আউফবাউ নীতি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search

আউফবাউ নীতি কোন অণু,পরমাণু বা আয়নের ইলেক্ট্রনীয় গঠন নির্ধারণে ব্যবহার করা হয়। এটি 3d ও 4s অরবিটালদ্বের ইলেকট্রন ধারনক্ষমতার ধারাবাহিকতা প্রকাশ করে।

পরমানুর ইলেকট্রন সমূহ এর অরবিটালের শক্তির উচ্চ ক্রম অনুসারে প্রবেশ করে। অর্থাৎ পরমানুর অরবিাটলে ইলেকট্রন প্রবেশ করার সময় প্রথমে নিম্ন শক্তির অরবিটাল পূর্ণ হবে এবং ক্রমান্বয়ে উচ্চশক্তির অরবিটাল ইলেকট্রন দ্বারা পূর্ণ হবে। এই নিয়ম আউফবাউ নীতি নামে পরিচিত।

দুটি অরবিটালের মধ্যে কোনটির শক্তি কম বা বেশি তা অরবিটাল দ্বয়ের প্রধান কোয়ান্টাম সংখ্যা ও সহকারী কোয়ান্টার সংখ্যা দ্বারা নির্ণয় করা হয়।

প্রধান কোয়ান্টাম সংখ্যা (n) ও সহকারী কোয়ান্টার সংখ্যা (l) এর যোগফল (n+l) এর মাধ্যমে কোনো অরবিটালের শক্তি নির্ণয় করা হয়।

যেমন: 3d ও 4s অরবিটালের মধ্যে – 3d এর জন্য n=3 এবং l=2 সুতরাং n+l = 3+2=5 4s এর জন্য n=4 এবং l=0 সুতরাং n+l = 4+0=4

4s অরবিটালের শক্তি কম। সুতরাং 4s অরবিটালে আগে ইলেকট্রন প্রবেশ করবে,পরে 3d অরটিলে ইলেকট্রন প্রবেশ করবে।

1s < 2s < 2p < 3s < 3p < 4s < 3d < 4p < 5s < 4d < 5p < 6s < 4f < 5d < 6p < 7s

তবে d এবং f উপস্তর এর বিন্যাস একটু ভিন্ন রকমের

যদি d উপস্তর পূর্ণ বা অর্ধ পূর্ণ হওয়ার জন্য ১টি ইলেকট্রন কম থাকে অর্থাৎ ৯টি/৪টি ইলেকট্রন থাকে তাহলে পরবর্তী উপস্তর থেকে একটি ইলেকট্রন d উপস্তরে স্থানান্তরিত হয় । উদাহরণঃ Cr(24), Cu(29), Mo (42), Ag (47) এর ইলেকট্রন বিন্যাস ।

আর Ra (88) এর উপস্তর 7s পূর্ণ হওয়ার পর বর্ণিত ধারা অনুযায়ী Ac(89) এ বাড়তি ইলেকট্রন 5f এ প্রবেশ না করে 6d তে প্রবেশ করে । অবশ্য এর পর ইলেকট্রন গুলো Pa(91) থেকে Lr(103) পর্যন্ত মৌল গুলোতে এক এক করে 5f এ প্রবেশ করে । Lr(103) মৌলে 5f পূর্ণ হওয়ার পর নিয়মানুযায়ী 6d উপস্তর ইলেকট্রন প্রবেশ করতে থাকে ।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]


আরো পড়ুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]