তাকাআকি কাজিতা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
তাকাআকি কাজিতা
梶田隆章
Takaaki Kajita 5171-2015.jpg
জন্ম (1959-03-09) ৯ মার্চ ১৯৫৯ (বয়স ৬৩)
জাতীয়তাজাপানি
শিক্ষাসাইতামা প্রিফেকচারাল কাওগয়ে হাই স্কুল
মাতৃশিক্ষায়তনসাইতামা বিশ্ববিদ্যালয় (B.S.)
টোকিও বিশ্ববিদ্যালয় (M.S., Ph.D.)
দাম্পত্য সঙ্গীমিচিকো
পুরস্কারআসাহি পুরস্কার (১৯৮৮)
Bruno Rossi Prize (1989)
নিশিনা স্মৃতি পুরস্কার (১৯৯৯)
Panofsky Prize (2002)
জাপান একাডেমি পুরস্কার (২০১২)
Nobel prize medal.svg পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার (২০১৫)
বৈজ্ঞানিক কর্মজীবন
প্রতিষ্ঠানসমূহমহাবিশ্ব রশ্মি গবেষণা ইন্সটিটিউট, টোকিও বিশ্ববিদ্যালয়
ডক্টরাল উপদেষ্টামাসাতোশি কোশিবা
অন্যান্য শিক্ষায়তনিক উপদেষ্টাYoji Totsuka

তাকাআকি কাজিতা (জাপানি: 梶田 隆章; জন্ম: ৯ মার্চ ১৯৫৯) একজন জাপানি পদার্থবিজ্ঞানীকামিওকান্দে এবং এর উত্তরসূরী সুপার-কামিওকান্দে-তে নিউট্রিনোর উপর গবেষণার জন্য তিনি বিখ্যাত। ২০১৫ সালে তিনি যৌথভাবে কানাডার আর্থার ম্যাকডোনাল্ডের সাথে পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন। ২০১৯ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫২ তম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে তিনি বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের কাছ থেকে বিশেষ সম্মাননা লাভ করেন।

জীবনী[সম্পাদনা]

কাজিতা ১৯৫৯ সালে জাপানের হিগাইশিমাতসুয়ামা, সাইতামায় জন্ম গ্রহণ করেন। [১] তার স্ত্রী মিচিকো টোয়ামায় বসবাস করেন। [২]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

[৩]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Takaaki Kajita - Facts"নোবেল ফাউন্ডেশন। ৬ অক্টোবর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৬ অক্টোবর ২০১৫ 
  2. "Japan's Takaaki Kajita shares Nobel in physics"Japan Times। ৬ অক্টোবর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৭ অক্টোবর ২০১৫ 
  3. "The Nobel Prize in Physics 2015".. Nobelprize.org. Nobel Media AB 2014. Web. 6 October 2015.