প্রথম বিশ্বযুদ্ধ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
প্রথম বিশ্বযুদ্ধ
WWImontage.jpg
ঘড়ির কাঁটার অনুসারে উপর হতে: The aftermath of shelling during the Battle of the Somme, Mark V tanks cross the Hindenburg Line, এইচএমএস Irresistible sinks after hitting a mine in the Dardanelles, a British Vickers machine gun crew wears gas masks during the Battle of the Somme, Albatros D.III fighters of Jagdstaffel 11
তারিখ১ জুলাই ১৯১৪ (১৯১৪-০৭-০১) – ১১ নভেম্বর ১৯১৮ (1918-11-11) (৪ বছর, ১৩৩ দিন)
অবস্থানইউরোপ, আফ্রিকা, মধ্য প্রাচ্য, প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপসমূহ, চীন, ভারত মহাসাগর, ও দক্ষিণ ও উত্তর আমেরিকার উপকূল
ফলাফল

মিত্র শক্তির বিজয়

অধিকৃত
এলাকার
পরিবর্তন
  • ইউরোপ ও মধ্য প্রাচ্যে নতুন রাষ্ট্র গঠন
  • জার্মান উপনিবেশসমূহ হস্তান্তর এবং সাবেক উসমানীয় সাম্রাজ্যের অঞ্চলসমূহ অন্য শক্তিতে রূপান্তর
  • যুধ্যমান পক্ষ
    মিত্রশক্তি অক্ষ শক্তি:
    সেনাধিপতি
    Allied Powers leaders: Central Powers leaders:
    শক্তি
    • রুশ সাম্রাজ্য 12,000,000
    • ব্রিটিশ সাম্রাজ্য 8,841,541[১][২]
    • তৃতীয় ফরাসি প্রজাতন্ত্র 8,660,000[৩]
    • ইতালির রাজত্ব (১৮৬১–১৯৪৬) 5,615,140
    • মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র 4,743,826
    • রোমানীয় রাজ্য 1,234,000
    • জাপানের সাম্রাজ্য 800,000
    • সার্বিয়ার রাজত্ব 707,343
    • বেলজিয়াম 380,000
    • গ্রিস রাজ্য 250,000
    • পর্তুগাল 80,000
    • মন্টিনেগ্রোর রাজত্ব 50,000
    মোট: ৪২,৯৫৯,৮৫০[৪]
    • জার্মান সাম্রাজ্য ১৩,২৫০,০০০
    • অস্ট্রিয়া-হাঙ্গেরি ৭,৮০০,০০০
    • উসমানীয় সাম্রাজ্য ২,৯৯৮,৩২১
    • বুলগেরিয়ার রাজত্ব ১,২০০,০০০
    মোট: ২৫,২৪৮,৩২১[৪]
    হতাহত ও ক্ষয়ক্ষতি
    • সৈন্যের মৃত্যু: ৫,৫২৫,০০০
    • সৈন্য আহত: ১২,৮৩১,৫০০
    • মোট: ১৮,৩৫৬,৫০০ KIA, WIA and MIA
    • সাধারণ মানুষের মৃত্যু: ৪,০০০,০০০

    ...আরও বিস্তারিত


    তৃতীয় ফরাসি প্রজাতন্ত্র 1,397,800 killed[৫]
    ব্রিটিশ সাম্রাজ্য 1,114,914 killed[৫]
    ইতালির রাজত্ব (১৮৬১–১৯৪৬) 651,000 killed[৫]
    রুশ সাম্রাজ্য 1,811,000 killed[৫]
    রোমানীয় রাজ্য 250,000[৫]-335,000 killed[৬]
    জাপানের সাম্রাজ্য 415 killed[৫]
    সার্বিয়ার রাজত্ব 275,000 killed[৫]
    বেলজিয়াম 58,637[৫]-87,500 killed[৬]
    মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র 116,708 killed[৫]
    গ্রিস রাজ্য 26,000 killed[৫]
    পর্তুগাল 7,222 killed[৫]

    মন্টিনেগ্রোর রাজত্ব 3,000 killed[৫]
    • সৈন্যের মৃত্যু: ৪,৩৮৬,০০০
    • সৈন্য আহত: ৮,৩৮৮,০০০
    • মোট: ১২,৭৭৪,০০০ KIA, WIA and MIA
    • সাধারণ মানুষের মৃত্যু: ৩,৭০০,০০০

    ...আরও বিস্তারিত


    জার্মান সাম্রাজ্য 2,050,897 killed[৫]
    অস্ট্রিয়া-হাঙ্গেরি 1,200,000 killed[৬]
    উসমানীয় সাম্রাজ্য 771,844 killed[৫]
    বুলগেরিয়ার রাজত্ব 87,500 killed[৫]

    প্রথম বিশ্বযুদ্ধ (WWI বা WW1), এছাড়াও বিশ্বযুদ্ধ-১, বা গ্রেট ওয়ার হিসাবে পরিচিত, একটি বৈশ্বিক যুদ্ধ যা ১৯১৪ সালের ২৮ জুলাই ইউরোপে শুরু হয় এবং ১১ নভেম্বর ১৯১৮ পর্যন্ত স্থায়ী ছিল। ৬০ মিলিয়ন ইউরোপীয়সহ আরো ৭০ মিলিয়ন সামরিক বাহিনীর সদস্য ইতিহাসের অন্যতম বৃহত্তম এই যুদ্ধে একত্রিত হয়।[৭] এটি ছিল ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়াবহ সংঘাতের একটি এবং এর ফলে পরবর্তী সময়ে এর সাথে যুক্ত দেশগুলোর রাজনীতিতে বিরাট পরিবর্তন হয়। অনেক দেশে এটা বিপ্লবেরও সূচনা করে।

    ১৯১৪ সালের ২৮ জুন বসনিয়ার রাজধানী সারায়েভো শহরে অস্ট্রিয়ার যুবরাজ আর্চডিউক ফ্রাঞ্জ ফার্ডিনান্ড এক সার্বের গুলিতে নিহত হন। অস্ট্রিয়া-হাঙ্গেরি এই হত্যাকাণ্ডের জন্য সার্বিয়াকে দায়ী করে এবং ওই বছরের ২৮ জুন সার্বিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে। এ যুদ্ধে দু'দেশের বন্ধু রাষ্ট্রগুলো ধীরে ধীরে জড়িয়ে পড়ে। এতে যোগ দিয়েছিল সে সময়ের অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী সকল দেশ। এভাবে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের (১৯১৪-১৯১৮) সূচনা হয়। তবে অস্ট্রিয়ার যুবরাজের হত্যাকাণ্ডই প্রথম বিশ্বযুদ্ধের একমাত্র কারণ ছিল না। উনিশ শতকে শিল্পে বিপ্লবের কারণে সহজে কাঁচামাল সংগ্রহ এবং তৈরি পণ্য বিক্রির জন্য উপনিবেশ স্থাপনে প্রতিযোগিতা এবং আগের দ্বন্দ্ব-সংঘাত ইত্যাদিও প্রথম বিশ্ব যুদ্ধের কারণ। প্রথম বিশ্বযুদ্ধে একপক্ষে ছিল উসমানীয় সাম্রাজ্য, অস্ট্রিয়া-হাঙ্গেরি, জার্মানিবুলগেরিয়া। যাদের বলা হতো কেন্দ্রীয় শক্তি। আর অপরপক্ষে ছিল সার্বিয়া, রাশিয়া, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, জাপান, ইতালি, রুমানিয়ামার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। যাদের বলা হতো মিত্রশক্তি।

    খরচ[সম্পাদনা]

    এই মহাযুদ্ধে প্রায় ১৮৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার প্রত্যক্ষ ও ১৫১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার পরোক্ষ খরচ হয়। যা ইতিপূর্বে ঘটিত যেকোনো যুদ্ধব্যয়ের চেয়ে অনেক বেশি।

    যুদ্ধের ফলাফল[সম্পাদনা]

    প্রথম বিশ্বযুদ্ধে ৯০ লক্ষ যোদ্ধা ও ৫০ লক্ষ নিরীহ মানুষ নিহত হয়। প্রায় এককোটি সৈন্য এবং ২ কোটি ১০ লক্ষ সাধারণ মানুষ আহত হয়, এদের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের ছিল এক লক্ষ ষোল হাজার পাঁচশত ষোল জন। চারটি সাম্রাজ্যের পতন ঘটে। রোমানভ সাম্রাজ্য বা রুশ সাম্রাজ্য ১৯১৭ সালে, জার্মান ও অস্ট্রো-হাঙ্গেরিয়ান সাম্রাজ্য ১৯১৮ সালে এবং অটোমান সাম্রাজ্য ১৯২২ সালে। অস্ট্রিয়া, চেকোস্লোভাকিয়া, এস্তোনিয়া, হাঙ্গেরি, লাটভিয়া, লিথুয়ানিয়া এবং তুরস্ক স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে ওঠে। অটোমান সাম্রাজ্যের অধীনে থাকা অধিকাংশ আরব এলাকা ব্রিটিশ ও ফরাসি সাম্রাজ্যের অধীনে আসে। ১৯১৭ সালে বলশেভিকরা রাশিয়ার এবং ১৯২২ সালে ফ্যাসিস্টরা ইতালির ক্ষমতায় আরোহন করে। এ যুদ্ধের অন্য ফল হলো: ইনফ্লুয়েঞ্জায় বিশ্বব্যাপী ৫ কোটি মানুষের মৃত্যু হয়।

    আরও দেখুন[সম্পাদনা]

    প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ

    তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

    1. "British Army statistics of the Great War"। 1914-1918.net। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ডিসেম্বর ২০১১ 
    2. Figures are for the British Empire
    3. Figures are for Metropolitan France and its colonies
    4. Tucker ও Roberts 2005, পৃ. 273
    5. [১]
    6. Nash (১৯৭৬)। Darkest Hours। Rowman & Littlefield। আইএসবিএন 9781590775264 
    7. [Keegan 1998, p. 8.],[ Bade & Brown 2003, pp. 167–168.]
    টীকা
    1. The United States did not ratify any of the treaties agreed to at the Paris Peace Conference.
    2. Bulgaria joined the Central Powers on 14 October 1915.
    3. The Ottoman Empire agreed to a secret alliance with Germany on 2 August 1914. It joined the war on the side of the Central Powers on 29 October 1914.
    4. The United States declared war on Austria-Hungary on 7 December 1917.
    5. Austria was considered one of the successor states to Austria-Hungary.
    6. The United States declared war on Germany on 6 April 1917.
    7. Hungary was considered one of the successor states to Austria-Hungary.
    8. Although the Treaty of Sèvres was intended to end the war between the Allied Powers and the Ottoman Empire, the Allied Powers and the Republic of Turkey, the successor state of the Ottoman Empire, agreed to the Treaty of Lausanne.