বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টি (লেনিন পন্থী)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (লেনিনবাদী)
সংক্ষেপেবিসিপি (এল)
নেতারাশেদ খান মেনন
সাধারণ সম্পাদকঅমল সেন
প্রতিষ্ঠাতাকাজী জাফর আহমেদ
প্রতিষ্ঠা১৯৭১
বিভক্তিপূর্ব পাকিস্তান কমিউনিস্ট পার্টি
মতাদর্শসাম্যবাদ
মার্কসবাদ–লেনিনবাদ
বাংলাদেশের রাজনীতি
রাজনৈতিক দল
নির্বাচন

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (লেনিনবাদী) ছিল বাংলাদেরর কমিউনিস্ট পার্টি । বিসিপি (এল) একাত্তরের শরতে বেশ কয়েকটি ছোট কমিউনিস্ট বিচ্ছিন্ন দল নিয়ে কলকাতায় প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। বিসিপির (এল) প্রতিষ্ঠার মূল সংগঠক ছিলেন কমিউনিস্ট সমন্বয় কেন্দ্র থেকে কাজী জাফর আহমেদ, রাশেদ খান মেনন এবং হায়দার আকবর খান রনো, অমল সেন এবং নজরুল ইসলাম এবং কমিউনিস্ট সংহতি কেন্দ্রের হাতিয়ার গ্রুপ থেকে নাসিম আলী। কমিউনিস্ট সমন্বয় কেন্দ্র ছাত্র আন্দোলন থেকেই উদ্ভূত হয়েছিল এবং কমিউনিস্ট সংহতি কেন্দ্র পূর্ব পাকিস্তান কমিউনিস্ট পার্টির (মার্কসবাদী-লেনিনবাদী) একটি বিচ্ছিন্ন গ্রুপ ছিল যারা খতম লাইনের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করেছিল।

দলের সম্পাদক নির্বাচিত হন অমল সেন। বিসিপি (এল) নিজেকে মস্কো বা পিকিংয়ের অনুগত হিসাবে প্রত্যাশা করেছিল। বিসিপি (এল) এর ভিত্তি থেকেই ভারতীয় কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী) এর সাথে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ ছিল। ১৯৭৩ সালে এটি জাতীয় আওয়ামী পার্টি (ভাষানী) গঠিত বিরোধী জোটের অংশ হয়।

দলটি ১৯৭৩ সালের সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিল।[১] ১৯৭৪ সালে বিসিপি (এল) ইউনাইটেড পিপলস পার্টিকে তাদের উন্মুক্ত সম্মুখ দল হিসাবে চালু করে। ১৯৭৯ সালে কাজী জাফর আহমদ দল ত্যাগ করে জিয়াউর রহমানের সাথে যোগ দেন। ১৯৮০ সালে, জোসেফ স্টালিনের ১০০ তম জন্মবার্ষিকীতে, বিসিপি (এল) অন্য কয়েকটি দলের সাথে একীভূত হয়ে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি গঠন করে।[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Nohlen, Dieter, Florian Grotz, and Christof Hartmann. Elections in Asia and the Pacific: A Data Handbook. Vol. I, the Middle East, Central Asia and South Asia. Elections worldwide. Oxford: Oxford University Press, 2001. pp. 530, 535
  2. হক, মনজুরুল (ফেব্রুয়ারি ২০১৮)। "প্রথম অধ্যায়"। পূর্ব বাংলার সাত দশকের কমিউনিস্ট রাজনীতি (১ সংস্করণ)। ঢাকা: ঐতিহ্য। পৃষ্ঠা ১২৯। আইএসবিএন 978-9847764187 |আইএসবিএন= এর মান পরীক্ষা করুন: checksum (সাহায্য)