এলাহাবাদ জেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এলাহাবাদ জেলা
জেলা
প্রয়াগরাজ জেলা
উত্তর প্রদেশে এলাহাবাদ জেলার অবস্থান
উত্তর প্রদেশে এলাহাবাদ জেলার অবস্থান
দেশভারত
রাজ্যউত্তর প্রদেশ
বিভাগএলাহাবাদ বিভাগ
সদরদপ্তরএলাহাবাদ
তহসিল
আয়তন
 • মোট৫৪৮২ কিমি (২১১৭ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট৫৯,৫৪,৩৯১
 • জনঘনত্ব১১০০/কিমি (৩০০০/বর্গমাইল)
জনসংখ্যা
 • স্বাক্ষরতা৭৪.৪১%
 • লিঙ্গ অনুপাত৯০১
সময় অঞ্চলআইএসটি (ইউটিসি+০৫:৩০)
প্রধান সড়কএনএইচ২
ওয়েবসাইটhttp://prayagraj.nic.in

এলাহাবাদ জেলা (অফিসিয়ালিভাবে প্রয়াগরাজ জেলা নামে পরিচিত) ভারতের উত্তর প্রদেশের একটি জেলা। এলাহাবাদ শহর এ জেলার সদরদপ্তর যার নাম পরিবর্তন করে প্রয়াগরাজ করা হয়েছে।

এলাহাবাদ জেলা ২০ কমিউনিটি উন্নয়ন ব্লকে ও আটটি তফসিলে বিভক্ত। এলাহাবাদ জেলা কৌশাম্বি ও ফতেহপুর জেলা মিলে এলাহাবাদ বিভাগের অন্তর্গত। প্রশাসনিক বিভাগগুলি হল ফুলপুর, কোরাওঁ, মেজা, সদর, সোরাওন, হান্দিয়া, বড়া, শ্রিংওয়ারপুর এবং করঞ্চনা। এ জেলার পৌরাণিক তিনটি নদী; গঙ্গা, যমুনা ও স্বরসতি এলাহাবাদ শহরের নিকট মিলিত হয়েছে, যা ত্রিবেনী সঙ্গম নামে পরিচিত। এটি হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের নিকট অত্যন্ত পবিত্র। এলাহাবাদ স্বাধীনতার পূর্বে একবার ইউনাইটেড প্রদেশের রাজধানী ছিল। এলাহাবাদ রাজ্যের সবচেয়ে বড় শিক্ষাশহর।

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

২০১১ সালের ভারতীয় জনগণনার তথ্য মতে, এলাহাবাদ জেলার জনসংখ্যা ৫,৯৫৪,৩৯১ জন[১], যা ইউরোপের দেশ ডেনমার্কের জনসংখ্যা সমান[২] অথবা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মৌসোরি রাজ্যের জনসংখ্যার সমান।[৩] জনসংখ্যার ভিত্তিতে এটি ভারতে ১৩ তম (ভারতের মোট ৬৪০টি জেলা) জনবহুল জেলা। ২০১১ সালের তথ্য মতে এলাহাবাদ জেলা উত্তর প্রদেশের ৭১টি জেলার মধ্যে সবচেয়ে জনবহুল জেলা। জেলার জনসংখ্যার ঘনত্বের সংখ্যা ছিল প্রতি বর্গকিলোমিটারে ১০৮৭ জন বাসিন্দা বা বর্গ মাইলে ২৮২০ জন। ২০০১-২০১১ এর দশ জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ছিল ২০.৭৪%। এলাহাবাদ জেলার লিঙ্গ অনুপাত প্রতি ১০০০ জন পুরুষের বিপরীতে ৯০২ জন নারী রয়েছে, এবং সাক্ষরতার হার ৭৪.৪১%, ভারতের জাতীয় স্বাক্ষরতার হার প্রায় সমান।[৪]

ভাষা[সম্পাদনা]

২০১১ ভারতীয় জনগণনার তথ্য অনুযায়ী এ জেলার ৯৬.৯৮% মানুষ হিন্দি এবং ২.৬৯% মানুষ উর্দু ভাষাকে তাদের ভাব প্রকাশের প্রধান ভাষা হিসেবে ব্যবহার করে।[৫] আওয়াধি অঞ্চলের প্রায় ৩৮০০০০ মানুষ হিন্দির পাশাপাশি আওয়াধী ভাষায় কথা বলে এবং বাগেলখন্ড এলাকার প্রায় ৭৮০০০০০ জন মানুষ বাঘেলি ভাষায় কথা বলে[৬], হিন্দি ভাষার সাথে বাঘেলি ভাষার ৭২-৯১% মিল রয়েছে (জার্মান ও ইংরেজি ভাষার সাথে প্রায় ৬০% তুলনা করা যায়)।[৭]

ধর্ম[সম্পাদনা]

এলাহাবাদ জেলায় ধর্ম[৮]
ধর্ম শতাংশ
হিন্দু
  
৮৫.৬৯%
মুসলমান
  
১৩.৩৮%
অন্যান্য†
  
০.৯৩%

এলাহাবাদ জেলায় ধর্মবিশ্বাসীদের পালনকারী প্রধান ধর্ম হিন্দু ধর্ম, যা প্রায় ৮৫.৬৯%। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ইসলাম ধর্ম প্রায় ১৩.৩৮%, ০.৯৩% অন্যান্য ধর্ম এবং ০.৯০% ধর্মহীন। এলাহাবাদের কুম্ভ মেলা হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় অনুষ্ঠান। এলাহাবাদ শহরের নিকটবর্তী ত্রিবেনী সঙ্গম হিন্দু সম্প্রদায়ের কাছে পবিত্র স্থান হিসেবে পরিচিত। অক্ষয়বত একটি পবিত্র ডুমুর গাছ। এলাহাবাদে রোমান ক্যাথলিক ডায়োসিস রয়েছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "District Census 2011"। Census2011.co.in। ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১১ 
  2. US Directorate of Intelligence। "Country Comparison:Population"। সংগ্রহের তারিখ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 
  3. "2010 Resident Population Data"। U. S. Census Bureau। ১৯ অক্টোবর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১১Missouri 5,988,927 
  4. "Allahabad has highest literacy rate in region"The Times of India। ১৫ এপ্রিল ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ৩ আগস্ট ২০১২ 
  5. 2011 Census of India, Population By Mother Tongue
  6. M. Paul Lewis, সম্পাদক (২০০৯)। "Awadhi: A language of India"Ethnologue: Languages of the World (16th সংস্করণ)। Dallas, Texas: SIL International। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১১ 
  7. M. Paul Lewis, সম্পাদক (২০০৯)। "Bagheli: A language of India"Ethnologue: Languages of the World (16th সংস্করণ)। Dallas, Texas: SIL International। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১১ 
  8. "Allahabad Religion Census 2011"Census 2011। সংগ্রহের তারিখ ১৯ মে ২০১৭