দিল্লি সরকার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
দিল্লি জাতীয় রাজধানী অঞ্চল সরকার
Emblem of India.svg
সরকারের আসনদিল্লি
কার্যনির্বাহী
রাজ্যপাল গভর্নর অনিল বাইজাল
মুখ্যমন্ত্রীঅরবিন্দ কেজরিওয়াল (এএপি)
উপ-মুখ্যমন্ত্রীমনীশ সিসোদিয়া (এএপি)
প্রধান সচিব অংশু প্রকাশ, আইএএস
আইনসভা
পরিষদ
স্পিকাররাম নিবাস গোয়েল
ডেপুটি স্পিকাররাখি বিড়লা
আইন পরিষদের সদস্য ৭০
বিচারালয়
হাইকোর্টদিল্লি হাইকোর্ট
প্রধান বিচারপতিগীতা মিত্তাল (ভারপ্রাপ্ত সিজে)

দিল্লি জাতীয় রাজধানী আঞ্চলের সরকার বা দিল্লি সরকার হল ভারতীয় জাতীয় রাজধানী দিল্লি এবং এর ১১ জেলার শাসক কর্তৃপক্ষ। এটি একটি কার্যনির্বাহী, যা দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নর , একটি বিচারব্যবস্থা এবং একটি আইনসভর নেতৃত্বে চলে। দিল্লীর বর্তমান বিধানসভা একককক্ষ বিশিষ্ট, আনুষ্ঠানিকভাবে এটি ৭০ জন আইনসভার সদস্য (বিধায়ক) নিয়ে গঠিত।

ভারতের সুপ্রীম কোর্টে জিএনসিটি ভি. ইউওআই-এর ক্ষেত্রে আর্গুমেন্ট শুনিছে, যেখানে দিল্লি কেন্দ্রীয় অঞ্চল কিনা তা নির্ধারণ করবে লেফটেন্যান্ট গভর্নর মুখ্যমন্ত্রী বা বিশেষ রাজ্য হিসাবে স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারেন, যেখানে লেফটেন্যান্ট গভর্নর মুখমন্ত্রীর প্রধান পরামর্শ দাতা হিসাবে থাকবে।[১] এটি কেন্দ্র ও দিল্লির মধ্যে আইনী ফেডারেলিজমের সাংবিধানিক প্রশ্ন উত্থাপন করে। ১৫ দিনের আর্গুমেন্ট পর, সুপ্রিম কোর্ট তার রায় সংরক্ষিত করেছিল।[২]

সংক্ষিপ্ত বিবরণ[সম্পাদনা]

দিল্লির নয়টি জেলা।

পঞ্চায়েত রাজ আইনের অংশ হিসাবে দিল্লির পৌর কর্পোরেশন শহরটির জন্য নাগরিক প্রশাসন পরিচালনা করে। দিল্লির একটি শহুরে এলাকা, দিল্লি রাজ্য সরকার এবং ভারতের সরকার উভয় আসন। দিল্লির জাতীয় রাজধানী অঞ্চল (এনসিটি) এর তিনটি স্থানীয় পৌর কর্পোরেশন রয়েছে, যেমন দিল্লির পৌর কর্পোরেশন (এমসিডি), নয়া দিল্লি পৌর কাউন্সিল (এনডিএমসি) এবং দিল্লি ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড।

দিল্লীর লেফটেন্যান্ট গভর্নরকে কেন্দ্রীয় সরকারের পরামর্শে রাষ্ট্রপতির প্রতিনিধি হিসেবে নিযুক্ত হন, তবে তাকে রাজ্যপালের মতো রাজ্যের প্রধান হিসাবে নিযুক্ত করা হয় না।

দিল্লি জুড়ে দিল্লি হাইকোর্টের এখতিয়ার রয়েছে, যার দুটি নিম্ন আদালত রয়েছে: নাগরিক মামলার জন্য ছোট কারণসমূহের আদালত, এবং ফৌজদারি মামলার দায়রা আদালত। ভারতের অন্যান্য রাজ্যের বিপরীতে, দিল্লি পুলিশ ভারত সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে রিপোর্ট করে, রাজ্য সরকারকে নয়। পুলিশ কমিশনারের নেতৃত্বে এটি বিশ্বের বৃহত্তম মহানগর পুলিশ বাহিনীগুলির মধ্যে একটি।[৩] দিল্লির পুলিশ সদর দফতর আইটিও'তে অবস্থিত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

দিল্লির আইনসভা প্রথম ভাগে ১৯৫১ সালের পার্ট সি স্টেটস আইনের অধীনে ১৯ মার্চ ১৯ সালে গঠিত হয়, কিন্তু ১ অক্টোবর ১৯৫৬ সালে এটি বাতিল করা হয়। পরে ১ ই সেপ্টেম্বর ১৯৯৩ সালে তার আইন পরিষদ পুনরায় প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল - সংবিধানের আইনে (৬৯ তম সংশোধনী), ১৯৯১ সালের জাতীয় রাজধানী অঞ্চল দিল্লি আইন, অনুসারে ভারতের সংবিধানে ৬৯ তম সংশোধনী কার্যকর হয়েছিল, দিল্লি কেন্দ্রীয় অঞ্চলকে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় রাজধানী অঞ্চল হিসাবে ঘোষণা করা হয়।[৪]

দিল্লির প্রথম মুখ্যমন্ত্রী ব্রাহ্মপ্রকাশ (আইএনসি) এবং প্রথম মহিলা মুখ্যমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ (বিজেপি)। কমরেড গুরু রাধা কিষাণ (সিপিআই) একজন ব্যক্তি হিসাবে ক্রমাগত সবচেয়ে বেশি বছর ধরে এমসিডি -এর একটি আসনে প্রতিনিধিত্বের বিরল কৃতীত্বের (ডিএমসি প্রাথমিকভাবে) অধিকারী এবং প্রেম সিংহ (Inc) দিল্লির বিভিন্ন নাগরিক ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ নির্বাচনে জিতেছেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Special Status of Delhi - Supreme Court Observer"Supreme Court Observer (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-০২-২৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-২৭ 
  2. "Special Status of Delhi: Day 15 Arguments - Supreme Court Observer"Supreme Court Observer (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-১২-০৬। ২০১৮-০২-২৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-২৭ 
  3. "History of Delhi Police"। Delhi Police Headquarters, New Delhi, India। ৭ ডিসেম্বর ২০০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  4. THE CONSTITUTION (Sixty-ninth Amendment) Act, 1991

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]