অশিক্ষিত (চলচ্চিত্র)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
অশিক্ষিত
অশিক্ষিত (চলচ্চিত্র).jpg
অশিক্ষিত চলচ্চিত্রের পোস্টার
পরিচালকআজিজুর রহমান
প্রযোজকরমলা সাহা
চিত্রনাট্যকারআজিজুর রহমান
কাহিনিকারসত্য সাহা
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারসত্য সাহা
চিত্রগ্রাহকআবু হেনা বাবলু
সম্পাদকনুরুন্নবী
পরিবেশকস্বরলিপি ফিল্মস
মুক্তি১৯৭৮
দৈর্ঘ্য১২৭ মিনিট
দেশবাংলাদেশ
ভাষাবাংলা ভাষা

অশিক্ষিত ১৯৭৮ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত বাংলাদেশী বাংলা ভাষার চলচ্চিত্র। ছায়াছবিটি পরিচালনা করেছেন আজিজুর রহমান এবং কাহিনী লিখেছেন প্রখ্যাত সঙ্গীত পরিচালক সত্য সাহা। এতে শ্রেষ্ঠাংশে অভিনয় করেন রাজ্জাক, অঞ্জনা রহমান, সুমন, রোজী সামাদ, এটিএম শামসুজ্জামান প্রমুখ। ছায়াছবিটি বাণিজ্যিক সফলতার পাশাপাশি সমালোচকদের প্রশংসাও কুড়ায়।[১]

কাহিনী সংক্ষেপ[সম্পাদনা]

গ্রামের চৌকিদার রহমত লেখাপড়া জানে না। অশিক্ষিত রাজ্জাককে লেখাপড়া শেখায় গ্রামের দরিদ্র অনাথ বালক মানিক। রাজ্জাক নাম দস্তখত করা শেখে তার কাছে। দুর্নীতিবাজ আড়তদারের অপরাধ দেখে ফেলায় খুন হয় মানিক। তার খুনের সাক্ষী হয় রাজ্জাক এবং তার সাক্ষ্যে শাস্তি হয় অপরাধীর। সাক্ষীর দরখাস্তে নিজ হাতে নাম সই করে রাজ্জাক।

শ্রেষ্ঠাংশে[সম্পাদনা]

সঙ্গীত[সম্পাদনা]

অশিক্ষিত চলচ্চিত্রের সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন সত্য সাহা। গানের কথা লিখেছেন গাজী মাজহারুল আনোয়ার। গানে কণ্ঠ দিয়েছেন খন্দকার ফারুক আহমদ, শাম্মী আখতার, সুবীর নন্দী, রমলা সাহা, ও ফেরদৌস ওয়াহিদ। এ চলচ্চিত্রের সুবীর নন্দীর কণ্ঠে মাস্টার সাব আমি নাম দস্তখত এবং শাম্মি আখতারখন্দকার ফারুক আহমদের কণ্ঠে ঢাকা শহর আইসা আমার গান দুটি বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করে।[২]

গানের তালিকা[সম্পাদনা]

নং গানের শিরোনাম কণ্ঠশিল্পী পর্দায় শিল্পী
ঐ যে দুরের আকাশ রমলা সাহা রাজ্জাক, অঞ্জনা রহমান
আমি এক পাহারাদার ফেরদৌস ওয়াহিদ রাজ্জাক
মাস্টার সাব আমি নাম দস্তখত সুবীর নন্দী ও সাবিনা ইয়াসমিন রাজ্জাক, সুমন
ঢাকা শহর আইসা আমার শাম্মি আখতার ও খন্দকার ফারুক আহমেদ রাজ্জাক, অঞ্জনা রহমান

পুরস্কার[সম্পাদনা]

রাজ্জাক রহমত চরিত্রে একজন অশিক্ষিত মানুষের শিক্ষিত হওয়ার যে প্রাণান্ত প্রচেষ্টা তা যথাযথভাবে ফুটিয়ে তোলার জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেতা হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন।[৩] পাশাপাশি সুমন শ্রেষ্ঠ শিশুশিল্পী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার

  • বিজয়ী: শ্রেষ্ঠ অভিনেতা - রাজ্জাক[৪]
  • বিজয়ী: শ্রেষ্ঠ শিশুশিল্পী - সুমন

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. শান্তা মারিয়া (২৩ জানুয়ারি ২০১৬)। "নায়করাজের সেরা পাঁচ"বিডিনিউজ। ঢাকা, বাংলাদেশ। সংগ্রহের তারিখ ৬ মার্চ ২০১৬ 
  2. শান্তা মারিয়া (২৩ জানুয়ারি ২০১৬)। "নায়করাজের সেরা পাঁচ"দৈনিক করতোয়া। ঢাকা, বাংলাদেশ। সংগ্রহের তারিখ ৬ মার্চ ২০১৬ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. "নায়করাজ রাজ্জাক"মিডিয়া খবর। ঢাকা, বাংলাদেশ। ২৩ জানুয়ারি ২০১৬। ২০ এপ্রিল ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ মার্চ ২০১৬ 
  4. "৭৫-এ নায়করাজ রাজ্জাক"দৈনিক দিনকাল। ঢাকা, বাংলাদেশ। ২৩ জানুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ৬ মার্চ ২০১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]