অস্ট্রিয়া-বাংলাদেশ সম্পর্ক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
Austria-Bangladesh সম্পর্ক
মানচিত্র Austria এবং Bangladesh অবস্থান নির্দেশ করছে

অস্ট্রিয়া

বাংলাদেশ

অস্ট্রিয়া – বাংলাদেশ সম্পর্ক বাংলাদেশ এবং অস্ট্রিয়ার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের উল্লেখ করে। দু'দেশের সম্পর্ককে আরও জোরদার করার লক্ষ্যে কাজ করা দু'দেশের সাথে সৌজন্যমূলক বলে বিবেচিত হয়েছে। [১]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

দীর্ঘ দূরত্বের কারণে (দুই রাজধানী শহর ভিয়েনা এবং ঢাকা প্রায় ৭ হাজার কিলোমিটার দূরুত্বের। [২] ) দুই দেশের মধ্যে দুটি মানুষের মধ্যে ঐতিহাসিক পরিচিতি বরং ছোট হয়েছে, যেমন বাংলাদেশ কখনো এশিয়া ও অস্ট্রিয়ার একটি উদ্ধত ভূমিকা গ্রহণ যদিও হাবসবার্গ রাজবংশের অধীনে ইউরোপের অভ্যন্তরে খুব শক্তিশালী, মহাদেশীয় বিষয়গুলিতে মনোনিবেশ করেছিল এবং কখনও ঔপনিবেশিক সাম্রাজ্যে পরিণত হয় নি।

দুই দেশের অবশ্য দুইটি বিশ্বযুদ্ধের একে অপরের বিরুদ্ধে, অস্ট্রিয়া সঙ্গে যুদ্ধ করে (যেমন অস্ট্রিয়া-হাঙ্গেরি ) প্রভাবশালী এক হচ্ছে অক্ষশক্তির মধ্যে বিশ্বযুদ্ধের এক এবং অংশ অ্যাডল্ফ হিটলার এর জাতীয় সমাজতান্ত্রিক নাৎসি জার্মানির মধ্যে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের এবং বাংলাদেশ একটি অংশ হচ্ছে ব্রিটিশ রাজ, একটি উপনিবেশ যুক্তরাজ্য, যা অস্ট্রিয়া লড়াই (যথাক্রমে জার্মানি, যা অস্ট্রিয়া ১৯৩৮ থেকে ১৯৪৫ একটি অংশ ছিল) উভয় কয়েকবার।

উচ্চ পর্যায়ের পরিদর্শন[সম্পাদনা]

বাংলাদেশের প্রাক্তন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দিপু মনি ২০১৩ সালে ভিয়েনা সফর করেছিলেন। [৩]

সহযোগিতার ক্ষেত্র[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ ও অস্ট্রিয়া বিদ্যুৎ ও জ্বালানি, স্বাস্থ্য, শিক্ষা, পর্যটন, মানবসম্পদ উন্নয়ন এবং বর্জ্য ব্যবস্থাপনা উভয় দেশের দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতার আশ্বাসযুক্ত ক্ষেত্র হিসাবে চিহ্নিত করেছে। [৩]

শিক্ষাগত সহযোগিতা[সম্পাদনা]

দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার জন্য শিক্ষা খাতকে সম্ভাব্য ক্ষেত্র হিসাবে দেখা গেছে। বাংলাদেশ ও অস্ট্রিয়া দুই দেশের মধ্যে শিক্ষামূলক বিনিময় কর্মসূচির উপর জোর দিয়েছে। বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য অস্ট্রিয়ান বৃত্তির সংখ্যা বাড়াতে অস্ট্রিয়ার সহযোগিতা চেয়েছে বাংলাদেশ। [৪]

অর্থনৈতিক সহযোগিতা[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ ও অস্ট্রিয়া দু'দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক অর্থনৈতিক কার্যক্রম সম্প্রসারণের জন্য গভীর আগ্রহ দেখিয়েছে এবং এ ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করছে। [৫][৬] ২০১৩ সাল পর্যন্ত, দুই দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে € 400 মিলিয়ন। প্রায় 30 টি অস্ট্রিয়া ভিত্তিক বহুজাতিক সংস্থা বাংলাদেশে কাজ করছে। [৭]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Dipu Moni invited to Austria to embolden relations"Bangladesh Sangbad Sangstha। ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ 
  2. http://www.daftlogic.com/projects-google-maps-distance-calculator.htm
  3. "Bangladesh, Austria identify common fields of cooperation"The Daily Star। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ 
  4. "Iajuddin for boosting trade relations between Dhaka and Vienna"। The Bangabhaban। ২৭ জুন ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ 
  5. "Dhaka keen to develop closer economic ties with Vienna"The Daily Star। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ 
  6. "Austrian govt invites Dipu Moni"Daily Sun। ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ 
  7. "Bangladesh-Austria ties to grow further: Spindelegger"The Independent। ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৪