অ্যামিনো অ্যাসিড

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
আলফা অ্যামিনো অ্যাসিডের সাধারণ চিত্র

রসায়নের ভাষায় কোনও যৌগে যুগপৎ "কার্বক্সিলিক অ্যাসিড" ও "অ্যামাইন" ফাংশনাল গ্রুপ থাকলেই তাকে অ্যামিনো অ্যাসিড বলা যায়। তবে প্রাণরসায়নে (biochemistry) অ্যামিনো অ্যাসিড শব্দটি বিশেষভাবে প্রয়োগ হয় আলফা অ্যামিনো অ্যাসিড হিসেবে, যেখানে 'কার্বক্সিলিক অ্যাসিড" আর "অ্যামাইন" গ্রুপদুটি একই (আলফা) কার্বনে যুক্ত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

উনিশ শতকের শুরুর দিকে কিছু অ্যামিনো এসিড আবিষ্কার হয়। ১৮০৬ সালে ফরাসী রসায়নবিদ Louis-Nicolas Vauquelin এবং Pierre Jean Robiquet প্রথম অ্যামিনো এসিড এসপারাজিন আবিষ্কার করেন এসপারাগাস থেকে।[১][২]


২০টি অ্যামিনো অ্যাসিড প্রোটিন তৈরীতে ব্যবহৃত
অ্যালানিন (dp) | আর্জিনিন (dp) | অ্যাস্পারাজিন (dp) | অ্যাস্পার্টিক অ্যাসিড (dp) | সিস্টিন (dp) | গ্লুটামিক অ্যাসিড (dp) | গ্লুটামিন (dp) | গ্লাইসিন (dp) | হিস্টিডিন (dp) | আইসোলিউসিন (dp) | লিউসিন (dp) | লাইসিন (dp) | মিথায়োনিন (dp) | ফেনাইল অ্যালানিন (dp) | প্রোলিন (dp) | সেরিন (dp) | থ্রিয়োনিন (dp) | ট্রিপ্টোফ্যান (dp) | টাইরোসিন (dp) | ভ্যালিন (dp)
←Peptides Major families of biochemicals Nucleic acids→


তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Vauquelin LN, Robiquet PJ (১৮০৬)। "The discovery of a new plant principle in Asparagus sativus"। Annales de Chimie57: 88–93। 
  2. Anfinsen CB, Edsall JT, Richards FM (১৯৭২)। Advances in Protein Chemistry। New York: Academic Press। পৃষ্ঠা 99, 103। আইএসবিএন 978-0-12-034226-6