শ্রেষ্ঠ শিশু শিল্পী বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার (বাংলাদেশ)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বাংলাদেশ জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার শ্রেষ্ঠ শিশু শিল্পী
প্রদানের কারণবাংলাদেশের চলচ্চিত্রে শিশু শিল্পীদের অভিনয়ের জন্য
অবস্থানঢাকা
দেশবাংলাদেশ
পুরস্কারদাতাবাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী
প্রথম পুরস্কৃত১৯৭৬
সর্বশেষ পুরস্কৃত২০১৮
বর্তমানে আধৃতনাইমুর রহমান আপনআফরীন আক্তার রাইসা
কালো মেঘের ভেলাযদি একদিন)
ওয়েবসাইটঅফিসিয়াল ওয়েবসাইট

শ্রেষ্ঠ শিশু শিল্পীর জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের শিশু শিল্পীদের জন্য সর্বাপেক্ষা সম্মানীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার; যা জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের অংশ হিসাবে ১৯৭৭ সাল থেকে প্রদান করা হচ্ছে। প্রথমবারের মত এই পুরস্কার অর্জন করেন মাস্টার আদনান মেঘের অনেক রং (১৯৭৬) চলচ্চিত্রের জন্য। সর্বাধিক তিনবার এই পুরস্কার অর্জন করেন প্রার্থনা ফারদিন দিঘী। দুইবার এই পুরস্কার অর্জন করেন আজাদ রহমান শাকিল

বিজয়ী শিশু শিল্পীর নাম[সম্পাদনা]

চাবি
চিহ্ন অর্থ
ছুরি বছরের যৌথ পুরস্কার
আঁখি আলমগীর ভাত দে (১৯৮৪) চলচ্চিত্রে অভিনয় করে এই পুরস্কার অর্জন করেন।
অরুণ সাহা দীপু নাম্বার টু (১৯৯৬) চলচ্চিত্রে অভিনয় করে এই পুরস্কার অর্জন করেন।
প্রার্থনা ফারদিন দীঘি কাবুলিওয়ালা (২০০৬), ১ টাকার বউ (২০০৮) ও চাচ্চু আমার চাচ্চু (২০১০) চলচ্চিত্রে অভিনয় করে তিনবার এই পুরস্কার অর্জন করেন।

১৯৭০-এর দশক[সম্পাদনা]

বছর শিশু শিল্পী ভূমিকা চলচ্চিত্র সূত্র
১৯৭৬ আদনান আদনান মেঘের অনেক রং [১]
১৯৭৭ শ্রেষ্ঠ শিশু শিল্পীর পুরস্কার দেওয়া হয় নি
১৯৭৮ ছুরি আজাদ রহমান শাকিল লেদু ডুমুরের ফুল
১৯৭৮ ছুরি সুমন মানিক অশিক্ষিত
১৯৭৯ ছুরি ইলোরা গহর মায়মুন সূর্য দীঘল বাড়ী
১৯৭৯ ছুরি সজীব কাসু

১৯৮০-এর দশক[সম্পাদনা]

বছর শিশু শিল্পী ভূমিকা চলচ্চিত্র সূত্র
১৯৮০ আজাদ রহমান শাকিল ডানপিঠে ছেলে [১]
১৯৮১ কোন পুরস্কার দেয়া হয় নি
১৯৮২ বিন্দী হুসাইন লাল কাজল
১৯৮৩ শ্রেষ্ঠ শিশু শিল্পীর পুরস্কার দেয়া হয় নি
১৯৮৪ আঁখি আলমগীর কিশোরী জরি ভাত দে
১৯৮৫ জয় রাম রামের সুমতি
১৯৮৬ কামরুন্নাহার আজাদ স্বপ্না মায়ের দাবী
১৯৮৭ ছুরি রাসেল কিশোর শ্রীকান্ত রাজলক্ষ্মী শ্রীকান্ত
১৯৮৭ ছুরি সুবর্ণা শিরিন কিশোরী রাজলক্ষ্মী
১৯৮৮ তুষার আগমন
১৯৮৯ শ্রেষ্ঠ শিশু শিল্পীর পুরস্কার দেয়া হয় নি

১৯৯০-এর দশক[সম্পাদনা]

বছর শিশু শিল্পী ভূমিকা চলচ্চিত্র সূত্র
১৯৯০ দোদুল লাখে একটা [১]
১৯৯১ জয়সন টুটুল সান্ত্বনা
১৯৯২ বেবি সিমী উচিত শিক্ষা
১৯৯৩ অনিক অবুঝ সন্তান
১৯৯৪ শীলা আহমেদ অপলা আগুনের পরশমণি
১৯৯৫ তন্ময় অন্য জীবন
১৯৯৬ অরুণ সাহা দীপু দীপু নাম্বার টু
১৯৯৭ নিশি দুখাই
১৯৯৮ শ্রেষ্ঠ শিশু শিল্পীর পুরস্কার দেয়া হয় নি
১৯৯৯ শ্রেষ্ঠ শিশু শিল্পীর পুরস্কার দেয়া হয় নি

২০০০-এর দশক[সম্পাদনা]

বছর শিশু শিল্পী ভূমিকা চলচ্চিত্র সূত্র
২০০০ শ্রেষ্ঠ শিশু শিল্পীর পুরস্কার দেয়া হয় নি [১]
২০০১ শ্রেষ্ঠ শিশু শিল্পীর পুরস্কার দেয়া হয় নি
২০০২ রাসেল ফরাজী রোকন মাটির ময়না
২০০৩ প্রিয়াংকা কখনো মেঘ কখনো বৃষ্টি
২০০৪ অমল দূরত্ব [২]
২০০৫ হৃদয় ইসলাম শুভ্র টাকা
২০০৬ প্রার্থনা ফারদিন দিঘী মিনি কাবুলিওয়ালা
২০০৭ শ্রেষ্ঠ শিশু শিল্পীর পুরস্কার দেয়া হয় নি
২০০৮ প্রার্থনা ফারদিন দিঘী দিঘী ১ টাকার বউ [৩]
২০০৯ সৈয়দা ওয়াহিদা সাবরীনা নিপা গঙ্গাযাত্রা [৪]

২০১০-এর দশক[সম্পাদনা]

বছর শিশু শিল্পী ভূমিকা চলচ্চিত্র সূত্র
২০১০ প্রার্থনা ফারদিন দিঘী তৃপ্তি চাচ্চু আমার চাচ্চু [৫]
২০১১ সেমন্তী পাখি খণ্ড গল্প ১৯৭১ [৬]
২০১২ মামুন কমলা/জহির ঘেটুপুত্র কমলা [৭]
২০১৩ স্বচ্ছ দুলাল একই বৃত্তে [৮]
২০১৪ আবির হোসেন অংকন জেমী চৌধুরী বৈষম্য [৯][১০]
২০১৫ যারা যারিব প্রার্থনা [১১]
২০১৬ আনুম রহমান সাঁঝবাতি রূপসা শঙ্খচিল
২০১৭ নাইমুর রহমান আপন ছিটকিনি [১২]
২০১৮ ফাহিম মোহতাসিম লাজিম পুত্র [১২]
২০১৯ ছুরি নাইমুর রহমান আপন কালো মেঘের ভেলা [১৩]
২০১৯ ছুরি আফরীন আক্তার রাইসা রূপকথা যদি একদিন

পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

একাধিকবার বিজয়ী[সম্পাদনা]

৩ বার
২ বার

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্তদের নামের তালিকা (১৯৭৫-২০১২)"বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন। সংগ্রহের তারিখ ১৮ অক্টোবর ২০১৫ 
  2. "National Film Awards for the last fours years announced" [চার বছরের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ঘোষণা]। দ্য ডেইলি স্টার। ঢাকা, বাংলাদেশ। ১ সেপ্টেম্বর ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুলাই ২০১৭ 
  3. "জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০০৮ ঘোষণা"দৈনিক প্রথম আলো। ঢাকা, বাংলাদেশ। ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১২। ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুলাই ২০১৭ 
  4. "জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০০৯"বাংলানিউজ টোয়েন্টিফোর.কম। ঢাকা, বাংলাদেশ। ২৪ মার্চ ২০১১। ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুলাই ২০১৭ 
  5. "সেরা ছবি গহীনে শব্দ, অভিনয়ে সাকিব-পূর্ণিমা"দৈনিক আজাদী। ২২ মার্চ ২০১২। ২০১৬-১১-৩০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুলাই ২০১৭ 
  6. "সেরা ছবিসহ ছয়টি বিভাগে 'গেরিলা' পুরস্কৃত"প্রথম আলো। ১৫ জানুয়ারি ২০১৩। ২০১৮-১২-২৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  7. "'জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১২' ঘোষণা"দৈনিক ইত্তেফাক। ৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুলাই ২০১৭ 
  8. "জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০১৩"বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন। সংগ্রহের তারিখ ১৮ অক্টোবর ২০১৫ 
  9. "জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০১৪"বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন। সংগ্রহের তারিখ ১৮ অক্টোবর ২০১৫ 
  10. "জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৪ ঘোষণা"দৈনিক জনকণ্ঠ। ঢাকা, বাংলাদেশ। ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মার্চ ২০১৬ 
  11. "২০১৫ সালের 'জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার' ঘোষণা"দৈনিক জনকণ্ঠ। ঢাকা, বাংলাদেশ। ১৯ মে ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৯ মে ২০১৭ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  12. "জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০১৭ ও ২০১৮"তথ্য অধিদফতর। সংগ্রহের তারিখ ৭ নভেম্বর ২০১৯ 
  13. "জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০১৯" (PDF)তথ্য মন্ত্রণালয়। সংগ্রহের তারিখ ৮ ডিসেম্বর ২০২০