মো. শওকত ইমাম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মো. শওকত ইমাম
জন্ম(১৯৬১-০৫-২০)২০ মে ১৯৬১
টাঙ্গাইল, পূর্ব পাকিস্তান (বর্তমান বাংলাদেশ)
মৃত্যু২৫ ফেব্রুয়ারি ২০০৯(2009-02-25) (বয়স ৪৭)
পিলখানা সদর দপ্তর, ঢাকা, বাংলাদেশ
আনুগত্যবাংলাদেশ বাংলাদেশ
সার্ভিস/শাখা বাংলাদেশ সেনাবাহিনী
বাংলাদেশ রাইফেলস (বিডিআর)
কার্যকাল১৯৮৪ থেকে ২০০৯
পদমর্যাদাকর্নেল[১]
ইউনিটআর্টিলারি রেজিমেন্ট
নেতৃত্বসমূহ
  • সেক্টর কমান্ডার -বাংলাদেশ রাইফেলস (বিডিআর)
  • জর্জিয়ায় জাতিসংঘ পর্যবেক্ষণ মিশন
  • সুদানে জাতিসংঘ মিশন

শহীদ কর্নেল মো. শওকত ইমাম বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কর্নেল ছিলেন। তিনি জাতিসংঘ অন্তর্বর্তীকালীন সহায়তা মিশনে অধিনায়ক সহ বেশ কয়েকটি পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন। ২০০৯-এর বিডিআর বিদ্রোহে নিহত হওয়ার সময়ে তিনি বিডিআরের সেক্টর কমান্ডার পদে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।[২][৩][৪]

প্রথম জীবন[সম্পাদনা]

মো. শওকত ইমাম ২০ মে ১৯৬১ সালের পূর্ব পাকিস্তানে টাঙ্গাইলে (বর্তমান বাংলাদেশ) জন্মগ্রহণ করেন। [৫][৬]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

শহীদ কর্নেল মো. শওকত ইমাম ১৯৮৪ সালের ১ জুন আর্টিলারি রেজিমেন্টে কমিশন লাভ করেন। চাকরি জীবনে তিনি ৫, ২১, ৩৬ ও ৩৮ এডি রেজিমেন্ট আর্টিলারি, ১৪ ফিল্ড রেজিমেন্ট আর্টিলারি, ২৩ রাইফেল ব্যাটালিয়ন, এসিঅ্যান্ডএস ও সেনা সদর আর্টিলারি পরিদপ্তরে বিভিন্ন নিযুক্তিতে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি জর্জিয়ায় জাতিসংঘ পর্যবেক্ষণ মিশন এবং সুদানে জাতিসংঘ মিশনে দায়িত্ব পালন করেন। সবশেষে তিনি বিডিআরের সেক্টর কমান্ডার পদে দায়িত্ব পালন করছিলেন।[৭][৮]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

তিনি স্ত্রী নুজহাত আহসান ও একমাত্র কন্যা সুমেরা ফাইজা আজরিনকে রেখে গেছেন। [৯]

মরণ[সম্পাদনা]

২৫ ফেব্রুয়ারী ২০০৯ সালের বাংলাদেশ রাইফেলস বিদ্রোহে কর্নেল মো. শওকত ইমাম নিহত হন। বিদ্রোহে নিহত অন্যান্য সেনা কর্মকর্তাদের পাশাপাশি তাকেও পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন সম্পন্ন করা হয়। [১০] ২ মার্চ ২০০৯ সালে বাংলাদেশ আর্মি গ্রাভেয়ার্ডে বনানীতে তাকে দাফন করা করা হয়।[১১][১২]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Perpetrators to be brought to justice"thedailystar.net। The Daily Star। ৮ মার্চ ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৬ 
  2. "12 more Bangladeshi monks deported from Burma - Kaladan Press Network"kaladanpress.org। Kaladan News। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৬ 
  3. "Officers, soldiers who were killed"thedailystar.net। The Daily Star। ৫ নভেম্বর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৬ 
  4. "Army officers' janaza today"thedailystar.net। The Daily Star। ২ মার্চ ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৬ 
  5. "Cablegate: Leahy Vetting for Para Military Training Exercise 09-1"scoop.co.nz। Scoop News। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৬ 
  6. "Leahy Vetting for Para Military Training Exercise 09-1 Course, October 12 - November 13"wikileaks.org। Wikileaks। ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৬ 
  7. "bYTEBoss List_RAOWA_Member"byteboss.com। ২০ নভেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৬ 
  8. "BDR pushes back 19 Burmese national to Burma - Kaladan Press Network"www.kaladanpress.org। Kaladan News। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৬ 
  9. Al-mahmood, Syed Zain। "Anniversary of a Mutiny"archive.thedailystar.net। The Daily Star। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৬ 
  10. "Janaza for 41 slain army officers, DG's wife tomorrow (Monday) at National Parade Square"highbeam.com। United News of Bangladesh। ১ মার্চ ২০০৯। ১ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৬ 
  11. "50 laid to rest with state honours"thedailystar.net। The Daily Star। ৩ মার্চ ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৬ 
  12. Akash, Jahangir Alam। Pain (ইংরেজি ভাষায়)। Xlibris Corporation। পৃষ্ঠা 274। আইএসবিএন 9781456858032। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৬