মৌভাষা ফাযিল মাদরাসা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মৌভাষা ফাযিল মাদরাসা, রংপুর
ধরনমাদ্রাসা
স্থাপিত১ জানুয়ারি ১৯৪৮; ৭৩ বছর আগে (1948-01-01)
প্রতিষ্ঠাতাশাহ আব্দুল বাকি
অধিভুক্তিইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ (২০০৬ – ২০১৬)
ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় (২০১৬ – বর্তমান)
অধ্যক্ষআব্দুল লতিব মিঞা
শিক্ষায়তনিক ব্যক্তিবর্গ
২৪ জন
শিক্ষার্থী৩৫০
ঠিকানা, ,
বাংলাদেশ
ইআইআইএন১২৭২৭১
ক্রীড়াক্রিকেট, ফুটবল, ভলিবল, ইসলামি সংগীত

মৌভাষা ফাযিল মাদরাসা রংপুর বিভাগের রংপুর জেলার গংগাচড়া উপজেলার মর্ণেয়া ইউনিয়নের একটি ফাযিল মাদ্রাসা।[১]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

এই মাদরাসাটি ১৯৪৮খ্রি. মাও. শাহ মো. আব্দুল বাকির উদ্যোগ ও প্রচেষ্টায় মৌভাষা মৌজায় লাখেরাজটারীতে প্রতিষ্ঠিত হয়। তিনি প্রথম সুপারের দায়িত্ব পালন করেন। মাদরাসাটি আব্দুর রহমান, আজিজুদ্দিন খলিফাসহ গ্রামের অন্যান্য ব্যক্তির দান করা ২ একরের উর্ধে জমির উপর প্রতিষ্ঠিত। ১৯৫৫ সালে দাখিল অনুমতি পেয়ে মাত্র ১১ বছরে অর্থাৎ ১৯৬৭ সালে ফাযিল অনুমতি পায়। পাকিস্তান আমলের দালান কোটায় মাদরাসাটি দেখতে খুবই সুন্দর।[২]

ভবনের বিবরণ[সম্পাদনা]

মাদরাসাটিতে ৪টি ভবন আছে-

  1. প্রশাসনিক ভবন-১টি।
  2. একাডেমিক ভবন-৩টি।

অন্যান্য[সম্পাদনা]

  1. বিজ্ঞানাগার-১টি
  2. কম্পিউটার ল্যাব-১টি
  3. পাঠাগার- ১টি

সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড[সম্পাদনা]

মাদাসার অনেক ছাত্র-ছাত্রী জাতীয় পর্যায়ে রচনা, ইসলামি সংগিত, কেরাত ও খেলাধুলা প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণ করে বিজয়ী হয়েছে।

ফলাফল[সম্পাদনা]

প্রতিবছর মাদরাসাটি বোর্ড ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষায় কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখে। ভালো ফলাফলের জন্য গংগাচড়া উপজেলা প্রশাসন থেকে ২০০৬ সালে উদ্দীপনা পুরুস্কার পায়।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "গংগাচড়া উপজেলা"। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-২৪ 
  2. আলম (২০১৩)। গংগাচড়া উপজেলার ইতিহাস ও ঐতিহ্য। রংপুর: লেখক সংসদ। পৃষ্ঠা ১১৪। আইএসবিএন 9789848923450 
  3. অধ্যক্ষ, মৌভাষা ফাযিল মাদরাসা। "সাক্ষাৎকার তাং-২৬-৬-২০২১"।