হেনরি ওলোঙ্গা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
হেনরি ওলোঙ্গা
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামহেনরি খাবা ওলোঙ্গা
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট বোলার
ভূমিকাবোলার, ধারাভাষ্যকার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ২৫)
৩১ জানুয়ারি ১৯৯৫ বনাম পাকিস্তান
শেষ টেস্ট১৯ নভেম্বর ২০০২ বনাম পাকিস্তান
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ৪১)
২১ অক্টোবর ১৯৯৫ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
শেষ ওডিআই১২ মার্চ ২০০৩ বনাম কেনিয়া
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেষ্ট ক্রিকেট একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট
ম্যাচ সংখ্যা ৩০ ৫০
রানের সংখ্যা ১৮৪ ৯৫
ব্যাটিং গড় ৫।৪১ ৭.৩০
১০০/৫০ ০/০ ০/০
সর্বোচ্চ রান ২৪ ৩১
বল করেছে ৪৫০২ ২০৫৯
উইকেট ৬৮ ৫৮
বোলিং গড় ৩৮.৫২ ৩৪.০৮
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট {{{tenfor১}}} {{{tenfor২}}}
সেরা বোলিং ৫/৭০ ৬/১৯
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১০/– ১৩/–
উৎস: Cricinfo

হেনরি খাবা ওলোঙ্গা (ইংরেজি: Henry Khaaba Olonga; জন্ম: ৩ জুলাই, ১৯৭৬, জাম্বিয়া) জিম্বাবুয়ের সাবেক ক্রিকেটার

ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

হেনরি ওলোঙ্গা টেস্ট ক্রিকেটার হিসেবে ১৯৯৫ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে অভিষিক্ত হন। এসময় তার মাত্র ১৮ বছর ২১২ দিন বয়স ছিল।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

২০০৩ সালের বিশ্বকাপ ক্রিকেটে নামিবিয়ার বিপক্ষে খেলার সময় রবার্ট মুগাবে সরকারের গণতান্ত্রিক ধারা বর্জননীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদের অংশ হিসেবে অ্যান্ডি ফ্লাওয়ারের সাথে তিনিও কালো ব্যান্ড হাতে পরিধান করে খেলতে নামেন।[১] ১০ ফেব্রুয়ারি তারিখে ফ্লাওয়ারসহ তিনি একটি বিবৃতি দেন:

সকল দিক ভেবে-চিন্তে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে, বিশ্বকাপ চলাকালীন সময় পর্যন্ত কালো ব্যান্ড পরিধান করে খেলতে নামব। গণতন্ত্রের হত্যার বিপক্ষেই আমরা এটা করেছি। নীরব প্রতিবাদের অংশ হিসেবে মানবাধিকার লঙ্ঘনজনিত কারণেই তা করতে বাধ্য হয়েছি। আমাদের ছোট্ট কর্মকাণ্ডই দেশে শান্তি, স্থিতিশীলতা ও সংহতি ফিরিয়ে আনবে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Andy Flower & Henry Olonga: the 'death of democracy' remembered"BBC Sport। ৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৩।