শ্রেয়াস আইয়ার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(Shreyas Iyer থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
শ্রেয়াস আইয়ার
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামশ্রেয়াস সন্তোষ আইয়ার
জন্ম (1994-12-06) ৬ ডিসেম্বর ১৯৯৪ (বয়স ২৫)
মুম্বাই, মহারাষ্ট্র, ভারত
ডাকনামশ্রী
ব্যাটিংয়ের ধরনডান-হাতি
বোলিংয়ের ধরনডান-হাতি লেগ ব্রেক
ভূমিকাব্যাটসম্যান
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ২১৯)
১০ ডিসেম্বর ২০১৭ বনাম শ্রীলঙ্কা
শেষ ওডিআই১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ বনাম নিউজিল্যান্ড
ওডিআই শার্ট নং৪১
টি২০আই অভিষেক
(ক্যাপ ৭০)
১ নভেম্বর ২০১৭ বনাম নিউজিল্যান্ড
শেষ টি২০আই২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ বনাম নিউজিল্যান্ড
টি২০আই শার্ট নং৪১
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০১৩/১৪-বর্তমানমুম্বাই
২০১৫-বর্তমানদিল্লি ক্যাপিটালস (দল নং ৪১)
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই টি২০আই এফসি লিএ
ম্যাচ সংখ্যা ১৮ ২২ ৫৪ ৯৬
রানের সংখ্যা ৭৪৮ ৪১৭ ৪৫৯২ ৩৬৫১
ব্যাটিং গড় ৪৯.৮৬ ২৭.৮০ ৫২.১৮ ৪৪.৫২
১০০/৫০ ১/৮ ০/২ ১২/২৩ ৬/২৫
সর্বোচ্চ রান ১০৩ ৬২ ২০২* ১৪৮
বল করেছে ৭৪২ ৩২২ ৫৬৩১ ৩৮০৭
উইকেট - - - -
বোলিং গড় - - - -
ইনিংসে ৫ উইকেট - - - -
ম্যাচে ১০ উইকেট - - - -
সেরা বোলিং - - - -
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৮/০ ৭/০ ৩৭/০ ৪৪/০
উৎস: ক্রিকইনফো, ২ মার্চ ২০২০

শ্রেয়াস সন্তোষ আইয়ার (জন্ম: ৬ ডিসেম্বর ১৯৯৪) একজন ভারতীয় ক্রিকেটার যিনি বর্তমানে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে দিল্লি ক্যাপিটালসের অধিনায়ক ছিলেন। একজন ডানহাতি টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান, আইয়ার ভারত জাতীয় দলের হয়ে একদিনের আন্তর্জাতিক এবং টোয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন। ২০১৪ আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে তিনি ভারত অনূর্ধ্ব -১৯ ক্রিকেট দলের হয়ে খেলেছিলেন।[১] ঘরোয়া ক্রিকেটে তিনি মুম্বইয়ের হয়ে খেলেন।

প্রারম্ভিক সময়[সম্পাদনা]

শ্রেয়াস আইয়ারের জন্ম বোম্বাইতে (বর্তমানে মুম্বাই)। তার পিতা কেরালার সন্তোষ আইয়ার ও মাতা টুলুভা, ম্যাঙ্গালুরিয়ান রোহিনী আইয়ার।[২][৩] দ্য হিন্দুকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে আইয়ার উল্লেখ করেছিলেন যে তাঁর পূর্বপুরুষেরা মূলত কেরালার ত্রিশূর থেকে।[৪] আয়ারকে ১২ বছর বয়সে শিবাজি পার্ক জিমখানায় কোচ প্রবীন আম্রের নজরে আসেন। তার প্রাথমিক ক্রিকেটের দিনগুলিতে কোচ আম্রে তাকে প্রশিক্ষণ দেন।[৫] আইয়ারের সমবয়সী সতীর্থরা তাকে বীরেন্দ্র শেবাগের সাথে তুলনা করত।[৬] তিনি মুম্বইয়ের পোদার কলেজ থেকে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেছিলেন, যেখানে তিনি তাঁর কলেজ দলকে কিছুটা ট্রফি এনে দিতেও সহায়তা করেছিলেন।[৭]

তাঁর জুনিয়র এবং বয়সভিত্তিক গ্রুপের ক্রিকেটের যাত্রাটি লেখক আয়ুশ পুথরান পরিচালিত 'শ্রেয়াস আইয়ার ডকুমেন্টারি - এ ফাদারস ড্রিম' শিরোনামের শর্ট ফিল্মে বর্ণিত হয়েছে।[৮]

ঘরোয়া জীবন[সম্পাদনা]

২০১৪ সালে আইয়ার যুক্তরাজ্য ভ্রমণের সময় ট্রেন্ট ব্রিজ ক্রিকেট দলের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন, তিনি তিন ম্যাচ খেলেন ও গড়ে ৯৯ রান নিয়ে ২৯৭ রান সংগ্রহ করেন, যেখানে তিনি দলের জন্য সর্বোচ্চ ১৭১ রানের স্কোর একটি নতুন দলের রেকর্ড তৈরী করে।[৯]

আইয়র ২০১৪-১৫ সালের বিজয় হাজারে ট্রফি খেলে নভেম্বরে ২০১৪ সালে মুম্বাইয়ের হয়ে তার লিস্ট এ ক্রিকেটে অভিষেক করেন। উক্ত টুর্নামেন্টে তিনি ৫৪.৬০ গড়ে ২৭৩ রান স্কোর করেছিলেন। ২০১৪-১৫ ডিসেম্বরে রনজি ট্রফিতে ২০১৪ সালে তিনি প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে অভিষেক করেছিলেন । অভিষেকের রণজি মৌসুমে তিনি দুটি সেঞ্চুরি এবং ছয়টি অর্ধশতকসহ ৫০.৫৬ গড়ে গড়ে ৮০৯ রান করেছিলেন। তিনি ২০১৪-১৫ রণজি ট্রফির সর্বাধিকতম স্কোরার ছিলেন।[১০]

২০১৫-১৬ রণজি ট্রফিতে আইয়ার টুর্নামেন্টে চারটি সেঞ্চুরি ও সাতটি অর্ধশতক সহ ৭৩.৩৯ গড় নিয়ে মোট ১,৩২১ রান সংগ্রহ করেছিলেন, রণজি মৌসুমের শীর্ষতম রান সংগ্রহকারী এবং রণজি ট্রফির একটি মৌসুমে ১,৩০০ রান সংগ্রহকারী দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান ছিলেন।[১১] ২০১৬-১৭ রনজি ট্রফিতে আইয়ার ৪২..৬৪ গড়ে দুটি সেঞ্চুরি ও দুটি অর্ধশতক সহ ৭২৫ রান করেছিলেন। তিনি মুম্বাইয়ে সফরকারী অস্ট্রেলিয়া দলের বিপরীতে ৩ দিনের প্রীতি ম্যাচে ২১০ বলে ২০২ রান করেন অপরাজিত ছিলেন, এটিই ছিল তার প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটের সর্বোচ্চ স্কোর।

২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে, আইয়ারকে ২০১৮-১৯ বিজয় হাজারে ট্রফি প্রতিযোগিতার জন্য মুম্বাইয়ের সহ-অধিনায়ক হিসাবে মনোনীত করা হয়ে।[১২] টুর্নামেন্টে মুম্বাইয়ের হয়ে সাত ম্যাচে ৩৭৩ রান নিয়ে তিনি শীর্ষ রান সংগ্রহকারী ছিলেন।[১৩] অক্টোবর ২০১৮ এ, তাকে ২০১৮-১৯ দেওধর ট্রফির জন্য ভারত বি দলের স্কোয়াড হিসাবে মনোনীত করা হয়েছিল।[১৪] তিনি তিনটি ম্যাচ খেলে ১৯৯ রান নিয়ে দেওধর ট্রফির শীর্ষস্থানীয় রান সংগ্রহকারী ছিলেন।[১৫]

ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সালে, ২০১৮-১৯ সৈয়দ মোশতাক আলী ট্রফি টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী রাউন্ডে, আইয়ার একজন ভারতীয় ব্যাটসম্যান হিসাবে টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ ১৪৭ রান সংগ্রহ করেছিলেন।[১৬]

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ[সম্পাদনা]

ফেব্রুয়ারি ২০১৫ সালে, আইয়ার দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের হয়ে খেলতে ২.৬ কোটি (প্রায় $ ৪৩০,০০০ ডলার) ২০১৫ আইপিএল প্লেয়ার নিলামে স্বাক্ষর করেছিলেন। এইভাবে টুর্নামেন্টে আইয়ার সর্বাধিক উপার্জনকারী খেলোয়াড় হিসাবে অন্তর্ভূক্ত হন। তিনি ১৪ ম্যাচে ৩৩.৭৬ গড়ে এবং ১২৮.৩৬ স্ট্রাইক রেটে ৪৩৯ রান করেছিলেন, যা তাকে ২০১৫ সালের আইপিএলের নবম শীর্ষ স্থায়ী খেলোয়াড় এবং উদীয়মান খেলোয়াড় হিসাবে পরিচিতি পান।[১৭]

২০১৮ সালের আইপিএল নিলামেও দিল্লি ডেয়ারডেভিলস তাকে ধরে রাখে। ২৫ এপ্রিল ২০১৮ এ, গৌতম গম্ভীরের পরিবর্তে তাঁকে দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের নতুন অধিনায়ক হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছিল।[১৮][১৯][২০] ২৭ এপ্রিল ২০১৮, তিনি কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে ম্যাচ চলাকালীন ২৩ বছর ১৪২ দিন বয়সে আইপিএলের ইতিহাসে দিল্লি ডেয়ারডেভিলস দলের নেতৃত্বদানকারী সর্বকনিষ্ঠ অধিনায়ক ছিলেন এবং কোনও আইপিএল দলের অধিনায়ক হওয়া চতুর্থ কনিষ্ঠও ছিলেন।[২১] আইপিএল অধিনায়কত্বের অভিষেকের সময়ে, শ্রেয়াস আইয়ার তার ৪০টি ডেলিভারিতে ১০ টি ছক্কার সাহায্যে ৯৩ রানের অপরাজিত থেকে ডিডির জন্য ২১৯/৫ স্কোর তৈরী করেন এবং এটি ছিল তার আইপিএল মৌসুমের তৃতীয় ধারাবাহিক অর্ধশতক। ম্যাচ শেষে হাতে পান ম্যান অফ দ্য ম্যাচ পুরস্কার।[২২] তার অধিনায়কত্বের অধীনে, দিল্লি ডেয়ারডেভিলস কেকেআরকে ৫৫ রানে পরাজিত করতে সক্ষম হয়েছিল এবং টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় জয়টি অর্জন করেছিল তার দল।[২৩][২৪] তিনি আইপিএল ২০১৯ মৌসুমে দিল্লি ক্যাপিটালস কর্তৃক তাকে ধরে রেখেছিল এবং তিনি সাত বছর পর প্রথমবারের মতো দিল্লি ক্যাপিটালসকে প্লে অফ পর্যন্ত নিয়ে যান।

আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

২০১৭ সালের মার্চ মাসে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে চতুর্থ টেস্টের আগে বিরাট কোহলির বদলী হিসাবে ভারতের টেস্ট দলে তাকে যুক্ত করা হয়েছিল। তিনি চতুর্থ টেস্টে বিকল্প ফিল্ডার হিসাবে এসেছিলেন এবং স্টিফেন ও'কিফকে ৮ রানে আউট করেছিলেন।[২৫]

অক্টোবর ২০১৭ সালে, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের জন্য ভারতের টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক (টি২০আই) খেলার জন্য তাকে স্কোয়াড হিসাবে মনোনীত করা হয়েছিল।[২৬] তিনি নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ভারতের হয়ে টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক করেন ১ নভেম্বর ২০১৭, তবে তিনি ব্যাট করেননি।[২৭][২৮] ৪ নভেম্বর ২০১৭ এ, তিনি তার প্রথম ব্যাটিংয়ের সুযোগ পান এবং ২১ বলে ২৩ রান করেছিলেন।

২০১৭ সালের নভেম্বরে, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের জন্য ভারতের একদিনের আন্তর্জাতিক (ওডিআই) স্কোয়াডে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছিল।[২৯] ১০ ডিসেম্বর ২০১৭-তে তিনি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ভারতের হয়ে ওয়ানডে ক্রিকেটে অভিষেক করেছিলেন।[৩০] ওয়ানডেতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে শ্রেয়াস খেলেছিল। আগস্ট ২০১৯ সালে, তিনি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় ও তৃতীয় ওয়ানডেতে ৭১ এবং ৬৩ রান করেছিলেন তবে বৃষ্টির কারণে প্রথম ওয়ানডে পরিত্যক্ত হয়েছিল। তিনি ছিলেন বিরাট কোহলির পর এই সিরিজে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ICC Under-19 World Cup / India Under-19s Squad"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৯ ডিসেম্বর ২০১৪ 
  2. "Shreyas Iyer: The monk who cruises in his Ferrari"The Indian Express। ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১ এপ্রিল ২০১৯ 
  3. "Change in track that bore fruit"Deccan Herald। ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১ এপ্রিল ২০১৯ 
  4. Jawali, Madhu (২৭ জুন ২০১৫)। "Will play for India soon: Shreyas Iyer"The Hindu। সংগ্রহের তারিখ ১ এপ্রিল ২০১৯ 
  5. "Shreyas Iyer: . A promising young sensation making his mark for India Under-19"। Cricket Country। সংগ্রহের তারিখ ২৪ এপ্রিল ২০১৫ 
  6. "Shreyas Iyer: The Virender Sehwag of India Under-19"। DNA India। সংগ্রহের তারিখ ২৯ ডিসেম্বর ২০১৪ 
  7. Iyer, Sundari (২৩ মার্চ ২০১২)। "Despite injury, Shreyas claims six in Podar's win"MiD Day। সংগ্রহের তারিখ ১৩ এপ্রিল ২০১৫ 
  8. CricketCountry (১৯ নভেম্বর ২০১৫)। "Shreyas Iyer Documentary – A Father's Dream"। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মার্চ ২০১৭ – YouTube-এর মাধ্যমে। 
  9. Puthran, Aayush (২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৫)। "Shreyas Iyer – Wielding willowy wizardry from Mumbai to Clifton"। ৩ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মার্চ ২০১৭ 
  10. "Cricket Records – Ranji Trophy, 2014/15 – Records – Most runs – ESPN Cricinfo"। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মার্চ ২০১৭ 
  11. "Cricket Records – Ranji Trophy, 2015/16 – Records – Most runs – ESPN Cricinfo"। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মার্চ ২০১৭ 
  12. "Rahane to captain Mumbai in Vijay Hazare Trophy"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  13. "Vijay Hazare Trophy, 2018/19 - Mumbai: Batting and bowling averages"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০ অক্টোবর ২০১৮ 
  14. "Rahane, Ashwin and Karthik to play Deodhar Trophy"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৯ অক্টোবর ২০১৮ 
  15. "Deodhar Trophy, 2018/19: Most runs"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৭ অক্টোবর ২০১৮ 
  16. "Iyer's 147 smashes domestic T20 record, Pujara hits maiden T20 ton"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  17. "YouTube"। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মার্চ ২০১৭ 
  18. "Iyer replaces Gambhir as Daredevils captain"Cricinfo (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০১৮ 
  19. "Gambhir Steps Down as DD Captain, Iyer Handed Reigns"Delhi Daredevils (ইংরেজি ভাষায়)। ২৫ এপ্রিল ২০১৮। ২৬ এপ্রিল ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ এপ্রিল ২০১৮ 
  20. "What are Shreyas Iyer's captaincy credentials?"ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০১৮ 
  21. NDTVSports.com। "IPL Highlights, DD vs KKR: Delhi Daredevils Beat Kolkata Knight Riders By 55 Runs – NDTV Sports"NDTVSports.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০১৮ 
  22. "New captain Iyer's 93* off 40 blows KKR away"ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০১৮ 
  23. "Newly-crowned Iyer revives DD's campaign with a massive win"Cricbuzz (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০১৮ 
  24. "IPL 2018: Shreyas Iyer smashes 40-ball 93 as Delhi Daredevils beat Kolkata Knight Riders"www.hindustantimes.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২৭ এপ্রিল ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০১৮ 
  25. "Shreyas Iyer called up as cover for Kohli"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৩ মার্চ ২০১৭ 
  26. "Iyer, Siraj called up for New Zealand T20Is"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৩ অক্টোবর ২০১৭ 
  27. "1st T20I (N), New Zealand tour of India at Delhi, Nov 1 2017"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১৭ 
  28. "Rohit, Dhawan break both records and New Zealand"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১৭ 
  29. "Kohli rested for Sri Lanka ODIs; Rohit to lead"ESPN Cricinfo। ২৭ নভেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২৭ নভেম্বর ২০১৭ 
  30. "1st ODI (D/N), Sri Lanka tour of India at Dharamsala, Dec 10 2017"ESPN Cricinfo। ১০ ডিসেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১০ ডিসেম্বর ২০১৭ 

বাহ্যিক লিঙ্কগুলি[সম্পাদনা]