হানুয়া লক্ষ্মীপাশা মুহাম্মাদিয়া আলিম মাদরাসা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
হানুয়া লক্ষ্মীপাশা মুহাম্মাদিয়া আলিম মাদরাসা
হানুয়া লক্ষ্মীপাশা মাদরাসা.jpg
লক্ষ্মীপাশা মাদরাসার লোগো
অবস্থান
লক্ষ্মীপাশা, কবাই, বাকেরগঞ্জ [১]

, ,
৮২৮৪
স্থানাঙ্ক২২°৩১′৩৭″ উত্তর ৯০°২৪′৫৮″ পূর্ব / ২২.৫২৬৯৫৫° উত্তর ৯০.৪১৬১৩৯° পূর্ব / 22.526955; 90.416139স্থানাঙ্ক: ২২°৩১′৩৭″ উত্তর ৯০°২৪′৫৮″ পূর্ব / ২২.৫২৬৯৫৫° উত্তর ৯০.৪১৬১৩৯° পূর্ব / 22.526955; 90.416139
তথ্য
তহবিলের ধরনশিক্ষা প্রতিষ্ঠান
নীতিবাক্যপড় তোমার প্রভুর নামে
(Read in the name of your Lord)
প্রতিষ্ঠাকাল১৯৭২ সাল
স্থাপিত১৯৭২ সাল
কার্যক্রম শুরু০৯:০০
প্রতিষ্ঠাতামাওলানা আব্দুল মালেক ফরাজী
বন্ধ০৪:০০
বিদ্যালয় বোর্ডবাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড, ঢাকা
কর্তৃপক্ষগভর্নিং বডি
বিদ্যালয় কোড১৬৩৮০
অধ্যক্ষমাওলানা খলিলুর রহমান
কর্মকর্তা২২
শ্রেণী(ইবতেদায়ী ১ম-৫ম)
(দাখিল, ৬ষ্ঠ-১০ম,)
(আলিম, একাদশ-দ্বাদশ)
ভাষাবাংলা, ইংরেজি, আরবি
আয়তন১১৯ শতাংশ
ক্যাম্পাসের ধরনগ্রাম্য
ডাকনামলক্ষ্মীপাশা মাদরাসা

হানুয়া লক্ষ্মীপাশা মুহাম্মাদিয়া আলিম মাদরাসা বাংলাদেশের বরিশালের একটি আলিয়া মাদ্রাসা যা লক্ষ্মীপাশা মাদরাসা নামে খ্যাত। মাদ্রাসাটির প্রথম অধ্যক্ষ ছিলেন আব্দুল মালেক ফরাজী।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

হানুয়া লক্ষ্মীপাশা মুহাম্মাদিয়া আলিম মাদরাসা ১৯৭২ খ্রিষ্টাব্দে আব্দুল মালেক ফরাজী, মাওলানা সাইদুর রহমান, আব্দুল কাদের ফরাজী, আব্দুল খালেক ফরাজী ও খান আবু ইউসুফ সিদ্দিকী কর্তৃক বাকেরগঞ্জের কবাই ইউনিয়নে প্রতিষ্ঠিত হয়। ১ জানুয়ারি ১৯৭৬ সালে মাদরাসাটি (১ম-১০ম) শ্রেণী পর্যন্ত বাংলাদেশ মাদ্‌রাসা শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক অনুমতি লাভ করে। এবং ১৯৭৭ সালে প্রথম স্বীকৃতি পায়। ১ জুলাই ১৯৮৬ সালে আলিম (একাদশ-দ্বাদশ) শ্রেণীর স্বীকৃতি লাভ করে।

ক্যাম্পাস[সম্পাদনা]

হানুয়া লক্ষিপাশা মুহাম্মাদিয়া আলিম মাদরাসা বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলাধীন কবাই ইউনিয়নে অবস্থিত।

প্রিন্সিপালগণ[সম্পাদনা]

  • মাওলানা আব্দুল মালেক ফরাজী (প্রিন্সিপাল) (১৯৭৬-২০১৩)
  • খান আবু ইউসুফ সিদ্দিকী (ভারপ্রাপ্ত) (২০১৩-২০১৪)
  • শেখ মুহাম্মদ আবু জাফর (ভারপ্রাপ্ত) (২০১৪-২০১৫)
  • মাওলানা আফজাল হোসাইন (ভারপ্রাপ্ত) (২০১৫-২০১৬)
  • মুহাম্মদ খলিলুর রহমান (প্রিন্সিপাল) (২০১৬-বর্তমান)[১]

শিক্ষক কর্মচারীবৃন্দ[২][সম্পাদনা]

  1. মো. খলিলুর রহমান (প্রিন্সিপাল)
  2. শেখ মুহাম্মদ আবু জাফর (সহকারী অধ্যাপক)
  3. মো. আফজাল হুসাইন (সহকারী অধ্যাপক)
  4. মো. আনছারুজ্জামান (সহকারী অধ্যাপক)
  5. খান আবু ইউসুফ সিদ্দিকী (প্রভাষক আরবি)
  6. মো. তৌহিদুল ইসলাম (প্রভাষক ইতিহাস)
  7. মো. মিজানুর রহমান (প্রভাষক আরবি)
  8. নুসরাত জাহান লিমা (প্রভাষক ইংরেজি)
  9. মো. জসিম উদ্দিন খান (সহকারী মৌলভী)
  10. মো. শহিদুল ইসলাম (সহকারী মৌলভী)
  11. মো. মিজানুর রহমান (সহকারী মৌলভী)
  12. মো. হারুুন অর রশিদ (সহকারী শিক্ষক, বাংলা)
  13. দিলরুবা (সহকারী শিক্ষক, গণিত)
  14. মুসরাত জাহান (সহকারী শিক্ষক, কৃষি)
  15. মো. শাহ আলম হাওলাদার (জুনিয়র শিক্ষক)
  16. মো. আক্কাস আলী মিয়া (জুনিয়র শিক্ষক)
  17. সাজেদা (জুনিয়র শিক্ষক)
  18. মো. মোশারেফ হোসেন (নিম্নমান সহকারী)
  19. মো. আঃ রশিদ ফরাজি (প্রহরী)
  20. মো. জাকির হোসেন (দপ্তরী)

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]