২০২০ ভারতে বৈশ্বিক মহামারী রোধে ভারতের রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকার কর্তৃক আরোপিত বিধি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
লকডাউনের আওতায় থাকা রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলি (২২ শে মার্চ ২০২০ পর্যন্ত)
  পূর্ণ অবরুদ্ধকরণ

ভারতের রাজ্য সরকারগুলি ২০২০ ভারতে করোনাভাইরাসের বৈশ্বিক মহামারীর সময়ে, ভাইরাসটির ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে যাওয়া নিয়ন্ত্রণ করার উদ্দেশ্যে বিভিন্ন জরুরী ঘোষণা, সংস্থা, জমায়েত কেন্দ্রগুলি অবরুদ্ধকরণ (লকডাউন) এবং অন্যান্য বিধিনিষেধের বিভিন্ন প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে।

রাজ্য স্তরের বিধিবিধান[সম্পাদনা]

সারণিতে ২০২০ সালের ২৪ মার্চের আগে সংশ্লিষ্ট রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকার কর্তৃক আরোপিত রাজ্য স্তরের বিধিমালা তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। ২৪ মার্চ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, ২৫ মার্চ রাত ১২ টা থেকে তিন সপ্তাহের জন্য দেশব্যাপী অবরুদ্ধকরণ বা লকডাউন করার নির্দেশ দিয়েছেন।[১]

রাজ্য/কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ধারা ১৪৪

ঘোষনা
অবরুদ্ধকরণ
(লকডাউন)
পরিষেবা বন্ধ তথ্যসূত্র
বিদ্যালয় সিনেমা/

মল
[ক]
সর্বসাধারণ বেসরকারী
আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ না না না না না না
অন্ধ্রপ্রদেশ ২৩ মার্চ[খ] হ্যা হ্যা হ্যা হ্যা [২][৩][৪]
অরুণাচল প্রদেশ না না না হ্যা [৫]
আসাম না না
বিহার হ্যা
চণ্ডীগড় আংশিক
ছত্তিশগড় আংশিক
দমন ও দিউ না না
দিল্লি ২৩ মার্চ হ্যা হ্যা হ্যা হ্যা হ্যা
গোয়া না আংশিক না না না না
গুজরাত ২২ মার্চ[গ] হ্যা হ্যা হ্যা হ্যা [৬][৭][৮]
হরিয়াণা না হ্যা হ্যা [৯]
হিমাচল প্রদেশ হা না
জম্মু ও কাশ্মীর আংশিক
ঝাড়খণ্ড হ্যা
কর্ণাটক ২৪ মার্চ [১০]
কেরল না হ্যা [১১]
লাদাখ না
লক্ষদ্বীপ না না না
মধ্যপ্রদেশ আংশিক হ্যা হ্যা
মহারাষ্ট্র ২৩ মার্চ হ্যা [১২]
মণিপুর না না [১৩]
মেঘালয় হ্যা
মিজোরাম না
নাগাল্যান্ড হ্যা
ওড়িশা হ্যা
পুদুচেরি না [১৪]
পাঞ্জাব হ্যা হ্যা [১৫]
রাজস্থান ১৯ মার্চ হ্যা [১৬]
সিকিম না হ্যা হ্যা [১৭]
তামিলনাড়ু ২৪ মার্চ হ্যা হ্যা [১৮][১৯]
তেলেঙ্গানা ২৩ মার্চ না [২০]
ত্রিপুরা না না না
উত্তরপ্রদেশ আংশিক হ্যা হ্যা
উত্তরাখণ্ড হ্যা না
পশ্চিমবঙ্গ আংশিক হ্যা
Notes
  1. Exceptions included for police, health, fire, food deliveries and other essentials.
  2. Only in the city of Nellore.[২]
  3. In five districts.[৬]

অন্ধ্র প্রদেশ[সম্পাদনা]

২৩ শে মার্চ, অন্ধ্র প্রদেশের নেল্লোর জেলার কালেক্টর ৩১ শে মার্চ পর্যন্ত জেলায় ১৪৪ ধারা জারি করেছেন।

চন্ডিগড়[সম্পাদনা]

২৩মার্চ পাঞ্জাব রাজ্যপাল ভিপি সিং বাদনোর যিনি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল প্রশাসক ২৪ মার্চ মধ্যরাত্রি থেকে একটি কারফিউ আরোপ করে। [২১]

দিল্লি[সম্পাদনা]

৫ মার্চ, দিল্লি সরকার একটি সতর্কতা হিসাবে ৩১ মার্চ অবধি দিল্লি জুড়ে সমস্ত প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করেছিল। [২২]

১২ মার্চ, মার্চের শেষ অবধি, সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং সিনেমা হল বন্ধ রাখার ঘোষণা করে এবং সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসাবে সমস্ত সার্বজনীন জায়গা সংক্রমণমুক্ত করার নির্দেশ দেয়। [২৩]

২২ মার্চ, কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্তের পরে, ২৩ মার্চ সকাল ৬ টা থেকে কমপক্ষে ৩১ মার্চ পর্যন্ত দিল্লির সম্পূর্ণ অবরুদ্ধ বা লকডাউন ঘোষিত হয়েছিল, প্রয়োজনীয় পরিষেবা এবং পণ্য সরবরাহ অব্যাহত রেখে। [২৪]

কর্ণাটক[সম্পাদনা]

১৮ ই মার্চ, কর্ণাটক সরকার একটি সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসাবে মল, বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ, সিনেমা থিয়েটার, নাইট ক্লাব, বিবাহ এবং সম্মেলন এবং অন্যান্য সার্বজনীন স্থান বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছে। [২৫]

কর্ণাটকের সীমান্তে অবস্থিত কাসারগড় জেলায় করোনাভাইরাসটির জন্য ছয় জনের ইতিবাচক পরীক্ষার পরিপ্রেক্ষিতে কর্ণাটক, কেরালার সাথে তার সীমানা বন্ধ করে দিয়েছে যানবাহন চলাচলের জন্য। [২৬]

কেরল[সম্পাদনা]

কেরালার সরকার ৪ থেকে ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত উচ্চ সতর্কতা ঘোষণা করেছিল এবং তারপরে রাজ্যে করোনাভাইরাসের ঘটনা বাড়তে থাকায় ২০২০ সালের ৮ মার্চ থেকে আবার উচ্চ সতর্কতা শুরু হয়। [২৭] [২৮]

১০ মার্চ, কেরালার সরকার ৭. ম গ্রেড পর্যন্ত সমস্ত স্কুল বন্ধ করে দিয়েছে। [২৯] সরকার মানুষকে তীর্থযাত্রা না করার, বিবাহ ও সিনেমা অনুষ্ঠানের মতো বৃহৎ সমাবেশে অংশ না নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছিল। [৩০]

১৫ মার্চ, কেরল সরকার কর্তৃক সার্বজনীন এবং ব্যক্তিগত স্বাস্থ্যবিধির গুরুত্ব সম্পর্কে মানুষকে শিক্ষিত করার লক্ষ্যে একটি নতুন উদ্যোগ 'ব্রেক দ্য চেইন' চালু করা হয়েছিল। [৩১]

কেরালা ভারতের একমাত্র রাজ্য যা করোনাভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত দেশ থেকে প্রত্যাবর্তনকারীদের জন্য ২৮ দিনের হোম কোয়ারান্টিন(গৃহবন্দী) বাধ্যতামূলক করে, তবে জাতীয় গাইডলাইনটি কেবল ১৪ দিন। [৩২]

মহারাষ্ট্র[সম্পাদনা]

মহারাষ্ট্রে নিশ্চিত ঘটনা সহ জেলাগুলির মানচিত্র

১৩ মার্চ, মহারাষ্ট্র সরকার মুম্বই, নবি মুম্বই, পুনে, পিম্পরি চিঞ্চওয়াড় এবং নাগপুরে প্রাদুর্ভাবটি মহামারী হিসাবে ঘোষণা করে এবং মহামারী রোগ আইন, ১৮৯৭ এর বিধানগুলি আহ্বান করে। [৩৩]

১৮ মার্চ, পুনেরফ েডারেশন অফ ট্রেড অ্যাসোসিয়েশন ঘোষণা করেছিল যে মুদি দোকান এবং ওষুধের দোকান ছাড়া সমস্ত দোকান শহরে বন্ধ থাকবে। এর ফলস্বরূপ ৪০,০০০ দোকান বন্ধ থাকবে। [৩৪]

২০ মার্চ, রাজ্য সরকার মুম্বাই, মুম্বাই মেট্রোপলিটন অঞ্চল, পুনে, পিম্পরি চিঞ্চওয়াড় এবং নাগপুরে ৩১ মার্চ পর্যন্ত প্রয়োজনীয় পরিষেবা এবং গণপরিবহন বাদ দিয়ে সকল কর্মস্থল বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছিল । [৩৫]

২২ মার্চ, রাজ্য সরকার ঘোষণা করেছিল যে ২৩ মার্চ থেকে রাজ্যজুড়ে ১৪৪ ধারা জারি করা হবে, যাতে রাজ্যটি সম্পূর্ণরূপে লকডাউনে (অবরুদ্ধ অবস্থায়) থাকবে। [১২]

২৩ মার্চ, মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে সমস্ত জেলার সীমানা বন্ধ এবং রাজ্যব্যাপী কঠোর কারফিউ ঘোষণা করেছিলেন। [৩৬]

উড়িষ্যা[সম্পাদনা]

২১ মার্চ করোনভাইরাসের দুটি ইতিবাচক মামলার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পরে, রাজ্যটি রাজধানী ভুবনেশ্বরসহ ৭০ শতাংশ অবরুদ্ধকরণ (লকডাউন) করার নির্দেশ দেয়। [৩৭]

২২ মার্চ, রাজ্য সরকার ২৯ মার্চ রাত ৯টা অবধি পূর্ণ অবরুদ্ধকরণ বা লকডাউন করে দিয়েছিল। [৩৮] আন্তঃদেশীয় বাস পরিষেবা এবং যাত্রীবাহী ট্রেনও স্থগিত করা হয়েছিল। [৩৯]

পাঞ্জাব[সম্পাদনা]

রাজস্থান[সম্পাদনা]

১৯ মার্চ একটি পরিবারে তিনজনের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত ইতিবাচক পরীক্ষার পরে রাজস্থানে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছিল। [৪০] [১৬]

২২ মার্চ, রাজস্থান সরকার রাজ্যে গণপরিবহন পরিষেবা নিষিদ্ধ করেছিল। [৪১]

২৪ মার্চ, রাজ্যে কোভিড-১৯ সংক্রমণ ঘটনা ৩২টি পার হয়ে যাওয়ার পরে রাজ্যগুলি সমস্ত ব্যক্তিগত যানবাহন চলাচল নিষিদ্ধ করেছিল। [৪১] রাজ্য সরকার জাতীয় খাদ্য সুরক্ষা আইনের (এনএফএসএ) আওতাভুক্ত পরিবারগুলির জন্য দুই মাসের জন্য বিনামূল্যে রেশন দেওয়ারও কথা ঘোষনা করেছিল।

তামিলনাড়ু[সম্পাদনা]

৩০ জানুয়ারী, রাজ্যটি চীন থেকে আগত ৭৮ জনকে আলাদা রেখেছে। [৪২]

২০ মার্চ, তামিলনাড়ু সরকার কর্ণাটক, কেরল এবং অন্ধ্র প্রদেশের সীমানা আংশিকভাবে ৩১ শে মার্চ অবধি বন্ধ করেছে। ২০ মার্চ ভাইরাল প্রাদুর্ভাবের বিরুদ্ধে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করার জন্য একটি টাস্কফোর্স গঠন করেছিল। [৪২] [৪৩]

২১ মার্চ, রাজ্য সরকার দশম শ্রেণির এসএসএলসি বোর্ড পরীক্ষা স্থগিত করে ১৪ এপ্রিলের পরবর্তী সময়াবধি। পরীক্ষাটি ২৭ মার্চ থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল। [৪৪]

২২ মার্চ, রাজ্য সরকার 'জনতা কার্ফুর সময়সীমা ২৩মার্চ সকাল ৫টা অব্ধি বাড়িয়েছে। [৪৫]

২৩ মার্চ, রাজ্য সরকার মার্চ ২৪ মার্চ সন্ধ্যা ৬টা থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত ১৪৪ ধারা চাপিয়েছে যা ৫ জনের বেশি লোকের জমায়েত নিষিদ্ধ করেছে। [১৯]

২৪ মার্চ, স্বাস্থ্যমন্ত্রী সি.বিজয়বাস্কার কোভিড -১৯ রোগীদের চিকিত্সার জন্য নিবেদিত একটি হাসপাতালের কথা ঘোষণা করেছিলেন। নবনির্মিত ওমানদুরার সরকারী মাল্টিস্পেশালিটি হাসপাতালকে একচেটিয়াভাবে কোভিড -১৯ রোগীদের চিকিত্সার জন্য ৩৫০ শয্যা বিশিষ্ট একটি বিশেষ সুবিধায় রূপান্তর করা হচ্ছে। [৪৬]

তেলেঙ্গানা[সম্পাদনা]

১৭ মার্চ, তেলেঙ্গানা সরকার চারটি প্রবেশদ্বারে মহারাষ্ট্র থেকে তেলেঙ্গানায় প্রবেশকারীদের স্ক্রিনিং বাস্তবায়ন শুরু করে। [৪৭]

২২ মার্চ, আরও পাঁচটি ঘটনার উদ্ভবের সাথে রাজ্য সরকার রাজ্যব্যাপী অবরুদ্ধকরণ বা লকডাউন ঘোষণা করেছিল। [৪৮]

২৩ মার্চ, রাজ্য সরকার সন্ধ্যা ৭ টা থেকে সকাল ৬ টা পর্যন্ত নাইট কারফিউ চাপিয়েছিল। [৪৯] লকডাউন বা অবরুদ্ধ অবস্থা চলাকালীন রাস্তায় কোনও যানবাহনের অনুমতি ছিল না। সরকার সমস্ত সীমানাও বন্ধ করে দিয়েছে এবং আন্তঃদেশীয় পরিবহন স্থগিত করেছে।

উত্তর প্রদেশ[সম্পাদনা]

২৩ মার্চ, বিকাল ৫ টা থেকে শুরু হয়ে কলকাতা এবং পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে বেশ কয়েকটি অঞ্চল ২৭ মার্চ পর্যন্ত অবরুদ্ধকরণ বা লকডাউনের আওতায় থাকছে। [৫০]

২৪ মার্চ, বিকেল ৫ টা থেকে পুরো পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যটি ৩১ মার্চ অবধি একটি অবরুদ্ধকরণ বা লকডাউনের আওতায় থাকবে। [৫১]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Gettleman, Jeffrey; Schultz, Kai (২০২০-০৩-২৪)। "Modi Orders 3-Week Total Lockdown for All 1.3 Billion Indians"The New York Times (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 0362-4331। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৫ 
  2. Network, Newsmeter (২০২০-০৩-২৩)। "Coronavirus: Section 144 imposed in Nellore"NewsMeter (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৩ 
  3. "Coronavirus outbreak: States impose lockdown in battle against Covid-19 | All you need to know"India Today (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২১ মার্চ ২০২০ 
  4. "82 districts under lockdown over Covid-19: What is shut and where"Hindustan Times (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০৩-২৩। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মার্চ ২০২০ 
  5. "Coronavirus: Arunachal Pradesh orders lockdown from Monday evening till March 31"The Economic Times। ২০২০-০৩-২৩। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৪ 
  6. "Section 144 imposed in five districts of south Gujarat | Surat News - Times of India"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০২০ 
  7. Bhattacharya, D. P. (২০২০-০৩-২৪)। "Lockdown in Gujarat extended to the entire state"The Economic Times। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৪ 
  8. "COVID-19 impact: Gujarat suspends transport services till March 25"The Week (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০২০ 
  9. Mar 23, Dhritiman Ray | TNN | Updated:; 2020। "Jharkhand Lockdown: Jharkhand announces immediate lockdown till March 31 | Ranchi News - Times of India"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৪ 
  10. Poovanna, Sharan (২০২০-০৩-২৪)। "Coronavirus: Karnataka under lockdown, Section 144 in Bengaluru, Mangaluru"Livemint (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৪ 
  11. of India, Press Trust। "Lockdown in Kerala as coronavirus cases touch 28, CM says all emergency services open"India Today (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০২০ 
  12. "Maharashtra goes into lockdown mode: Section 144 in place from Monday, announces Chief Minister Uddhav Thackeray"Mumbai Mirror। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মার্চ ২০২০ 
  13. "Covid-19: Assam, Tripura, Meghalaya and Manipur announces lockdown"The Economic Times। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০২০ 
  14. "Puducherry govt. announces lockdown"The Hindu (ইংরেজি ভাষায়)। Special Correspondent। ২০২০-০৩-২৩। আইএসএসএন 0971-751X। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৪ 
  15. "Punjab to enforce lockdown till March 31"The Economic Times। ২০২০-০৩-২২। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৪ 
  16. Parihar, Rohit। "Section 144 imposed in Rajasthan after couple, 2-year-old test positive for coronavirus"India Today (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০২০ 
  17. "Sikkim to be under lockdown from 6 am on March 25 till March 31"Deccan Herald (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০৩-২৪। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৪ 
  18. ChennaiMarch 23, Shalini Lobo; March 23, 2020UPDATED:। "Coronavirus in India: Tamil Nadu to go under lockdown from Tuesday"India Today (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৩ 
  19. "TN imposes Section 144 for a week, no gatherings of more than 5 people"www.thenewsminute.com। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মার্চ ২০২০ 
  20. Network, Newsmeter (২০২০-০৩-২৩)। "Telangana government imposes strict night curfew, violators to be dealt strictly"NewsMeter (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৩ 
  21. "Coronavirus: Curfew to be imposed in Chandigarh from midnight"The Tribune 
  22. "Coronavirus threat: Delhi govt orders closure of all primary schools till March 31"Hindustan Times। ৬ মার্চ ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ মার্চ ২০২০ 
  23. Sanyal, Anindita, সম্পাদক (১২ মার্চ ২০২০)। "Delhi Schools, Colleges, Cinemas Shut Till March 31 Due To Coronavirus"NDTV। সংগ্রহের তারিখ ১২ মার্চ ২০২০ 
  24. Jagannath, J. (২২ মার্চ ২০২০)। "Delhi lockdown to start at 6 am Monday, until 31 March: Kejriwal"Livemint। সংগ্রহের তারিখ ২২ মার্চ ২০২০ 
  25. "Coronavirus: Karnataka shuts down schools, malls, theatres for a week"livemint.com। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মার্চ ২০২০ 
  26. "Karnataka closes border with Kerala after 6 COVID-19 cases reported in Kasargod"The Week। ২১ মার্চ ২০২০। 
  27. "Coronavirus: Over 3000 people still under observation, says govt"The Economic Times। ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০। 
  28. "As coronavirus cases surge, Kerala put on high alert"gulfnews.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৯ মার্চ ২০২০ 
  29. "Coronavirus: Six fresh cases reported in Kerala; Schools, colleges, cinemas shut till March 31"The Financial Express। ১০ মার্চ ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১১ মার্চ ২০২০ 
  30. "12 coronavirus cases in Kerala, grandparents of family from Italy test positive"thenewsminute.com। সংগ্রহের তারিখ ১০ মার্চ ২০২০ 
  31. "Kerala govt launches break the chain initiative for personal hygiene"NDTV (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৫ মার্চ ২০২০ 
  32. "Kerala's robust health system shows the way to tackle coronavirus"The Week (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৯ মার্চ ২০২০ 
  33. "Maharashtra invokes epidemic Act"The Tribune। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মার্চ ২০২০ 
  34. "Coronavirus impact: Markets in Maharashtra in shutdown mode"Financial Express। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মার্চ ২০২০ 
  35. "Mumbai, Pune offices to close in wake of coronavirus, says Uddhav Thackeray"Livemint। সংগ্রহের তারিখ ২০ মার্চ ২০২০ 
  36. "Uddhav Thackeray imposes curfew in entire Maharashtra"The Economic Times। ২০২০-০৩-২৩। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৩ 
  37. "COVID-19: How Odisha is setting an example in preparedness"www.downtoearth.org.in (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০২০ 
  38. "Coronavirus update: Odisha govt announces lockdown till 29 March"Livemint (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০৩-২২। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০২০ 
  39. bisoyi, Sujit kumar। "Coronavirus: Odisha government suspends inter-state bus services; forms team to monitor smooth flow of essential goods | Bhubaneswar News - Times of India"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০২০ 
  40. Iqbal, Mohammed (২০২০-০৩-১৯)। "Coronavirus | Prohibitory orders in Rajasthan after 3 new cases test positive"The Hindu (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 0971-751X। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৪ 
  41. "Coronavirus update: Rajasthan bans private vehicles; to give pension, food to poor"Hindustan Times (ইংরেজি ভাষায়)। ২৪ মার্চ ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০২০ 
  42. Reporter, B. S.। "Coronavirus outbreak: Tamil Nadu closes borders, constitutes task force"Business Standard India। সংগ্রহের তারিখ ২১ মার্চ ২০২০ 
  43. "TN closes border roads, movement of essentials allowed"Outlook India। সংগ্রহের তারিখ ২১ মার্চ ২০২০ 
  44. "COVID-19: Tamil Nadu's Class 10 board exams postponed"। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মার্চ ২০২০ 
  45. "Tamil Nadu govt extends 'Janata curfew' till Monday morning"The Economic Times। ২০২০-০৩-২২। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৩ 
  46. Kannan, Ramya (২০২০-০৩-২৪)। "Tamil Nadu announces dedicated hospital for COVID-19 patients"The Hindu (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 0971-751X। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৪ 
  47. "Restrictions on Maha border extended by T"Times of India। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মার্চ ২০২০ 
  48. Lasania, Yunus Y. (২০২০-০৩-২২)। "Covid-19: Telangana goes under lockdown as five more positive cases emerge"Livemint (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৩ 
  49. Network, Newsmeter (২০২০-০৩-২৩)। "Telangana government imposes strict night curfew, violators to be dealt strictly"NewsMeter (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৩ 
  50. "Kolkata, Several Areas Across West Bengal to be Under Lockdown From Monday Evening to March 27"News18 
  51. "Entire West Bengal brought under lockdown till March 31"The Economic Times। ২০২০-০৩-২৪। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২৪