অধিনায়ক (ক্রীড়া)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(অধিনায়ক থেকে ঘুরে এসেছে)

অধিনায়ক, দলপতি (ইংরেজি: Captain) কোন নির্দিষ্ট ক্রীড়া দলের একজন খেলোয়াড়ের সম্মানসূচক পদবীবিশেষ ও প্রধান ব্যক্তিত্ব। দলের সকল সদস্য, কোচ, ম্যানেজার - সংখ্যাগরিষ্ঠ সকলের সম্মতিক্রমে একজন খেলোয়াড়কে অধিনায়ক হিসেবে মর্যাদা দেয়া হয়। অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে খেলার নিয়ম-কানুন সম্পর্কে যদি কোচ খেলোয়াড়দেরকে অবহিত না করেন তাহলে অধিনায়ক এ বিষয়ে উপস্থিত বুদ্ধিমত্তা প্রয়োগের মাধ্যমে হস্তক্ষেপ করে থাকেন। অর্থাৎ, একজন অধিনায়ককে খেলাধূলার যাবতীয় নিয়ম-কানুন সম্পর্কে সম্যক ধারণা অর্জন করতে হয়। দলীয় সাফল্য কিংবা ব্যর্থতার দায়-দায়িত্ব তাঁর কাঁধেই অর্পিত হয়। খেলা পরিচালনকারীর সাথে সুন্দর সৌজন্যমূলক সম্পর্ক বজায় রাখাসহ দলের সদস্যদের উদ্দীপনা যোগানদাতা হিসেবে তার ভূমিকা অনস্বীকার্য। এ অবস্থানটি অত্যন্ত সম্মানজনক এবং গৌরবের বিষয়ও বটে। তিনি দলের অন্যান্য সদস্যের কাছ থেকে সমীহ আদায়কারী ব্যক্তি হিসেবে বিবেচিত হয়ে থাকেন। সাধারণতঃ তাঁকে দলের সবচেয়ে কুশলী ও অভিজ্ঞতালব্ধ খেলোয়াড়রূপে গণ্য করা হয় এবং বিশেষ নম্বরের পোষাক পরিধানের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়। দলগত, জাতীয় কিংবা আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অধিনায়কত্ব লাভ খেলোয়াড়ী জীবনের সর্বশেষ স্তরস্বরূপ।

দায়-দায়িত্ব[সম্পাদনা]

অধিনায়ক দলের উল্লেখযোগ্য সদস্যরূপে দলের নেতৃত্বভার গ্রহণপূর্বক খেলার পূর্বে বা খেলা চলাকালীন সময়ে মাঠে কৌশল অবলম্বন, বুদ্ধিমত্তা প্রয়োগ এবং দলীয় সমঝোতায় লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেন। তিনি দলের সকল খেলোয়াড়ের প্রতিনিধি এবং মুখপাত্র। নৈতিক ও মানসিকভাবে তিনি বলীয়ান হয়ে থাকেন। প্রায়শঃই তাকে একমাত্র খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে রেফারী কিংবা আম্পায়ারের সাথে মন্তব্য করতে বা বিভ্রান্তি দূর করে স্বচ্ছতা আনয়ণে অংশ নিতে হয়। কিছু কিছু খেলায় অধিনায়ক বা ক্যাপ্টেন খেলা পরিচালনাকারী কর্মকর্তাদের সাথে খেলার নিয়ম-কানুনের প্রয়োগ নিয়েও আলোচনা করে থাকেন। প্রয়োজনে তিনি অন্যায় সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে দলকে মাঠের বাইরে নিয়ে আসতে পারেন। এছাড়াও, ফলাফল বিবরণীতেও তাঁকে স্বাক্ষর প্রদান করতে হয়।

বিভিন্ন ধরণের খেলাধূলায় হরেক রকম নিয়ম-কানুন লক্ষ্য করা যায়। ফলে নিয়ম-কানুন প্রতিপালনের জন্য দলনেতাকেও নির্দিষ্ট খেলার নিয়ম-কানুন সম্পর্কে তীক্ষ্ণ সচেতনতার পরিচয় দিতে হয়। ক্রিকেট, বেসবল, ফুটবল, আইস হকি প্রভৃতি খেলায় ক্যাপ্টেন শব্দের ব্যবহার লক্ষ্যণীয়। কিন্তু কার্লিং খেলায় তিনি স্কিপ নামে পরিচিত।

মার্শাল আর্টে একজন খেলোয়াড় প্রশিক্ষকের নির্দেশনায় খেলায় অংশ নেন। সেখানে প্রশিক্ষক বা সিনিয়র বেল্টধারী ব্যক্তিকে কখনো কখনো ক্যাপ্টেন নামে ডাকা হয়।

আগস্ট, ২০০৫ সালে হ্যান্ডবল খেলায় অধিনায়ককে আর্মব্যান্ড পড়ে খেলার অনুমতি দেয়া হয়েছে। অধিনায়কের প্রধান কাজ হচ্ছে টস প্রয়োগ করা যা বর্তমানে খেলার পূর্বে অন্য কোন কর্মকর্তা কিংবা অন্য কোন দায়িত্বপ্রাপ্ত খেলোয়াড়ও অংশ নিতে পারেন।

জার্মান আইনে ফুটবল খেলায় উভয় দলের অধিনায়ককেই বাহুর উপরের অংশে ব্যান্ডেজ পরিধান করা বাধ্যতামূলক। এরফলে মাঠে অবস্থানরত সকলেই দূর থেকে তাঁকে চিহ্নিত করতে পারেন। দলের খেলোয়াড় কিংবা অনুসারীর অ-খেলোয়াড়ীসুলভ আচরণের জন্যেও তাঁকে জবাবদিহিতা করতে হয়। ডিএফবি ফুটবল আইন ২০১১/২০১২ মোতাবেক -

খেলোয়াড় হিসেবে প্রতিটি দলের একজন অধিনায়ক রেফারীর সহযোগী হিসেবে বিবেচিত হবে। এছাড়াও তিনি দলের অন্যান্য সদস্যের আচার-আচরণের জন্যে দায়ী থাকবেন। তিনি বিশেষ সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন না ...

তিনি খেলা চলাকালীন স্থলাভিষিক্ত, আহত কিংবা বহিষ্কার হলে অন্য কোন খেলোয়াড়কে অধিনায়কের দায়িত্বভার অর্পণ করবেন।

অন্যান্য[সম্পাদনা]

যে-কোন স্তরের পেশাদারী খেলায় সবচেয়ে দীর্ঘস্থায়ী অধিনায়ক হিসেবে আসীন ছিলেন স্টিভ জার্মান। তিনি ডেট্রয়েট রেড উইংস দলের পক্ষে ১৯৮৬ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ দুই দশক জাতীয় হকি লীগে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন।[১]

ডেভিস কাপ টেনিসে একজন খেলোয়াড়কে শুধুমাত্র দলনেতা বা অধিনায়কের মর্যাদাই প্রদান করা হয় না; বরঞ্চ তিনি একই সঙ্গে ম্যানেজার কিংবা কোচের ভূমিকায়ও অবতীর্ণ হয়ে থাকেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]