লুম্বিনী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ইউনেস্কো বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থান
লুম্বিনী, গৌতম বুদ্ধের জন্মস্থান
বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী তালিকায় উল্লিখিত নাম
Lumbini 4.jpg
ধরন সাংস্কৃতিক
মানদণ্ড iii, vi
তথ্যসূত্র লুম্বিনী (৬৬৬)
ইউনেস্কো অঞ্চল এশিয়া-প্যাসিফিক
শিলালিপির ইতিহাস
শিলালিপি ১৯৮৮ (২১তম সভা)

লুম্বিনী (लुम्बिनी, "the lovely") একটি বৌদ্ধ ধর্মীয় তীর্থস্থান যা নেপালের রূপান্দি জেলায় অবস্থিত[১] এই স্থানেই রানী মায়াদেবী সিদ্ধার্থ গৌতমকে জন্ম দান করেন[২]। সিদ্ধার্থ গৌতম খ্রিস্টপূর্ব ৬২৩ থেকে ৫৪৩ পর্যন্ত বেঁচে ছিলেন[৩][৪][৫] এবং তিনি গৌতম বুদ্ধ নামে বৌদ্ধ ধর্ম প্রচার করেন। গৌতম বুদ্ধের জীবনের সাথে জড়িতে প্রধান চারটি স্থানের এটি একটি; অপর তিনটি হলো কুশীনগর, বুদ্ধ গয়া এবং সারনাথ

লুম্বিনীতে গৌতম বুদ্ধ ২৯ বছর বয়স পর্যন্ত অবস্থান করেছিলেন এবং এখানে মায়া দেবী মন্দিরসহ আরও অসংখ্য বৌদ্ধ মন্দির রেয়েছে।

যোগাযোগ[সম্পাদনা]

লুম্বিনী, নেপাল

লুম্বিনী কাঠমুন্ডু থেকে ১০ ঘন্টার এবং সিদ্ধার্থনগর থেকে ৪৫ মিনিটের দূরত্বে। সন্নিকটবর্তী বিমানবন্দরের নাম গৌতম বুদ্ধ বিমানবন্দর, যা সিদ্ধার্থনগর-এ অবস্থিত এবং এখান থেকে কাঠমুন্ডুতে বিমানে যাওয়া-আসা করা যায়[৬]

চিত্রশালা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. [১][অকার্যকর সংযোগ]
  2. [২]
  3. "Lumbini, the Birthplace of the Lord Buddha - UNESCO World Heritage Centre"। Whc.unesco.org। সংগৃহীত ২০১৩-০৮-১৯ 
  4. ""Gautama Buddha (B.C. 623-543)" by T.W. Rhys-Davids, The World's Great Events, B.C. 4004-A.D. 70 (1908) by Esther Singleton, pp. 124-135"। Unz.org। ২০১২-১১-২৮। সংগৃহীত ২০১৩-০৮-১৯ 
  5. "The Buddha (BC 623-BC 543) - Religion and spirituality Article - Buddha, Bc, 623"। Booksie। ২০১২-০৭-০৮। সংগৃহীত ২০১৩-০৮-১৯ 
  6. "Lumbini"। Welcome Nepal। সংগৃহীত ২০১৩-০৮-১৯ 

বহি:সংযোগ[সম্পাদনা]