খগাখড়িবাড়ী ইউনিয়ন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
খগাখড়িবাড়ী
ইউনিয়ন
ডাকনাম: খগাখড়িবাড়ী ইউপি
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগরংপুর বিভাগ
জেলানীলফামারী জেলা
উপজেলাডিমলা উপজেলা উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
সরকার
 • চেয়ারম্যানরবিউল ইসলাম লিথন
উচ্চতা[১]৫৫ মিটার (১৮০ ফুট)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট৩২,১০৩
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড৫৩৫১ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন

খগাখড়িবাড়ী ইউনিয়ন বাংলাদেশের নীলফামারী জেলার ডিমলা উপজেলার অন্তর্গত একটি ইউনিয়ন। ইউনিয়নটি একটি সীমান্তবর্তী এলাকা।[২]

অবস্থান[সম্পাদনা]

খগাখড়িবাড়ী ইউনিয়ন নীলফামারী জেলার সীমান্তবর্তী একটি অবহেলিত ইউনিয়ন। এ ইউনিয়নের উত্তরে ভারতের কুচবিহার জেলা ও পূর্ব ছাতনাই ইউনিয়ন, পূর্বে টেপাখড়িবাড়ী ইউনিয়ন, গয়াবাড়ী ইউনিয়ন, দক্ষিণে ডিমলা সদর ইউনিয়ন, এবং পশ্চিমে বালাপাড়া ইউনিয়ন অবস্থিত।

ইউনিয়নের পূর্ব দিক দিয়ে তিস্তা নদী এবং মাঝ বরাবর নাউতারা নদী প্রবাহিত হয়েছে।

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

খগাখড়িবাড়ী ইউনিয়ন ৬টি মৌজা/গ্রাম নিয়ে গঠিত। মৌজা সমুহ ৯টি প্রশাসনিক ওয়ার্ডে বিভক্ত।

মৌজা সমূহ-

  • কিসামত ছাতনাই
  • দোহলপাড়া
  • উত্তরবাড়ী
  • খগাবড়বাড়ী
  • বন্দরখড়িবাড়ী
  • আদাবাড়ী

ইতিহাস[সম্পাদনা]

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

খগাখড়িবাড়ী ইউনিয়নের মোট জনসংখ্যা= ৩২,১০৩ জন।[৩]

  • মহিলা=
  • পুরুষ=

শিক্ষা[সম্পাদনা]

এ ইউনিয়নের শিক্ষার হার ৪৫% মাত্র। ইউনিয়নের ৪টি কলেজ, মাধ্যমিক বিদ্যালয় ৭টি, প্রাথমিক বিদ্যালয় ২০টি, মাদ্রাসা ৩টি, কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ০১টি এবং কিন্ডারগার্ডেন ৫টি।[৪]

উল্লেখযোগ্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান-

  • জনতা ডিগ্রি কলেজ
  • খগাখড়িবাড়ী টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজ
  • দোহল পাড়া আদর্শ স্কুল অ্যান্ড কলেজ
  • আদাবাড়ী স্কুল অ্যান্ড কলেজ
  • খগাখড়িবাড়ী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়
  • খগাখড়িবাড়ী গার্লস উচ্চ বিদ্যালয়
  • উত্তর নাউতারা উচ্চ বিদ্যালয়
  • গ্রীন ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজি

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

ডিমলা উপজেলার খগাখড়িবাড়ী ইউনিয়নের প্রধান অর্থকরী ফসল ভূট্টা, আলু ও মরিচ। এ এলাকায় ভূট্টার ফলন প্রচুর হয়। এছাড়া মসলা জাতীয় শস্য যেমন আদা, রসুন, মরিচ ও হলুদের ফলনও বেশি হয়। এসব কৃষি পণ্যের উপর ভিত্তি করে এখানে ব্যবসা বাণিজ্য গড়ে উঠেছে। ধান ও বাশ এর উপর ভিত্তি করেও এখানে ব্যবসা বাণিজ্যের প্রসার ঘটেছে।

  • হাট ও বাজার

পাগলপাড়া বাজার, খগার হাট, টুনির হাট, যৌথ বাজার

প্রাকৃতিক সম্পদ[সম্পাদনা]

খগাখড়িবাড়ী ইউনিয়নের উল্লেখযোগ্য প্রাকৃতিক সম্পদ হল নুরি পাথর। এ এলাকার তিস্তা নদীর পানির তলদেশে এবং পাগলপাড়া বাজার, কিসামত ছাতনাই এলাকায় ১৫ - ২০ ফুট মাটির নিচে প্রচুর পরিমাণে নুরি পাথর মজুদ আছে। এ উপজেলার অন্য প্রাকৃতিক সম্পদ হল বালু।

কৃতি ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

  • মশিউর রহমান যাদু মিয়া; গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সিনিয়র মন্ত্রী ছিলেন। খগাখড়িবাড়ী ইউনিয়নের বন্দরখড়িবাড়ী (টুনিরহাট) নামক মৌজায় জন্ম গ্রহণ করেন।
  • শফিকুল গনি স্বপন; তিনি বাংলাদেশ সরকারের মন্ত্রী ছিলেন।খগাখড়িবাড়ী ইউনিয়নের বন্দরখড়িবাড়ী (টুনিরহাট) নামক মৌজায় জন্ম গ্রহণ করেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Geographic coordinates of Dimla, Bangladesh" (ইংরেজি ভাষায়)। DATEANDTIME.INFO। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জানুয়ারি ২০১৭ 
  2. জাতীয় তথ্য বাতায়ন
  3. "ইউনিয়নের জনসংখ্যা"www.lcgbangladesh.org। ২৭ জুলাই ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ সেপ্টেম্বর ২০১৫ 
  4. খগাখড়িবাড়ী ইউনিয়নের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]