেষ পরীক্ষা করে অ্যামেরিসিয়াম, কুরিয়াম, বার্কেলিয়াম, ক্যালিফোর্নিয়াম, আইনস্টাইনিয়াম এবং ফার্মিয়াম এর অস্তিত্ব পাওয়া গিয়েছে। [৭]

সকল অ্যাক্টিনাইডসমূহ তেজস্ক্রিয় এবং মৌলগুলো তেজষ্ক্রিয় ক্ষয়ের মাধ্যমে শক্তি বিকিরণ করে। অ্যাক্টিনাইডসমূহের মধ্যে প্রকৃতিতে প্রাপ্ত ইউরেনিয়াম এবং থোরিয়াম, এবং কৃত্রিমভাবে তৈরী প্লুটোনিয়াম পৃথিবীতে সর্বাধিক পরিমাণে পাওয়া যায়। এই মৌলগুলো পারমাণবিক চুল্লী এবং পারমাণবিক অস্ত্র তৈরীতে ব্যবহার করা হয়। ইউরেনিয়াম এবং থোরিয়াম বহুদিন আগে থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত বিভিন্ন ধরনের কাজে ব্যবহৃত হয়ে আসছে অ্যামেরিসিয়াম মৌলসমূহ সম্প্রতি আধুনিক স্মোক ডিকেকটরের আয়োনাইজেশন চেম্বারে ব্যবহার করা হচ্ছে।

আবিষ্কার, অন্তরণ এবং সংশ্লেষণ[সম্পাদনা]

Synthesis of transuranium elements[৮][৯]
Element Year Method
Neptunium 1940 Bombarding 238U by neutrons
Plutonium 1941 Bombarding 238U by deuterons
Americium 1944 Bombarding 239Pu by neutrons
Curium 1944 Bombarding 239Pu by α-particles
Berkelium 1949 Bombarding 241Am by α-particles
Californium 1950 Bombarding 242Cm by α-particles
Einsteinium 1952 As a product of nuclear explosion
Fermium 1952 As a product of nuclear explosion
Mendelevium 1955 Bombarding 253Es by α-particles
Nobelium 1965 Bombarding 243Am by 15N
or 238U with α-particles
Lawrencium 1961–1971 Bombarding 252Cf by 10B or 11B
and of 243Am with 18O

আইসোটোপ[সম্পাদনা]

প্রকৃতিতে উপস্থিতি[সম্পাদনা]

নিষ্কাশন[সম্পাদনা]

বৈশিষ্টসমূহ[সম্পাদনা]

অ্যাক্টিনাইডসমূহের বৈশিষ্ট (দীর্ঘসময় জীবিত থাকে এমন আইসোটপ সমূহ বন্ধনীর ভেতর দেখানো হচ্ছে)[১০][১১]
বৈশিষ্ট Ac Th Pa U Np Pu Am Cm Bk Cf Es Fm Md No Lr
কোর চার্জ 89 90 91 92 93 94 95 96 97 98 99 100 101 102 103
আণবিক ভর [227] 232.0381 231.03588 238.02891 [237] [244] [243] [247] [247] [251] [252] [257] [258] [259] [262]
প্রাকৃতিক আইসোটপের সংখ্যা[১২] 3 9 5 9 4 5 5 8 2 5
প্রাকৃতিক আইসোটপ[১৩][১৪] 225, 227–228 226–232, 234–235 231, 233–236 232–240 237–240 238–240, 242, 244 241–245 242–249 249–250 249–253
দীর্ভজীবি আইসোটপ 227 232 231 238 237 244 243 247 247 251 252 257 258 259 262
Half-life of the longest-lived isotope 21.8 years 14 billion years 32,500 years 4.47 billion years 2.14 million years 80.8 million years 7,370 years 15.6 million years 1,400 years 900 years 1.29 years 100.5 days 52 days 58 min 261 min
Electronic configuration in the ground state 6d17s2 6d27s2 5f26d17s2or 5f16d27s2 5f36d17s2 5f46d17s2or 5f57s2 5f67s2 5f77s2 5f76d17s2 5f97s2or 5f86d17s2 5f107s2 5f117s2 5f127s2 5f137s2 5f147s2 5f147s27p1
অক্সাইডেশন দশা 3 3, 4 3, 4, 5 3, 4, 5, 6 3, 4, 5, 6, 7 3, 4, 5, 6, 7 2, 3, 4 3, 4 3, 4 2, 3 2, 3 2, 3 2, 3 2, 3 3
Metallic radius, nm 0.203 0.180 0.162 0.153 0.150 0.162 0.173 0.174 0.170 0.186 0.186
আয়নের পরিধি, nm:
An4+
An3+


0.126

0.114

0.104
0.118

0.103
0.118

0.101
0.116

0.100
0.115

0.099
0.114

0.099
0.112

0.097
0.110

0.096
0.109

0.085
0.098

0.084
0.091

0.084
0.090

0.084
0.095

0.083
0.088
তাপমাত্রা, °C:
গলনাঙ্ক
স্ফুটনাঙ্ক

1050
3300

1750
4800

1572
4400

1130
3800

640
3900

640
3230

1176
2610

1340

1050

900

860

1530

830

830

1630
ঘনত্ব, g/cm3 10.07 11.78 15.37 19.06 20.25 19.84 11.7 13.51 14.78
Standard electrode potential, V:
E° (An4+/An0)
E° (An3+/An0)


−2.13

−1.83

−1.47

−1.38
−1.66

−1.30
−1.79

−1.25
−2.00

−0.90
−2.07

−0.75
−2.06

−0.55
−1.96

−0.59
−1.97

−0.36
−1.98

−0.29
−1.96


−1.74


−1.20

-
−2.10
বর্ণ
[M(H2O)n]4+
[M(H2O)n]3+


Colorless

Colorless
Blue

Yellow
Dark blue

Green
Purple

Yellow-green
Purple

Brown
Violet

Red
Rose

Yellow
Colorless

Beige
Yellow-green

Green
Green


Pink








ভৌত বৈশিষ্ট[সম্পাদনা]

রাসায়নিক বৈশিষ্ট[সম্পাদনা]

যৌগসমূহ[সম্পাদনা]

অক্সাইড এবং হাইড্রোঅক্সাইড[সম্পাদনা]

লবণ[সম্পাদনা]

ব্যবহারিক দিক[সম্পাদনা]

বিসাক্তাতা[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. The Manhattan Project. An Interactive History. US Department of Energy
  2. Theodore Gray (২০০৯)। The Elements: A Visual Exploration of Every Known Atom in the Universe। New York: Black Dog & Leventhal Publishers। পৃ: ২৪০। আইএসবিএন 978-1-57912-814-2 
  3. Actinide element, Encyclopædia Britannica on-line
  4. Although "actinoid" (rather than "actinide") means "actinium-like" and therefore should exclude actinium, that element it is usually included in the series.
  5. Neil G. Connelly et al. (২০০৫)। "Elements"Nomenclature of Inorganic Chemistry। London: Royal Society of Chemistry। পৃ: ৫২। আইএসবিএন 0-85404-438-8 
  6. Greenwood, p. 1250
  7. Fields, P.; Studier, M.; Diamond, H.; Mech, J.; Inghram, M.; Pyle, G.; Stevens, C.; Fried, S. এবং অন্যান্য (১৯৫৬)। "Transplutonium Elements in Thermonuclear Test Debris"। Physical Review 102 (1): ১৮০। ডিওআই:10.1103/PhysRev.102.180বিবকোড:1956PhRv..102..180F 
  8. Greenwood, p. 1252
  9. Nobelium and lawrencium were almost simultaneously discovered by Soviet and American scientists
  10. Yu.D. Tretyakov, সম্পাদক (২০০৭)। Non-organic chemistry in three volumes। Chemistry of transition elements 3। Moscow: Academy। আইএসবিএন 5-7695-2533-9 
  11. Greenwood, p. 1263
  12. John Emsley (১১ আগস্ট ২০০৩ ২০০১)। "Protactinium"Nature's Building Blocks: An A-Z Guide to the Elements। Oxford, England, UK: Oxford University Press। পৃ: 347–349। আইএসবিএন 0-19-850340-7 
  13. John Emsley (২০১১)। Nature's Building Blocks: An A-Z Guide to the Elements (New সংস্করণ)। New York, NY: Oxford University Press। আইএসবিএন 978-0-19-960563-7 
  14. Peterson, Ivars (৭ ডিসেম্বর ১৯৯১)। "Uranium displays rare type of radioactivity"। Science News। 
  15. Greenwood, p. 1265

গ্রন্থবিবরণী[সম্পাদনা]

আরও পড়ুন[সম্পাদনা]

  • Morss, Lester R.; Edelstein, Norman M.; Fuger, Jean, সম্পাদকবৃন্দ (২০০৬)। The Chemistry of the Actinide and Transactinide Elements (3rd সংস্করণ)। Dordrecht, The Netherlands: Springer। আইএসবিএন 978-1-4020-3555-5 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]