গোল্ড কোস্ট, কুইন্সল্যান্ড

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
গোল্ড কোস্ট
কুইন্সল্যান্ড
Gold Coast skyline.jpg
সার্ফার প্যারাডাইজ সৈকত থেকে গোল্ড কোস্টের স্কাইলাইন, ২০১৪
ভৌগোলিক স্থানাঙ্ক২৮°০১′০″ দক্ষিণ ১৫৩°২৪′০″ পূর্ব / ২৮.০১৬৬৭° দক্ষিণ ১৫৩.৪০০০০° পূর্ব / -28.01667; 153.40000স্থানাঙ্ক: ২৮°০১′০″ দক্ষিণ ১৫৩°২৪′০″ পূর্ব / ২৮.০১৬৬৭° দক্ষিণ ১৫৩.৪০০০০° পূর্ব / -28.01667; 153.40000
জনসংখ্যা৬,৩৮,০৯০ (২০১৬)[১] (৬ষ্ঠ)
 • জনঘনত্ব৯৭২/বর্গ কি.মি. (২,৫২০/ব.মা.)
আয়তন৪১৪.৩ বর্গ কি.মি.(১৬০.০ বর্গমাইল)
সময় অঞ্চলএইএসটি (UTC+১০:০০)
নগরপালটম টাটে
অবস্থানব্রিসবেন[২] থেকে SSE দিকে ৬৬ কি.মি. (৪১ মা.) দূরে
স্থানীয় সরকারসিটি অফ গোল্ড কোস্ট
রাজ্য নির্বাচনী এলাকা
কেন্দ্রীয় বিভাগ
গড় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা গড় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বার্ষিক বৃষ্টিপাত
25.1 °সে
77 °ফা
17.2 °সে
63 °ফা
1218.2 মি.মি.
48 ইঞ্চি

গোল্ড কোস্ট অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ড রাজ্যের উপকূলীয় শহর। শহরটি রাজ্যের রাজধানী ব্রিসবেনের প্রায় ৬৬ কিলোমিটার (৪১ মাইল) দক্ষিণ-দক্ষিণপূর্ব এবং নিউ সাউথ ওয়েলসের রাজ্যের উত্তর সীমান্তের কাছেই অবস্থিত। ২০১৬ সালের জনগণনা অনুযায়ী শহরটির জনসংখ্যা ৬,৩৮,০৯০ জন।[৩] গোল্ড কোস্ট অস্ট্রেলিয়ার ৬ষ্ঠ বৃহত্তম শহর ও এটি অস্ট্রেলিয়ার বৃহত্তম অ-রাজধানী শহর এবং কুইন্সল্যান্ডের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর।[৪]

যখন অনুসন্ধানকারী জন অক্সলি দ্বারা সমুদ্র সৈকতে আবিষ্কারের আগে ১৮২৩ সাল পর্যন্ত গোল্ড কোস্ট অঞ্চলটি ইউরোপীয়দের মধ্যে উপেক্ষিত ছিল। এই অঞ্চল থেকে লাল সিডারের সরবরাহ ১৯ শতকের মাঝামাঝি সময়ে সকলকে আকর্ষণ করে। পরে ১৮৭৫ সালে সাউথপোর্টের জরিপ কাজ ও প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ধনী ব্রিসবেন অধিবাসীদের জন্য ছুটির দিনে ভ্রমণের স্থান হিসেবে খ্যাতি অর্জন করে।

১৯২০-এর দশকের শেষ দিকে সার্ফেস প্যারাডাইস হোটেল প্রতিষ্ঠার পর, গোল্ড কোস্ট অঞ্চল উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছিল।[৫][৬] ১৯৮০-এর দশকে এই অঞ্চলটি একটি অগ্রণী পর্যটন গন্তব্য হিসেবে বৃদ্ধি পেয়েছিল এবং ১৯৯৪ সালে গোল্ড কোস্টের স্থানীয় সরকার গোল্ড কোস্ট শহরটিকে গোল্ড কোস্টের মহানগর এলাকার বেশিরভাগ এলাকা জুড়ে বিস্তৃত করেছিল। বর্তমানে শহরটি ব্রিসবেনের পরে অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় জনবহুল স্থানীয় সরকার এলাকা।

আজ, গোল্ড কোস্ট তার সুন্দর উপক্রান্তীয় জলবায়ু সাথে একটি প্রধান পর্যটন গন্তব্য এবং এটি তার সার্ফিং সৈকত, সুউচ্চ ভবনের আধিপত্যযুক্ত দিগন্ত, থিম পার্ক, নাইটলাইফ, বৃষ্টিঅরণ্য এবং গোল্ড কোস্ট হিন্টারল্যান্ডের জন্য ব্যাপকভাবে পরিচিত। টেলিভিশন প্রযোজনা এবং একটি প্রধান চলচ্চিত্র শিল্পের সাথে শহরটি দেশের বিনোদন শিল্পের অংশ। শহরটি ২১ তম কমনওয়েলথ গেমস আয়োজন করেছিল, যা ২০১৮ সালের ৪ এপ্রিল থেকে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত চলেছিল।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. টেমপ্লেট:Census 2016 AUS
  2. "Great Circle Distance between GOLD COAST and BRISBANE"। Geoscience Australia। মার্চ ২০০৪। ৮ আগস্ট ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা 
  3. "Details – Main Features" (ইংরেজি ভাষায়)। Australian Bureau of Statistics। ৩১ মার্চ ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ এপ্রিল ২০১৭ 
  4. "Future" (PDF)Future Gold Coast। ১১ মার্চ ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা (PDF)। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জানুয়ারি ২০১৮ 
  5. "Real Estate"Daily Mail (7091)। Brisbane। ১৮ নভেম্বর ১৯২৪। পৃষ্ঠা 16। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জানুয়ারি ২০১৮ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  6. "Another Pioneer Passes"South Coast Bulletin, (1248)। Queensland, Australia। ১২ মার্চ ১৯৫২। পৃষ্ঠা 8। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জানুয়ারি ২০১৮ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]