ফরিদগঞ্জ মজিদিয়া কামিল মাদ্রাসা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ফরিদগঞ্জ মজিদিয়া কামিল মাদ্রাসা
ঠিকানা
ফরিদগঞ্জ পূর্ব বাজার


তথ্য
ধরনমাদ্রাসা
প্রতিষ্ঠাকাল১৮৯৬
প্রতিষ্ঠাতাশাহ্ সুফি আব্দুল মজিদ
বিদ্যালয় জেলাচাঁদপুর
অধ্যক্ষমাওঃ ড. এ কে এম মাহবুবুর রহমান
শ্রেণীপ্রথম শ্রেণি থেকে কামিল (এম এ) পর্যন্ত
শিক্ষার্থী সংখ্যাসহস্রাধিক
ভাষার মাধ্যমবাংলা, ইংরেজি ও আরবি
ভাষাবাংলা, ইংরেজি ও আরবি
ক্যাম্পাসের ধরনশহুরে

ফরিদগঞ্জ মজিদিয়া কামিল মাদ্রাসা চট্টগ্রাম বিভাগের চাঁদপুর জেলার অন্তর্ভুক্ত ফরিদগঞ্জ উপজেলার একটি আলিয়া মাদ্রাসা[১] বর্তমানে এটি ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত একটি মাদ্রাসা। মাদ্রাসাটি কামিল বা মাস্টার্স সমমান মাদ্রাসা।

অবস্থান[সম্পাদনা]

এই মাদ্রাসাটি ফরিদগঞ্জ উপজেলার ফরিদগঞ্জ বাজারের পূর্ব দিকে লাইব্রেরির অপর পাশে অবস্থিত। এটি ফরিদগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের ঠিক পাশেই অবস্থিত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

শাহ্ সুফি আব্দুল মজিদ এর হাত ধরে ১৮৯৬ সালে এই প্রতিষ্ঠানটির যাত্রা শুরু হয়। এটিকে চাঁদপুর জেলার সবচেয়ে প্রাচীন মাদ্রাসা হিসেবে ধরা হয়। শুধু চাঁদপুর নয়, এটিকে ভারতীয় উপমহাদেশের সবচেয়ে প্রাচীন প্রতিষ্ঠান হিসেবে ধরা হয়। ব্রিটিশ শাসনামল ও পাকিস্তান শাসনামল থেকে এখন পর্যন্ত এই ইসলামি বিদ্যানিকেতনটি সমানতালে তার শিক্ষা প্রদান করে আসছে। চাঁদপুর জেলার মধ্যে ইসলামিক বিভিন্ন বিষয়ের উপর একমাত্র অনার্স মাদ্রাসা এটি। যা ২০১০ সালে ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে বৃহত্তর কুমিল্লানোয়াখালীসহ মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের জন্য ইসলামি বিভিন্ন বিষয়ের উপর অনার্স বিভাগটি চালু করা হয়।[১] এবং ২০১৬ সালের পরে মাদ্রাসাটি ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত হয়।

শিক্ষা ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

এই মাদ্রাসার ছাত্র সংখ্যা বর্তমানে সহস্রাধিকেরও অধিক। এখানে মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে রয়েছে সাধারণ এবং বিজ্ঞান বিভাগ। কারিগরি শিক্ষার জন্য রয়েছে আলাদা ব্যবস্থা। এখানে ফাযিল (ডিগ্রী) বি,এ এবং চার বছরের কোর্সে অনার্স রয়েছে। এছাড়াও এখানে কামিল (এম,এ) পর্যন্ত অধ্যয়ন করার সুযোগ রয়েছে। এখানে প্রত্যেকটি শ্রেণির পাঠদান সি,সি ক্যামেরার মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করা হয়। [১]

অনার্স বিষয় সমূহ[সম্পাদনা]

এখানে বি,এ অনার্স (সম্মান) বিভাগে হাদিস, তাফসির, ফিকহসহ অন্যান্য বিষয়ের উপর অনার্স বিভাগ চালু রয়েছে।[১] এছাড়াও এখানে শিক্ষক ও মেধাবী ছাত্রদের দ্বারা পরিচালিত একটি কুরআনহাদিসের গবেষণা কেন্দ্র রয়েছে।[১]

ক্যাম্পাস[সম্পাদনা]

বর্তমানে কামিল শ্রেণীতে হাদীস, তাফসীর, ফিকহ্ বিভাগ, আল-হাদীস এবং ইসলামী শিক্ষা, দাওয়া বিষয় চালু রয়েছে।

উল্লেখযোগ্য প্রাক্তন শিক্ষার্থী[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ইতিহাস ঐতিহ্যে চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ মজিদিয়া কামিল মাদরাসা - আমাদের বাংলাদেশ বিডি"। ৩১ মে ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ মে ২০১৮