ম্যাগনেসিয়াম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন


ম্যাগনেসিয়াম   ১২Mg
Magnesium crystals.jpg
Magnesium Spectra.jpg
Spectral lines of Magnesium
পরিচয়
নাম, প্রতীকম্যাগনেসিয়াম, Mg
উচ্চারণ/mæɡˈnziəm/, mag-NEE-zee-əm
উপস্থিতিshiny grey solid
পর্যায় সারণীতে ম্যাগনেসিয়াম
হাইড্রোজেন (other non-metal)
হিলিয়াম (noble gas)
লিথিয়াম (alkali metal)
বেরিলিয়াম (alkaline earth metal)
বোরন (metalloid)
কার্বন (other non-metal)
নাইট্রোজেন (other non-metal)
অক্সিজেন (other non-metal)
ফ্লোরিন (halogen)
নিয়ন (noble gas)
সোডিয়াম (alkali metal)
ম্যাগনেসিয়াম (alkaline earth metal)
অ্যালুমিনিয়াম (post-transition metal)
সিলিকন (metalloid)
ফসফরাস (other non-metal)
সালফার (other non-metal)
ক্লোরিন (halogen)
আর্গন (noble gas)
পটাশিয়াম (alkali metal)
ক্যালসিয়াম (alkaline earth metal)
স্ক্যানডিয়াম (transition metal)
টাইটানিয়াম (transition metal)
ভ্যানাডিয়াম (transition metal)
ক্রোমিয়াম (transition metal)
ম্যাঙ্গানিজ (transition metal)
লোহা (transition metal)
কোবাল্ট (transition metal)
নিকেল (transition metal)
তামা (transition metal)
দস্তা (transition metal)
গ্যালিয়াম (post-transition metal)
জার্মেনিয়াম (metalloid)
আর্সেনিক (metalloid)
সেলেনিয়াম (other non-metal)
ব্রোমিন (halogen)
ক্রিপ্টন (noble gas)
রুবিডিয়াম (alkali metal)
স্ট্রনসিয়াম (alkaline earth metal)
ইটরিয়াম (transition metal)
জিরকোনিয়াম (transition metal)
নাইওবিয়াম (transition metal)
মলিবডিনাম (transition metal)
টেকনিসিয়াম (transition metal)
রুথেনিয়াম (transition metal)
রোহডিয়াম (transition metal)
প্যালাডিয়াম (transition metal)
রুপা (transition metal)
ক্যাডমিয়াম (transition metal)
ইন্ডিয়াম (post-transition metal)
টিন (post-transition metal)
অ্যান্টিমনি (metalloid)
টেলুরিয়াম (metalloid)
আয়োডিন (halogen)
জেনন (noble gas)
সিজিয়াম (alkali metal)
বেরিয়াম (alkaline earth metal)
ল্যান্থানাম (lanthanoid)
সিরিয়াম (lanthanoid)
প্রাসিওডিমিয়াম (lanthanoid)
নিওডিমিয়াম (lanthanoid)
প্রমিথিয়াম (lanthanoid)
সামারিয়াম (lanthanoid)
ইউরোপিয়াম (lanthanoid)
গ্যাডোলিনিয়াম (lanthanoid)
টারবিয়াম (lanthanoid)
ডিসপ্রোসিয়াম (lanthanoid)
হলমিয়াম (lanthanoid)
এরবিয়াম (lanthanoid)
থুলিয়াম (lanthanoid)
ইটারবিয়াম (lanthanoid)
লুটেসিয়াম (lanthanoid)
হ্যাফনিয়াম (transition metal)
ট্যানটালাম (transition metal)
টাংস্টেন (transition metal)
রিনিয়াম (transition metal)
অসমিয়াম (transition metal)
ইরিডিয়াম (transition metal)
প্লাটিনাম (transition metal)
সোনা (transition metal)
পারদ (transition metal)
থ্যালিয়াম (post-transition metal)
সীসা (post-transition metal)
বিসমাথ (post-transition metal)
পোলোনিয়াম (post-transition metal)
এস্টাটিন (halogen)
রেডন (noble gas)
ফ্রান্সিয়াম (alkali metal)
রেডিয়াম (alkaline earth metal)
অ্যাক্টিনিয়াম (actinoid)
থোরিয়াম (actinoid)
প্রোটেক্টিনিয়াম (actinoid)
ইউরেনিয়াম (actinoid)
নেপচুনিয়াম (actinoid)
প্লুটোনিয়াম (actinoid)
অ্যামেরিসিয়াম (actinoid)
কুরিয়াম (actinoid)
বার্কেলিয়াম (actinoid)
ক্যালিফোর্নিয়াম (actinoid)
আইনস্টাইনিয়াম (actinoid)
ফার্মিয়াম (actinoid)
মেন্ডেলেভিয়াম (actinoid)
নোবেলিয়াম (actinoid)
লরেনসিয়াম (actinoid)
রাদারফোর্ডিয়াম (transition metal)
ডুবনিয়াম (transition metal)
সিবোরজিয়াম (transition metal)
বোহরিয়াম (transition metal)
হ্যাসিয়াম (transition metal)
মিটনেরিয়াম (unknown chemical properties)
ডার্মস্টেটিয়াম (unknown chemical properties)
রন্টজেনিয়াম (unknown chemical properties)
কোপার্নিসিয়াম (transition metal)
ইউনুনট্রিয়াম (unknown chemical properties)
ফেরোভিয়াম (unknown chemical properties)
ইউনুনপেন্টিয়াম (unknown chemical properties)
লিভেরমোরিয়াম (unknown chemical properties)
ইউনুনসেপটিয়াম (unknown chemical properties)
ইউনুনকটিয়াম (unknown chemical properties)
Be

Mg

Ca
সোডিয়ামম্যাগনেসিয়ামঅ্যালুমিনিয়াম
পারমাণবিক সংখ্যা12
আদর্শ পারমাণবিক ভর24.3050(6)
মৌলের শ্রেণীমৃৎ ক্ষার ধাতু
শ্রেণী, পর্যায়, ব্লক, পর্যায় 3, s-ব্লক
ইলেকট্রন বিন্যাস[Ne] 3s2
per shell: 2, 8, 2
ভৌত বৈশিষ্ট্য
দশাকঠিন
গলনাঙ্ক923 কে ​(650 °সে, ​1202 °ফা)
স্ফুটনাঙ্ক1363 K ​(1091 °সে, ​1994 °ফা)
ঘনত্ব (ক.তা.-র কাছে)1.738 g·cm−৩ (০ °সে-এ, ১০১.৩২৫ kPa)
তরলের ঘনত্বm.p.: 1.584 g·cm−৩
ফিউশনের এনথালপি8.48 kJ·mol−১
বাষ্পীভবনের এনথালপি128 kJ·mol−১
তাপ ধারকত্ব24.869 J·mol−১·K−১
বাষ্প চাপ
P (Pa) ১০ ১০০ ১ k ১০ k ১০ k
at T (K) 701 773 861 971 1132 1361
পারমাণবিক বৈশিষ্ট্য
জারণ অবস্থা2, 1 [১] ​strongly basic oxide
তড়িৎ-চুম্বকত্ব1.31 (পলিং স্কেল)
আয়নীকরণ বিভব
(আরও)
পারমাণবিক ব্যাসার্ধempirical: 160 pm
সমযোজী ব্যাসার্ধ141±7 pm
ভ্যান ডার ওয়ালস ব্যাসার্ধ173 pm
বিবিধ
কেলাসের গঠনhexagonal
Hexagonal জন্য কেলাসের গঠন{{{name}}}
শব্দের দ্রুতিপাতলা রডে: (annealed)
4940 m·s−১ (at r.t.)
তাপীয় প্রসারাঙ্ক24.8 µm·m−১·K−১ (২৫ °সে-এ)
তাপীয় পরিবাহিতা156 W·m−১·K−১
তড়িৎ রোধকত্ব ও পরিবাহিতা২০ °সে-এ: 43.9 n Ω·m
চুম্বকত্বparamagnetic
ইয়ংয়ের গুণাঙ্ক45 GPa
কৃন্তন গুণাঙ্ক17 GPa
আয়তন গুণাঙ্ক45 GPa
পোয়াসোঁর অনুপাত0.290
(মোজ) কাঠিন্য2.5
ব্রিনেল কাঠিন্য260 MPa
ক্যাস নিবন্ধন সংখ্যা7439-95-4
সবচেয়ে স্থিতিশীল আইসোটোপ
মূল নিবন্ধ: ম্যাগনেসিয়ামের আইসোটোপ
iso NA অর্ধায়ু DM DE (MeV) DP
24Mg 78.99% Mg 12টি নিউট্রন নিয়ে স্থিত হয়
25Mg 10% Mg 13টি নিউট্রন নিয়ে স্থিত হয়
26Mg 11.01% Mg 14টি নিউট্রন নিয়ে স্থিত হয়
· তথ্যসূত্র

ম্যাগনেসিয়াম একটি রাসায়নিক পদার্থ যা এমজি প্রতীক দ্বারা চিহ্নিত করা হয় এবং এর পারমাণবিক সংখ্যা ১২। এটি একটি চকচকে ধূসর বর্ণের ধাতু যা পর্যায় সারণির দ্বিতীয় স্তম্ভের বাকি ৫ টি ( গ্রুপ ২, বা মৃৎক্ষার ধাতু) পদার্থের সাথে বাহ্যিক সামঞ্জস্যপূর্ণ। ২য় গ্রুপের সকল মৌলগুলোর শেষ শক্তিস্তরে একই রকম ইলেক্ট্রনীয় বৈশিষ্ট্য বিদ্যমান এবং মৌলগুলো অনুরূপ স্ফটিক গঠন বিশিষ্ট।

মহাজগতে মৌলের প্রাচুর্যের দিক বিচারে ম্যাগনেসিয়াম নবম স্থানে রয়েছে। এটা উৎপন্ন হয় বিশাল এবং পুরানো তারকায় ২টি হিলিয়াম নিউক্লিয়াস ও একটি কার্বন নিউক্লিয়াসের সাথে অনুক্রমিকভাবে যুক্ত হয়ে। যখন এসব তারকা সুপারনোভা বা অতিনবতারা হিসেবে বিষ্ফোরিত হয়, এতে বিপুল পরিমানে ম্যাগনেসিয়াম মহাশূন্যে ছড়িয়ে পড়ে যা পরবর্তীতে পুনরায় নতুন তারকা সৃষ্টিতে ব্যবহৃত হতে পারে। পৃথিবীর ভূত্বকের উপাদানের প্রাচুর্যের দিক থেকে অষ্টম মৌল এবং লোহা, অক্সিজেন এবং সিলিকনের পর এটা চতুর্থতম সুলভ উপাদান যা পৃথিবীর ১৩% ভর এবং আবরনের বিশাল অংশ সৃষ্টি করে। সোডিয়াম এবং ক্লোরিনের পর সমুদ্রজলে সবচেয়ে বেশি দ্রবীভূত উপাদানের মধ্যে এটি তৃতীয়।

ম্যাগনেসিয়াম স্বাভাবিকভাবেই অন্যান্য উপাদানের সাথে মিলিত হয়, যেখানে এটি অনির্দিষ্টভাবে একটি +2 অক্সিডেশন অবস্থায় থাকে।এই মুক্ত মৌলটি(ধাতু) কৃত্রিমভাবে তৈরী করা যায় এবং এটি খুব বেশি সক্রিয়(যদিও বায়ুমন্ডলের উপস্থিতিতে এর ওপর অক্সাইডের একটি পাতলা আবরন তৈরী হয় যা ধাতুটির সক্রিয়তা হ্রাস করে)। ধাতুটি খুব উজ্জ্বল সাদা অলো উৎপন্ন করে পুড়ে। এটি এখন মূখ্যভাবে সমুদ্রজলে উপস্থিত থাকা ম্যাগনেসিয়াম লবণ এর তড়িৎ বিশ্লেষনের মাধ্যমে সংগ্রহ করা হয় এবং অ্যালুমিনিয়াম-ম্যাগনেসিয়াম সংকর ধাতুর(ম্যাগনেলিয়াম বা ম্যাগনালিয়াম) একটি উপাদান হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

মানবদেহে ভরের দিক থেকে সবচেয়ে বেশি পাওয়া যায় এরকম উপাদানের মধ্যে ম্যাগনেসিয়াম এগারোতম উপাদান এবং এটি দেহের প্রত্যেকটি কোষ এবং ৩০০ টি এনজাইমের[২] জন্য প্রয়োজনীয়।ম্যাগনেসিয়াম আয়ন এটিপি, ডিএনএ এবং আরএনএ হিসাবে পলিফসফেট যৌগের সাথে ক্রিয়া করে। এনজাইমের শত শত কাজ করতে ম্যাগনেসিয়াম আয়ন প্রয়োজন। ম্যাগনেসিয়াম যৌগগুলি সাধারণ ল্যাক্সটিভস, অ্যান্টাকিডস (যেমন, ম্যাগনেসিয়া দুধ), এবং অ্যাক্ল্যাম্প্সিয়ার মতো অস্বাভাবিক নার্ভ উত্তেজক বা রক্তবাহী নালী স্থিতিশীল করতে ব্যবহৃত হয়।

বৈশিষ্ট্য[সম্পাদনা]

বাহ্যিক বৈশিষ্ট্য[সম্পাদনা]

বাহ্যিকভাবে ম্যাগনেসিয়াম হলো ধূসর-সাদা হাল্কা ধাতু যা অ্যালুমিনিয়ামের ঘনত্বের দুই-তৃতীয়াংশ। বায়ুর উপস্থিতিতে সামান্য পরিমাণে এটি ক্ষয় হয়, যদিও ভারী মৃৎক্ষার ধাতুগুলি এর বিপরীত। সংরক্ষনের জন্য অক্সিজেন মুক্ত পরিবেশ অপ্রয়োজনীয় কারণ ম্যাগনেসিয়াম অক্সাইডের পাতলা স্তর দ্বারা ধাতুটি সুরক্ষিত থাকে যা মোটামুটি সরানো কঠিন বা প্রায় অসম্ভব। সমস্ত মৃৎক্ষার ধাতুর মধ্যে ম্যাগনেসিয়াম সর্বনিম্ন গলনাংক (৯২৩ কেলভিন (১,২০২ ডিগ্রি ফারেনহাইট)) এবং সর্বনিম্ন স্ফুটনাংক বিন্দু (১,৩৬৩ কেলভিন (1,994 ডিগ্রী ফারেনহাইট) বিশিষ্ট।

ম্যাগনেসিয়াম ঘরের তাপমাত্রায় জলের সাথে প্রতিক্রিয়া জানায়, যদিও এটি ক্যালসিয়ামের তুলনায় অনেক ধীরে ধীরে প্রতিক্রিয়া করে, একই গ্রুপ 2 ধাতব। জলে ডুবে গেলে হাইড্রোজেন বুদবুদগুলি ধীরে ধীরে ধাতব পৃষ্ঠের উপরে গঠন করে - যদিও, যদি এটি গুঁড়ো করা হয় তবে এটি আরও বেশি দ্রুত প্রতিক্রিয়া দেখায়। উচ্চতর তাপমাত্রার সাথে প্রতিক্রিয়াটি দ্রুত ঘটে ( নিরাপত্তার সতর্কতা দেখুন )। জলের সাথে ম্যাগনেসিয়ামের বিপরীত প্রতিক্রিয়া শক্তি সঞ্চয় করতে এবং একটি ম্যাগনেসিয়াম-ভিত্তিক ইঞ্জিন চালনার জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে।

ম্যাগনেসিয়াম বেশিরভাগ অ্যাসিডের সাথে অত্যধিকভাবে বিক্রিয়া করে ধাতব ক্লোরাইড এবং হাইড্রোজেন গ্যাস উৎপাদন করে যা হাইড্রোক্লোরিক এসিড (এইচসিএল) এর সাথে অ্যালুমিনিয়াম, দস্তা এবং অন্যান্য অনেক ধাতুর বিক্রিয়ার অনুরূপ।

খাঁটি পলিক্রিস্টালিন ম্যাগনেসিয়াম ভঙ্গুর এবং শিয়ার ব্যান্ডগুলি সহ সহজেই ফ্র্যাকচার হয়। 1% অ্যালুমিনিয়াম, অল্প পরিমাণে এর সঙ্গে মিশ্রিত করলে এটি অনেক বেশি নমনীয় হয়ে ওঠে।

রাসায়নিক বৈশিষ্ট্য[সম্পাদনা]

দাহ্যতা[সম্পাদনা]

ম্যাগনেসিয়াম অত্যন্ত দাহ্য হয়, বিশেষ করে যখন গুঁড়া বা পাতলা চাঁচা(রিবন) জ্বালানো হয়, যদিও ভর বা বাল্কের মধ্যে জ্বলতে অসুবিধা হয়। ম্যাগনেসিয়াম এবং ম্যাগনেসিয়াম অ্যালয় এর শিখা তাপমাত্রা ৩,১০০ ডিগ্রি সেলসিয়াস (৫,৬১০ ডিগ্রি ফারেনহাইট) পৌঁছাতে পারে, যদিও ধাতুটির উপরে প্রজ্জ্বলিত শিখা উচ্চতা সাধারণত ৩০০ মিমি (১২ ইঞ্চি) কম। একবার জ্বললে এটি নেভানো কষ্টকর কারণ দহনে ম্যাগনেসিয়াম নাইট্রোজেন (ম্যাগনেসিয়াম নাইট্রাইড গঠন), কার্বন ডাই অক্সাইড (ম্যাগনেসিয়াম অক্সাইড এবং কার্বন গঠন), এবং পানি (ম্যাগনেসিয়াম অক্সাইড এবং হাইড্রোজেন গঠন) এর সাথে বিক্রিয়া করে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় শহরগুলোতে আগ্নেয়াস্ত্রের হামলায় ব্যবহৃত অস্ত্রগুলোর মধ্যে এটিও ব্যবহৃত হয়েছিল, যেখানে একমাত্র ব্যবহারিক নাগরিক প্রতিরক্ষাকারীরা এই জ্বলন থেকে তাদের প্রয়োজনীয় বায়ুমণ্ডলকে মুক্তি দেয়ার জন্য শুষ্ক বালির নিচে আশ্রয় নেয়।

ম্যাগনেসিয়ামটি থার্মাইটের জন্য প্রজ্বলক হিসাবেও ব্যবহার করা যেতে পারে, একটি অ্যালুমিনিয়াম এবং লোহা-অক্সাইড গুঁড়া মিশ্রণ যা শুধুমাত্র খুব উচ্চ তাপমাত্রায় জ্বলতে পারে

জৈব রসায়ন[সম্পাদনা]

জৈব রসায়নে অর্গানোগ্যাগনেসিয়াম যৌগগুলোর পরিসর ব্যাপক। তারা সাধারণত গ্রিগনার্ড রিএজেন্ট হিসাবে পাওয়া যায়। ম্যাগনেসিয়াম গ্রিগনার্ড রিএজেন্ট দিতে Haloalkanes সঙ্গে বিক্রিয়া করতে পারেন। গ্রিনগার্ড রিএজেন্টগুলির উদাহরণগুলি হল ফিনাইলম্যাগনেসিয়াম ব্রোমাইড এবং ইথাইলম্যাগনেসিয়াম ব্রোমাইড। গ্রাইগার্ড রিজেন্টস একটি সাধারণ নিউক্লিওফিল হিসাবে কাজ করে, কার্বনিল গ্রুপের মেরু বন্ধনের মধ্যে উপস্থিত কার্বন পরমাণুর মতো ইলেক্ট্রোফিলিক গ্রুপকে আক্রমণ করে।

গ্রিগনার্ড রিএজেন্টস ছাড়িয়ে একটি বিশিষ্ট অর্গোন্যাগনেসিয়াম রিএজেন্ট হ'ল ম্যাগনেসিয়াম অ্যানথ্রেসিন যা ম্যাগনেসিয়াম কেন্দ্রীয় রিংয়ের উপরে একটি 1,4-সেতু গঠন করে। এটি অত্যন্ত সক্রিয় ম্যাগনেসিয়ামের উৎস হিসাবে ব্যবহৃত হয়। এর সাথে সম্পর্কিত butadiene -magnesium adduct butadiene dianion জন্য একটি উৎস হিসেবে কাজ করে।

আলোর উৎস[সম্পাদনা]

বাতাসে জ্বলতে থাকা অবস্থায় ম্যাগনেসিয়াম একটি উজ্জ্বল-সাদা আলো তৈরি করে যার মধ্যে শক্তিশালী অতিবেগুনী তরঙ্গদৈর্ঘ্য অন্তর্ভুক্ত। ম্যাগনেসিয়াম পাউডার ( ফ্ল্যাশ পাউডার ) ফটোগ্রাফির প্রথম দিনগুলিতে বিষয় আলোকসজ্জার জন্য ব্যবহৃত হত। [৩][৪] পরে, ম্যাগনেসিয়াম ফিলামেন্ট বৈদ্যুতিকভাবে জ্বলিত একক-ব্যবহার ফটোগ্রাফি ফ্ল্যাশবুলগুলিতে ব্যবহৃত হত। ম্যাগনেসিয়াম গুঁড়ো আতশবাজি এবং সামুদ্রিক শিখাতে ব্যবহৃত হয় যেখানে একটি উজ্জ্বল সাদা আলো প্রয়োজন। এটি বিভিন্ন নাট্য প্রভাবের জন্যও ব্যবহার করা হয়েছিল,[৫] যেমন বজ্রপাত,[৬] পিস্তল জ্বলে,[৭] এবং অতিপ্রাকৃত উপস্থিতি। [৮]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Bernath, P. F., Black, J. H., & Brault, J. W. (১৯৮৫)। "The spectrum of magnesium hydride" (PDF)298: 375। doi:[//doi.org/10.1086%2F163620%0Ajournal%3D+Astrophysical+Journal 10.1086/163620 journal= Astrophysical Journal] |doi= এর মান পরীক্ষা করুন (সাহায্য)বিবকোড:1985ApJ...298..375B  line feed character in |doi= at position 15 (সাহায্য)
  2. "Dietary Supplement Fact Sheet: Magnesium"। Office of Dietary Supplements, US National Institutes of Health। ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৩ অক্টোবর ২০১৬ 
  3. Hannavy, John (২০১৩)। Encyclopedia of Nineteenth-Century Photography। Routledge। পৃষ্ঠা 84। আইএসবিএন 978-1135873271 
  4. Scientific American: Supplement। Munn and Company। ১৮৯৯। পৃষ্ঠা 20035। 
  5. Billboard। Nielsen Business Media, Inc.। ১৯৭৪। পৃষ্ঠা 20। 
  6. Altman, Rick (২০০৭)। Silent Film Sound। Columbia University Press। পৃষ্ঠা 41। আইএসবিএন 978-0231116633 
  7. Lindsay, David (২০০৫)। Madness in the Making: The Triumphant Rise & Untimely Fall of America's Show Inventors। iUniverse। পৃষ্ঠা 210। আইএসবিএন 978-0595347667 
  8. McCormick, John; Pratasik, Bennie (২০০৫)। Popular Puppet Theatre in Europe, 1800–1914। Cambridge University Press। পৃষ্ঠা 106। আইএসবিএন 978-0521616157