ইউরিয়া

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Urea
নামসমূহ
আইইউপিএসি নাম
Diaminomethanal (as organic compound), Carbonyl diamide (as inorganic compound)
অন্যান্য নাম
Carbamide, carbonyl diamide, carbonyldiamine
শনাক্তকারী
৫৭-১৩-৬ N
কেমস্পাইডার ১১৪৩
জেমল ত্রিমাত্রিক মডেল আকর্ষনীয় চিত্র
পাবচেম ১১৭৬
RTECS number YR6250000
Jmol-৩ডি ইমেজ
বৈশিষ্ট্য
CH4N2O
আণবিক ভর 60.07 g/mol
বর্ণ white odourless solid
ঘনত্ব 1.32 g/cm3
গলনাঙ্ক 132.7–135 °C
108 g/100 ml (20 °C)
167 g/100 ml (40 °C)
251 g/100 ml (60 °C)
400 g/100 ml (80 °C)
733 g/100 ml (100 °C)
অম্লতা (pKa) 0.18
Basicity (pKb) 13.82
গঠন
ডায়াপল মুহূর্ত 4.56 D
ঝুঁকি প্রবণতা
ফ্ল্যাশ পয়েন্ট Non-flammable
সম্পর্কিত যৌগ
সুনির্দিষ্টভাবে উল্লেখ করা ছাড়া, পদার্থসমূহের সকল তথ্য-উপাত্তসমূহ তাদের প্রমাণ অবস্থা (২৫ °সে (৭৭ °ফা), ১০০ kPa) অনুসারে দেওয়া হয়েছে।
তথ্যছক তথ্যসূত্র

ইউরিয়া (ইংরেজি: Urea) বা কার্ব্যামাইড (Carbamide) একটি জৈব যৌগ যার রাসায়নিক সংকেত (NH2)2CO। ইউরিয়ার অণুতে দুইটি অ্যামাইন (-NH2) অবশেষ একটি কার্বনিল (-CO-) ফাংশনাল গ্রুপ দ্বারা সংযুক্ত হয়েছে।

Urea Synthesis Woehler.png

পশুসমূহের দেহে নাইট্রোজেনবিশিষ্ট যৌগসমূহের বিপাক প্রক্রিয়াতে ইউরিয়া একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। স্তন্যপায়ী প্রাণীদের মূত্রে নাইট্রোজেনধারী যৌগের মধ্যে ইউরিয়া প্রধান। ইউরিয়া কঠিন, বর্ণহীন, গন্ধহীন, ক্ষারধর্মী নয়, অম্লধর্মী নয়, পানিতে অতি সহজে দ্রাব্য এবং তুলনামূলকভাবে অবিষাক্ত। এ কারণে নাইট্রোজেনের উৎস হিসেবে এটিকে ব্যাপকভাবে সারে ব্যবহার করা হয়। এছাড়া রাসায়নিক শিল্পে ইউরিয়াকে একটি গুরুত্বপূর্ণ ফিডস্টক (feedstock) হিসেবে ব্যবহার করা হয়।

জার্মান রসায়নবিদ ফ্রিডরিশ ভোলার ১৮২৮ সালে প্রথম অজৈব পদার্থ থেকে জৈব পদার্থ ইউরিয়া সংশ্লেষণের পদ্ধতি আবিষ্কার করেন। তাঁর এই আবিষ্কার গোটা রসায়নের ইতিহাসের একটি গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা হিসেবে গণ্য করা হয়।

ইউরিয়া সার[সম্পাদনা]

ইউরিয়া একটি বহুল ব্যবহৃত সার।

উৎপাদন প্রক্রিয়া[সম্পাদনা]

ব্যবহার[সম্পাদনা]