এডো ব্রান্ডেস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এডো ব্রান্ডেস
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামএডো আন্দ্রে ব্রান্ডেস
জন্ম (1963-03-05) ৫ মার্চ ১৯৬৩ (বয়স ৫৬)
পোর্ট শেপস্টোন, নাটাল প্রদেশ, দক্ষিণ আফ্রিকা
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম
ভূমিকাবোলার, কোচ
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ )
১৮ অক্টোবর ১৯৯২ বনাম ভারত
শেষ টেস্ট৮ ডিসেম্বর ১৯৯৯ বনাম শ্রীলঙ্কা
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ১৪)
১০ অক্টোবর ১৯৮৭ বনাম নিউজিল্যান্ড
শেষ ওডিআই১৮ ডিসেম্বর ১৯৯৯ বনাম শ্রীলঙ্কা
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৯৪-১৯৯৬ম্যাশোনাল্যান্ড কান্ট্রি ডিস্ট্রিক্টস
১৯৯৬-২০০১ম্যাশোনাল্যান্ড
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ১০ ৫৯ ৬০ ১২৬
রানের সংখ্যা ১২১ ৪০৪ ১,১৫১ ১,১৭৩
ব্যাটিং গড় ১০.০৮ ১৩.০৩ ১৬.৬৮ ১৬.৫২
১০০/৫০ ০/০ ০/২ ১/২ ০/৪
সর্বোচ্চ রান ৩৯ ৫৫ ১৬৫* ৫৫
বল করেছে ১,৯৯৬ ২,৮২৮ ৯,৪৩৭ ৬,২০০
উইকেট ২৬ ৭০ ১৭৯ ১৬৪
বোলিং গড় ৩৬.৫৭ ৩২.৩৭ ২৮.৬০ ২৮.১৯
ইনিংসে ৫ উইকেট ১০
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ৩/৪৫ ৫/২৮ ৭/৩৮ ৫/২৮
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৪/– ১১/– ২৮/– ২৩/–
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২৮ জানুয়ারি ২০১৫

এডো আন্দ্রে ব্রান্ডেস (ইংরেজি: Eddo Brandes; জন্ম: ৫ মার্চ, ১৯৬৩) দক্ষিণ আফ্রিকার নাটাল প্রদেশের পোর্ট শেপস্টোনে জন্মগ্রহণকারী জিম্বাবুয়ের সাবেক আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। ১৯৮৭ থেকে ১৯৯৯ সময়কালে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দলের পক্ষে টেস্ট ও একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশগ্রহণ করেছেন। এডো ব্রান্ডেস চারটি (১৯৮৭, ১৯৯২, ১৯৯৬১৯৯৯) ক্রিকেট বিশ্বকাপে জিম্বাবুয়ে দলের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। দলে তিনি

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর জিম্বাবুয়ীয় ক্রিকেটে ম্যাশোনাল্যান্ড দলের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। মূলতঃ ডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম বোলিং করতেন। এছাড়াও, নিচেরসারিতে কার্যকরী ব্যাটিংশৈলী উপস্থাপন করেছেন তিনি।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গনে জিম্বাবুয়ের অভিষেকের সময় থেকে অধিকাংশ খেলোয়াড়ই শৌখিন খেলোয়াড় হিসেবে অংশগ্রহণ করতেন। তিনিও এর ব্যতিক্রম ছিলেন না। তার মূল পেশা ছিল মুরগীর বাচ্চার খামারী। ৩ জানুয়ারি, ১৯৯৭ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে হ্যাট্রিক করার গৌরব অর্জন করেন।[১] খেলায় অদ্যাবধি সর্বোচ্চসংখ্যক গড়ে ব্যাটসম্যানকে আউট করার ঘটনা এটি। এছাড়াও নিজস্ব ৩৪তম জন্মদিনের দুইমাস পূর্বে সর্বাপেক্ষা জ্যেষ্ঠ ক্রিকেটার হিসেবে এ সাফল্য লাভ করেন। জিম্বাবুয়ের হারারে স্পোর্টস ক্লাবে অনুষ্ঠিত ৩য় একদিনের আন্তর্জাতিকে নিক নাইট, জন ক্রলি, নাসের হোসাইন তার শিকারে পরিণত হন। তার এ হ্যাট্রিকটি দুই ওভারে সম্পন্ন হয়।

বিতর্ক[সম্পাদনা]

আউট করতে ব্যর্থ হওয়ায় অস্ট্রেলীয় বোলার গ্লেন ম্যাকগ্রা'র সাথে তার আদিরসাত্মক বাক্য বিনিময়ের ঘটনা ঘটে। ম্যাকগ্রা তাকে জিজ্ঞাসা করলেন, 'আপনি এতো মোটা কেন?' জবাবে ব্রান্ডেস বলেন যে, 'কারণ, সার্বক্ষণিক আমি আপনার স্ত্রীকে ভালবাসি। তিনি প্রতিবারই আমাকে একটি করে বিস্কুট দেন।'[২]

কোচিং[সম্পাদনা]

২০০৩ সালে কোচিং করার জন্য অস্ট্রেলিয়া গমন করেন। এছাড়াও তিনি এক্সএক্সএক্সএক্স গোল্ড ব্রিসবেন গ্রেড প্রতিযোগিতায় সানশাইন কোস্ট স্কর্চার্স দলকে কোচিং করান। বর্তমানে তিনি সানশাইন কোস্টে টমেটোর খামার পরিচালনা করছেন।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]