কবীর সুমন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কবীর সুমন
জন্ম নামসুমন চট্টোপাধ্যায়
জন্ম (1949-03-16) ১৬ মার্চ ১৯৪৯ (বয়স ৭৩)[১]
কটক, ওড়িশা, ভারত
উদ্ভবকলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত
ধরনআধুনিক বাংলা গান, রবীন্দ্র সঙ্গীত
পেশাসুরকার, গায়ক, গীতিকার, সাংবাদিক, লেখক, অভিনেতা, রাজনীতিবিদ
বাদ্যযন্ত্রকণ্ঠ, গিটার
কার্যকাল১৯৯২-বর্তমান
লেবেলএইচএমভি
ওয়েবসাইটঅফিসিয়াল ওয়েবসাইট
অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেল
সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
মে ২০০৯ - মে ২০১৪
পূর্বসূরীসুজন চক্রবর্তী
উত্তরসূরীসুগত বোস
সংসদীয় এলাকাযাদবপুর
ব্যক্তিগত বিবরণ
রাজনৈতিক দলতৃণমূল কংগ্রেস
দাম্পত্য সঙ্গীসাবিনা ইয়াসমিন
পিতামাতাসুধীন্দ্রনাথ চট্টোপাধযায় (পিতা)
উমা চট্টাপাধ্যায় (মাতা)
প্রাক্তন শিক্ষার্থীযাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়
ধর্মইসলাম
স্বাক্ষর

কবীর সুমন (জন্ম: ১৬ মার্চ ১৯৪৯) একজন ভারতীয় বাঙালি গায়ক, গীতিকার, অভিনেতা, বেতার সাংবাদিক, গদ্যকার ও সংসদ সদস্য[১] তার পূর্বনাম সুমন চট্টোপাধ্যায়। ২০০০ সালে ইসলাম ধর্মে ধর্মান্তরিত হয়ে তিনি তার পুরনো নাম পরিত্যাগ করেন।[২] সুমন একজন বিশিষ্ট আধুনিকরবীন্দ্রসংগীত গায়ক। ১৯৯২ সালে তার তোমাকে চাই অ্যালবামের মাধ্যমে তিনি বাংলা গানে এক নতুন ধারার প্রবর্তন করেন। তার স্বরচিত গানের অ্যালবামের সংখ্যা পনেরো। সঙ্গীত রচনা, সুরারোপ, সংগীতায়োজন ও কণ্ঠদানের পাশাপাশি গদ্যরচনা ও অভিনয়ের ক্ষেত্রেও তিনি স্বকীয় প্রতিভার সাক্ষর রেখেছেন। তিনি একাধিক প্রবন্ধ, উপন্যাস ও ছোটোগল্পের রচয়িতা এবং হারবার্টচতুরঙ্গ প্রভৃতি মননশীল ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রের রূপদানকারী। বিশিষ্ট বাংলাদেশি গায়িকা সাবিনা ইয়াসমিন তার বর্তমান সহধর্মিনী। নন্দীগ্রাম গণহত্যার পরিপ্রেক্ষিতে কৃষিজমি রক্ষার ইস্যুতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পরিচালিত আন্দোলনে তিনি সক্রিয়ভাবে যোগদান করেন এবং সেই সূত্রে সক্রিয় রাজনীতিতে তার আবির্ভাব ঘটে। ২০০৯ সালে তৃণমূল কংগ্রেসের টিকিটে যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে দেশের পঞ্চদশ লোকসভা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন ও জয়লাভ করে উক্ত কেন্দ্র থেকে সাংসদ নির্বাচিত হন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

সুমন বাঙালি হিন্দু ব্রাহ্মণ পরিবারে ১৯৪৯ সালের ১৬ মার্চ উড়িষ্যার কটকে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা সুধীন্দ্রনাথ এবং মা উমা চট্টোপাধ্যায় তিনি। খুব অল্প বয়সেই বাবার তত্ত্বাবধানে শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের তালিম নেওয়া শুরু করেন। আচার্য কালীপদ দাস ও চিন্ময় লাহিড়ী তাকে খেয়াল শিখিয়েছিলেন। তিনি কলকাতার সেন্ট লরেন্স হাই স্কুলে পড়াশোনা করেন। তিনি যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে অনার্সসহ স্নাতক লাভ করেন এবং ফরাসি ভাষা ও জার্মান ভাষায় ডিপ্লোমা করেন।

অ্যালবাম[সম্পাদনা]

  • ১৯৯২: তোমাকে চাই
  • ১৯৯৩: বসে আঁকো
  • ১৯৯৩: ইচ্ছে হল
  • ১৯৯৪: গানওলা
  • ১৯৯৫: ঘুমাও বাউণ্ডুলে
  • ১৯৯৬: চাইছি তোমার বন্ধুতা
  • ১৯৯৭: জাতিস্মর
  • ১৯৯৮: নিষিদ্ধ ইস্তেহার
  • ১৯৯৯: পাগলা সানাই
  • ২০০০: যাব অচেনায়
  • ২০০০: নাগরিক কবিয়াল
  • ২০০২: আদাব
  • ২০০৩: রিচিং আউট (Reaching Out, ইংরাজি)
  • ২০০৫: দেখছি তোকে
  • ২০০৬: তেরো (সাবিনা ইয়াসমিনের সঙ্গে গাওয়া)
  • ২০০৭: নন্দীগ্রাম
  • ২০০৮: রিজওয়ানুরের বৃত্ত
  • ২০০৮: গানওলা ঢাকায় (লাইভ কনসার্ট রেকর্ডিং)
  • ২০০৮: প্রতিরোধ
  • ২০১০: সুপ্রভাত বিষণ্ণতা
  • ২০১০: ছত্রধরের গান
  • ২০১০: লালমোহনের লাশ
  • ২০১২: ৬৩ তে

গ্রন্থতালিকা[সম্পাদনা]

  • ডিসকভারিং দি আদার অ্যামেরিকা: র‍্যাডিকাল ভয়েসেস ফ্রম দি নাইনটিন এইটিজ ইন কনভার্সেশন উইথ কবীর সুমন (২০১২)
  • সুমনামি
  • মন-মেজাজ
  • আলখাল্লা
  • হয়ে ওঠা গান
  • কোন পথে গেল গান
  • সুমনের গান, সুমনের ভাষ্য
  • সুমনের গান
  • মুক্ত নিকারাগুয়া
  • দূরের জানলা
  • নিশানের নাম তাপসী মালিক

পুরস্কার[সম্পাদনা]

  • বিএফজেএ পুরস্কার (১৯৯৭) - শ্রেষ্ঠ গীতিকার হিসেবে (‘ভাই’ চলচ্চিত্রের জন্য) [৩]
  • জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার (ভারত) (২০১৪) - শ্রেষ্ঠ সঙ্গীত পরিচালক হিসেবে (জাতিস্মর চলচ্চিত্রের জন্য)
  • মিরচি মিউজিক অ্যাওয়ার্ড বাংলা (২০১৪) - শ্রেষ্ঠ সুরকার হিসেবে (জাতিস্মর চলচ্চিত্রের এ তুমি কেমন তুমি গানের জন্য)[৪]
  • মিরচি মিউজিক অ্যাওয়ার্ড বাংলা (২০১৪) - শ্রেষ্ঠ গীতিকার হিসেবে (জাতিস্মর চলচ্চিত্রের খোদার কসম জান গানের জন্য)
  • সংগীত মহাসম্মান (২০১৫) - পশ্চিমবঙ্গ সরকার কর্তৃক ভূষিত[৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Detailed Profile: Shri Kabir Suman"। india.gov.in। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুলাই ২০১৪ 
  2. Kabir Suman biodata ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১১ সেপ্টেম্বর ২০১২ তারিখে @ kabirsuman.in. Retrieved 11 December 2011
  3. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ অক্টোবর ২০১৪ 
  4. "Winners"Mirchi Music Awards। ২০ নভেম্বর ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ আগস্ট ২০১৬ 
  5. Chakraborty, Samir। "Right choice"The Telegraph (Calcutta)। সংগ্রহের তারিখ ১৬ আগস্ট ২০১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]